SENSEX
NIFTY
GOLD
USD/INR

Weather

46    C
... ...View News by News Source

রেমাল তান্ডবে ‘শেষ’বাংলাদেশ! প্রাণ গেল ১০ জনের, ধ্বংস ৩৫ হাজার বাড়ি, বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন পৌনে ৩ কোটি

বাংলাহান্ট ডেস্ক : ঘূর্ণিঝড় রেমালের (Remal) তাণ্ডবে বাংলাদেশে (Bangladesh) প্রাণ হারিয়েছেন কমপক্ষে ১০ জন। গত দুদিনের এই বিপর্যয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে প্রায় ৩৫ হাজার বাড়ি। হিসাব অনুযায়ী, রেমালের তান্ডবে ওপার বাংলার ১৯ টি জেলার ৩৭ লাখ ৫৮ হাজারের বেশি মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। সরকারি সূত্র তুলে ধরে বাংলাদেশের দৈনিক সংবাদপত্র ‘প্রথম আলো’ এই খবর জানিয়েছে। ঢাকার সচিবালয়ে রেমাল পরবর্তী ত্রাণ, উদ্ধারকার্য এবং পুনর্বাসন নিয়ে সোমবার বৈঠক করেন বাংলাদেশের দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী মহিবুর রহমান। বৈঠকের পর সাংবাদিকদের তিনি জানিয়েছেন, সোমবার বিকাল পর্যন্ত এই ঘূর্ণিঝড়ের ফলে খুলনা, সাতক্ষীরা, বরিশাল, পটুয়াখালি, ভোলা এবং চট্টগ্রামে ১০ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। আরোও পড়ুন :  খেল দেখাচ্ছে নিম্নচাপ! ঢাকা থেকে মাত্র ১০০ কিমি দূরেই অবস্থান! প্রবল বর্ষণের পূর্বাভাস উত্তরবঙ্গে এই প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের ফলে বিদ্যুতের খুঁটি উপরে গেছে উপকূলীর জেলাগুলিতে। যার জেরে ব্যাহত হয়েছে বিদ্যুৎ পরিষেবা।  ‘প্রথম আলো’য় জানানো হয়েছে, বিদ্যুৎ বিতরণ সংস্থা পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ড (আরইবি)-এর ২কোটি ৭০ লক্ষের বেশি গ্রাহক বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন অবস্থায় রয়েছেন। এছাড়াও ‘ওয়েস্ট জ়োন পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি’ (ওজোপাডিকো)-র প্রায় পাঁচ লক্ষ গ্রাহক বিদ্যুৎ পরিষেবা থেকে বিচ্ছিন্ন বলে দাবি করা হয়েছে। ঘূর্ণিঝড় রেমাল রবিবার রাত সাড়ে ১১ টা নাগাদ ল্যান্ড ফল করে পশ্চিমবঙ্গ উপকূল এবং বাংলাদেশের খেপুপাড়া উপকূলে। এর প্রভাবে ব্যাপক ঝড়-বৃষ্টি শুরু হয় উপকূলের বিভিন্ন জেলায়। পটুয়াখালির খেপুপাড়ায় এদিন রাত দেড়টা থেকে ২টো মধ্যে সবথেকে তীব্র গতিতে ঘন্টায় প্রায় ১১১ কিলোমিটার বেগে ঝড় বইতে থাকে। প্রবল জলোচ্ছ্বাসে জলমগ্ন হয়ে পড়ে উপকূলীয় জেলাগুলি। প্রচুর মাছের ভেড়ি ভেসে যায়। এছাড়াও সেদেশের সংবাদমাধ্যমে দাবি করা হয়েছে, নোনা জল ঢুকে নষ্ট হয়েছে প্রচুর কৃষি জমি।

বাংলা হান্ট 28 May 2024 6:43 pm

Fact Check : ভারতীয় সেনাকে সমর্থনের শপথ পাক অধিকৃত কাশ্মীরের? ভাইরাল ভিডিয়োর সত্যতা জানুন

পাক অধিকৃত কাশ্মীরের নাগরিকরা ভারতীয় সেনাকে সমর্থনের অঙ্গীকার করছেন? ভারত এবং পাকিস্তানের যুদ্ধ বাঁধলে তারা ভারতীয় সেনাকেই সমর্থন করবেন বলে শপথ নিচ্ছেন? সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া একটি ভিডিয়ো ঘিরে হইচই পড়ে গিয়েছে। ভিডিয়োতে কাদের দেখা যাচ্ছে? জানুন এই ভাইরাল পোস্টের সত্যতা...

এ ই সময় 28 May 2024 6:36 pm

এখনও প্যান-আধার লিঙ্ক করেননি? ৩১-মের আগে এই কাজ না করলেই হবে বিরাট ক্ষতি

বাংলা হান্ট ডেস্ক: ইতিপূর্বে বহুবার প্যান এবং আধার কার্ড লিঙ্ক (Pan-Aadhaar Link) করার জন্য দেশবাসীকে সতর্ক করেছে আয়কর দপ্তর (Income Tax Department)। কিন্তু তারপরেও টনক নড়েনি অনেকেরই।তাই আয়কর দপ্তরের নিয়ম অগ্রাহ্য করে এখনও অনেকেই এই কাজটি অসম্পূর্ণ রেখেছেন। কিন্তু এবার তাদের হাতে আর সময় নেই একেবারেই। হাতেগোনা আর মাত্র তিনটে দিন। এই সময়ের মধ্যে যদি কেউ প্যান-আধার লিংক না করেন তাহলে তার উপরে নেমে আসবে বিরাট করের বোঝা। তাই এই দ্বিগুণ করের বোঝা এড়ানোর জন্যই এবার আয়কর দপ্তরের তরফে সকলকে শেষবারের মতো জানানো হয়েছে, আগামী ৩১ মে’র মধ্যে প্যান আধার লিঙ্ক করিয়ে নেওয়ার জন্য। তাই দেশবাসীকে সতর্ক করতে এপ্রসঙ্গে মঙ্গলবার আয়কর দপ্তরের তরফে একটি এক্সবার্তায় জানানো হয়েছে, ‘করদাতাদের কাছে আবেদন, দয়া করে আপনারা ৩১ মে, ২০২৪-এর মধ্যে প্যানের সঙ্গে আধার কার্ডের নম্বর লিঙ্ক করুন। এটা করলে আপনাদের অতিরিক্ত হারে কর কাটা হবে না।’ প্রসঙ্গত এই প্রথম নয়, এর আগেও গত ২৩ এপ্রিল আয়কর দফতরের তরফে একইরকম ভাবে বিজ্ঞপ্তি দিয়ে করদাতাদের প্যান-আধার লিঙ্ক করার কথা মনে করিয়ে দেওয়া হয়েছিল। তবে এই নির্ধারিত সময়ের মধ্যেও যারা প্যানের সঙ্গে আধার নম্বর লিঙ্ক করবেন না, তাঁদের অতিরিক্ত হারে টিডিএস বা ট্যাক্স ডিডাকশন অ্যাট সোর্স কাটা হবে বলে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। আরও পড়ুন: প্রস্তুতি প্রায় শেষ, রথের আগেই উদ্বোধন দিঘার জগন্নাথ মন্দিরের? আসছে বড় খবর Kind Attention Taxpayers, Please link your PAN with Aadhaar before May 31st, 2024, if you haven’t already, in order to avoid tax deduction at a higher rate. Please refer to CBDT Circular No.6/2024 dtd 23rd April, 2024. pic.twitter.com/L4UfP436aI — Income Tax India (@IncomeTaxIndia) May 28, 2024 শুধু দ্বিগুণ কর-ই  নয় ৩১ মে’র মধ্যে প্যান-আধার লিঙ্ক না করা হলে তার চেয়েও বড় ক্ষতি হয়ে যেতে পারে। জানা যাচ্ছে এই সময়ে যে বা যাঁরা প্যান-আধার লিঙ্ক না করাবেন না তাদের প্যান কার্ড নম্বর নিষ্ক্রিয় হতে পারে। সেক্ষেত্রে ট্যাক্স রিটার্ন দিতেও  সমস্যা হতে পারে। তাছাড়া বেতন,কিংবা দীর্ঘমেয়াদি সঞ্চয়ের সুদ  থেকেও কাটা হবে উচ্চ হারে টিডিএস।

বাংলা হান্ট 28 May 2024 6:29 pm

বন্ধ হতে চলেছে নয়াদিল্লি রেল স্টেশন? যাত্রীদের উদ্দেশ্যে বড় বার্তা রেলের

বাংলা হান্ট ডেস্ক: সম্প্রতি এই বিষয়টি সামনে এসেছিল যে নয়াদিল্লি রেল স্টেশন (New Delhi Rail Station) নাকি বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। তারপরেই যাত্রীদের মনে এই প্রসঙ্গে শুরু হয়েছিল প্রশ্নের ভিড়। যদিও, এবার এই বিষয়ে আসল সত্যি সামনে আনল ভারতীয় রেল (Indian Railways)। মূলত, রেলের তরফে নয়াদিল্লি রেল স্টেশন বন্ধের গুজব পুরোপুরি প্রত্যাখ্যান করা হয়েছে। পাশাপাশি, উত্তর রেলের মুখ্য জনসংযোগ আধিকারিক দীপক কুমার স্পষ্টভাবে জানিয়েছেন যে, আগামী সময়ে নয়াদিল্লি রেল স্টেশন বন্ধ করার কোনও পরিকল্পনা নেই। এই প্রসঙ্গে জানিয়ে রাখি যে, কিছু রিপোর্টে বলা হয়েছিল যে নয়াদিল্লি রেল স্টেশন সংস্কারের জন্য বন্ধ হয়ে যেতে পারে। কিন্তু, এবার রেলের আধিকারিকদের তরফে এই দাবি সম্পূর্ণ প্রত্যাখ্যান করা হয়েছে। রিপোর্টে কি বলা হয়েছিল: অনেক রিপোর্টে বলা হয়েছিল যে, নতুন দিল্লি রেল স্টেশনটি সংস্কারের জন্য কিছু সময়ের জন্য বন্ধ রাখা হতে পারে। ওই সময়ের মধ্যে, নয়াদিল্লি থেকে চলমান ট্রেনগুলি অন্যান্য স্টেশন থেকে পরিচালনা করা হবে। এতে সাধারণ মানুষের অসুবিধা হত। পাশাপাশি রিপোর্টে এটাও বলা হয়, ২০২৪ সালের শেষ নাগাদ এই রেলস্টেশন বন্ধ হয়ে যেতে পারে। আরও পড়ুন:  T20 বিশ্বকাপে ভারতের গ্রুপে কার শক্তি কতটা? পাকিস্তানের পাশাপাশি চিন্তা বাড়াতে পারে এই দল তারপর ওই স্টেশনের সংস্কারের কাজ দ্রুত শুরু হবে এবং যেটি শেষ হতে প্রায় ৪ থেকে ৫ বছর সময় লাগতে পারে। নয়াদিল্লির নতুন রেল স্টেশন ২০২৯ সালের মধ্যে সম্পূর্ণরূপে প্রস্তুত হয়ে যাবে বলেও জানানো হয় রিপোর্ট। ওই সময়ের মধ্যে, নয়াদিল্লি থেকে চলা ট্রেনগুলি আনন্দ বিহার, হজরত নিজামুদ্দিন, রোহিলা বা গাজিয়াবাদ রেলওয়ে স্টেশন থেকে পরিচালনা করা হবে। আরও পড়ুন:  অন্য দেশ বানাতে চাইছে এয়ার বেস! ভেঙে খান খান হবে বাংলাদেশ, আশঙ্কা হাসিনার কি জানালেন রেলের আধিকারিকরা: এমতাবস্থায়, সমগ্র বিষয়টি পরিপ্রেক্ষিতে উত্তর রেলের প্রধান জনসংযোগ আধিকারিক দীপক কুমার বলেছেন, “এটি স্পষ্ট করা হচ্ছে যে অদূর ভবিষ্যতে নয়াদিল্লি রেল স্টেশন থেকে ট্রেন চলাচল বন্ধ করার কোনো পরিকল্পনা নেই।” মূলত, রিপোর্টে স্টেশন সংস্কারের জন্যই নয়াদিল্লি রেল স্টেশন বন্ধ থাকার বিষয়টি জানানো হয়েছিল। যদিও, এই তথ্য সম্পূর্ণ ভুল। তবে, এটা সত্য যে সম্প্রতি রেলের তরফ ১,৩০০ টি স্টেশন পুনর্নির্মাণের পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে। ২০২৩ সালের বাজেটেও কেন্দ্রীয় সরকার এই তথ্য দিয়েছে। এমন পরিস্থিতিতে, নয়াদিল্লি স্টেশনের পুনর্নির্মাণের কাজ আগামী সময়ে শুরু হতে পারে বলে পূর্ণ আশা রয়েছে। তবে, এর জন্য স্টেশনটি বন্ধ করার কোনো উল্লেখ নেই।

বাংলা হান্ট 28 May 2024 6:23 pm

চিরঘুমের দেশে গিয়েও ২ জীবনদান ২১ মাসের শিশুর! দেশের সর্বকনিষ্ঠ অঙ্গদানকারী হিসেবে ইতিহাসে প্রত্যুষ

আর কখনও আদুরে কথায় বাড়ি মাতিয়ে রাখবে না সে। আর কখনও দুষ্টুমি-বায়না করবে না। সকলকে কাঁদিয়ে মাত্র ২১ মাস বয়সেই চির বিদায় নিয়েছে। তবুও দুই জনের মধ্যেই বেঁচে থাকবে সে। সন্তান শোক বুকে চেপে ধরে রেখেও বাবা-মা সিদ্ধান্ত নেন পুত্রের অঙ্গদান করবেন। তাঁদের ছেলেই বর্তমানে দেশের সর্বকনিষ্ঠ অঙ্গদানকারী হিসেবে ইতিহাস তৈরি করল। নিজে না ফেরার দেশে চলে গিয়েও নতুন জীবন দিয়ে গেল ছোট্ট শিশু।

এ ই সময় 28 May 2024 6:10 pm

প্রস্তুতি প্রায় শেষ, রথের আগেই উদ্বোধন দিঘার জগন্নাথ মন্দিরের? আসছে বড় খবর

বাংলা হান্ট ডেস্ক: প্রায় শেষের পথে দিঘার (Digha) জগন্নাথ মন্দির (Jagannath Temple) তৈরির কাজ। এবার মন্দির উদ্বোধনের অপেক্ষায় দিন গুনছেন রাজ্যবাসী। বাংলার মানুষদের যাতে জগন্নাথ দেবের দর্শন করতে আর রাজ্যের বাইরে যেতে না হয় তাই  ২০১৮ সালেই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় পুরীর জগন্নাথ দেবের মন্দিরের আদলে দীঘার জগন্নাথদেবের মন্দিরের নির্মাণ করার কথা ঘোষণা করেছিলেন। কথা ছিল চলতি বছরের এপ্রিল মাসেই দিঘার এই জগন্নাথ দেবের মন্দির উদ্বোধন করা হবে। কিন্তু লোকসভা নির্বাচন এসে পড়ায় সেই স্থগিত করে দেওয়া হয়। তবে আগামী দিনে কবে দীঘার এই মন্দির উদ্বোধন করা হবে তা না জানালেও নির্বাচনী প্রচার মঞ্চ থেকেই মুখ্যমন্ত্রী আশ্বাস দিয়েছিলেন নির্বাচন মিটলেই উদ্বোধন করা হবে এই মন্দির। ইতিমধ্যেই রাজ্যে শেষ হয়েছে ষষ্ঠ দফার ভোট গ্রহণ পর্ব। শেষ পর্বের ভোট গ্রহণ মিটতেই আগামী ৪ জুন নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণা করা হবে। আর তার পরেই রয়েছে  রথযাত্রা।  বছর ৭ জুলাই পড়ছে রথযাত্রা (Rathyatra)। তাই মুখমন্ত্রীর বক্তব্যের সাথে মিলে যাওয়ায় অনেকেই মনে করছেন রথযাত্রাকে সামনে রেখেই দীঘার এই জগন্নাথ দেবের মন্দির উদ্বোধন করা হবে। যদিও এই বিষয়ে এখনও পর্যন্ত সরকারের তরফে কোনো নিশ্চয়তা পাওয়া যায়নি। আরও পড়ুন: এক লাথিতেই ব্যথা সারছে কোমরের! তারাপীঠে এই সাধুর দরবারে ভিড় আম জনতার প্রতিবছর রথযাত্রা উপলক্ষ্যে সৈকত শহর দীঘাতেও মহা সমারোহে রথ টানা হয়। তবে এবারের রথ হতে চলেছে একটু আলাদা। তাই ইতিমধ্যেই নতুন ভাবে আসন্ন রথযাত্রা উৎসব উপলক্ষ্যে দিঘার জগন্নাথ মন্দির প্রাঙ্গণে তৈরি করা হচ্ছে এক বিশালাকৃতির  রথ। তাই এই প্রস্তুতি দেখে আরও জোরালো হচ্ছে রথযাত্রার আগেই দিঘার জগন্নাথ মন্দির উদ্বোধনের জল্পনা। তবে এই মন্দির উদ্বোধন প্রসঙ্গে স্থানীয় বিধায়ক তথা রাজ্যে কারা মন্ত্রী অখিল গিরির সংবাদমাধ্যমে জানিয়েছেন, ‘মন্দির নির্মাণের কাজ প্রায় শেষের পথে। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যেদিন ঠিক করবেন সেদিন মন্দিরের উদ্বোধন হবে।’ প্রসঙ্গত নিউ দিঘা স্টেশন সংলগ্ন নন্দকুমার ১১৬বি জাতীয় সড়কের পাশে এই মন্দির নির্মাণের জন্য মোট ২০০ কোটি টাকা বরাদ্দ করেছে রাজ্য সরকার। জানা যাচ্ছে শুধু পুরীর জগন্নাথ মন্দিরের আদলেই নয় উচ্চতাতেও একই হবে দিঘার জগন্নাথ মন্দিরটি। একই থাকবে পারিপার্শ্বিক নকশাও।

বাংলা হান্ট 28 May 2024 5:44 pm

বিরিয়ানি খেয়েই মৃত্যু মহিলার! হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ১৭৮ জন, মর্মান্তিক ঘটনায় আতঙ্কে গোটা রাজ্য

বাংলা হান্ট ডেস্ক: বিরিয়ানি লাভার (Biriyani Lover) ভোজন রসিকদের কাছে বিরিয়ানি (Biriyani) মানেই ইমোশন! বিরিয়ানি প্রেমীদের কাছে  স্বাদে-গন্ধে এই সুস্বাদু খাবারের জুড়ি মেলা ভার। তাই বিরিয়ানির গন্ধ নাকে এলেই খিদে পেয়ে যায় বিরিয়ানি প্রেমীদের। অথচ এহেন বিরিয়ানি খেয়েই যে কারও মৃত্যু (Death) হতে পারে তা বোধ হয় দুঃস্বপ্নেও কল্পনা করতে পারেনি কেউ। কিন্তু সম্প্রতি এই বিরিয়ানি খেয়েই মৃত্যু  হল কেরালার (Kerala) এক মহিলার। একইসাথে বমি এবং ডায়রিয়ার মত উপসর্গ নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি আরো ১৭৮ জন । শনিবার এই মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে কেরলের ত্রিশূর জেলার পেরিনজানাম এলাকার একটি রেস্তরাঁয়। জানা গেছে সেখানে বিগত কয়েকদিন ধরেই  ঢালাও ‘বিরিয়ানি’ বিক্রি করা হচ্ছিল। তাই ভিড়-ও হচ্ছিল ভালোই। কিন্তু সপ্তাহের শেষে শনিবার একটু বেশিই ভিড় জমিয়েছিলেন গ্রাহকরা। তাই চাহিদা বেশি  থাকার কারণে নিমেষের মধ্যে ফাঁকা হয়ে যায় বিরিয়ানির হাড়ি। কিন্তু আশ্চর্যের বিষয় ওই বিরিয়ানি খাওয়ার পরেই একে একে অসুস্থ হয়ে হয়ে পড়েন দোকানের সমস্ত গ্রাহক। ওই বিরিয়ানি খাওয়ার এদিন প্রথমে পেটে অসম্ভব যন্ত্রণা আর বমির উপসর্গ নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন কুটিলাক্কাদাও এলাকার বাসিন্দা উজ়াইবা (৫৬)। হাসপাতালে চিকিৎসা চলাকালীনই মৃত্যু হয় ওই মহিলার। ওই হাসপাতালেই  অসুস্থ অবস্থায় ভর্তি রয়েছেন ওই মৃত মহিলার আরও  দুই আত্মীয়। পুলিশ সূত্রে খবর ওই বিরিয়ানি খাওয়ার পরই সব গ্রাহকরা বমি করতে শুরু করেন। কেউ কেউ আবার অসম্ভব পেটের যন্ত্রণায় কাতরাতে কাতরাতে প্রায় অজ্ঞান হয়ে যান। এমন ভয়ঙ্কর পরিস্থিতিতে তড়িঘড়ি সমস্ত  গ্রাহকদের উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। বিরিয়ানি খেয়ে একসাথে মোট ১৭৮ জন গ্রাহক অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হওয়ায় ব্যাপক আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন এলাকার মানুষজন। ওই রেস্তোরাঁর মালিকের বিরুদ্ধে প্রচন্ড ক্ষোভে ফেটে পড়েছেন স্থানীয় বাসিন্দারা। আরও পড়ুন: এক লাথিতেই ব্যথা সারছে কোমরের! তারাপীঠে এই সাধুর দরবারে ভিড় আম জনতার প্রাথমিকভাবে পুলিশের অনুমান,খাবারে  বিষক্রিয়ার কারণেই এই ঘটনা ঘটেছে। কিন্তু প্রশ্ন উঠছে বিষক্রিয়া হল কী করে? তবে এখানে বলে রাখি যে খাবারটিকে বিরিয়ানি বলা হচ্ছে তা কিন্তু আদতে ইয়েমেনের একটি খাবারের রেসিপি থেকে অনুপ্রাণিত হয়ে তৈরি। ওই রেস্তরাঁ যার নাম দিয়েছে ‘কুজিমান্থি’। তাই এই খাবারটি দেখতে পুরোপুরি বিরিয়ানির মতো হলেও তার স্বাদ, গন্ধ কিন্তু পুরোপুরি আলাদা। আর এই খাবার সাথে যেহেতু মেয়োনিস দেওয়া হয় তাই প্রাথমিকভাবে পুলিশের অনুমান, ওই মেয়োনিস থেকেই বিষক্রিয়া হয়েছে। তবে জানা যাচ্ছে, ইতিমধ্যেই ওই রেস্তরাঁর মালিককে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে সেইসাথে ওই রেস্তরাঁ-ও  বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। তাছাড়া সেদিনের ওই বিরিয়ানির স্যাম্পেল নিয়ে ইতিমধ্যেই পরীক্ষাও করা হয়েছে। পাশাপাশি সেখানে ব্যবহৃত বাসনের পরীক্ষাও করা হবে বলে জানা গিয়েছে।

বাংলা হান্ট 28 May 2024 5:26 pm

খেল দেখাচ্ছে নিম্নচাপ! ঢাকা থেকে মাত্র ১০০ কিমি দূরেই অবস্থান! প্রবল বর্ষণের পূর্বাভাস উত্তরবঙ্গে

বাংলাহান্ট ডেস্ক : সাইক্লোন রেমেল শক্তিক্ষয় করে পরিণত হয়েছে গভীর নিম্নচাপে। সেই নিম্নচাপটি অগ্রসর হচ্ছে বাংলাদেশের উপর দিয়ে উত্তর ও উত্তর পূর্ব দিকে। আবহাওয়া অফিস বলছে শেষ ছয় ঘন্টায় এটি অগ্রসর হচ্ছে ঘন্টায় 12 কিলোমিটার গতিবেগে। বর্তমানে এই নিম্নচাপটি অবস্থান করছে বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকা থেকে 100 কিলোমিটার দূরে। ওয়েদার (Weather) রিপোর্ট অনুযায়ী, এই নিম্নচাপের ফলে ভারী বৃষ্টিপাত হতে পারে উত্তরবঙ্গের জেলাগুলিতে।আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর (Alipore Meteorological Department) উত্তরের একাধিক জেলায় বৃষ্টির জন্য জারি করেছে কমলা সতর্কতা। দক্ষিণবঙ্গে দুর্যোগের মেঘ কেটে গেলেও, আজ সকাল থেকে উত্তরবঙ্গের বিভিন্ন জায়গায় মেঘের ঘনঘটা। আরোও পড়ুন :  হু হু করে বাড়ছে মুসলিম জনসংখ্যা! প্রকাশ্যে এই ৫ দেশের চমকে দেওয়া রিপোর্ট, কোন পজিশনে ভারত ? উত্তরবঙ্গের (North Bengal) একাধিক জেলায় মঙ্গলবার ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। হাওয়া অফিস দার্জিলিং ও কালিম্পং জেলায় বৃষ্টির লাল সতর্কতা জারি করেছে। কমলা সতর্কতা জারি করা হয়েছে উত্তরবঙ্গের জলপাইগুড়ি, আলিপুরদুয়ার, কোচবিহার, দার্জিলিং ও কালিম্পংয়ে। উত্তরবঙ্গের বিভিন্ন জেলায় মঙ্গলবার বৃষ্টির পাশাপাশি বইতে পারে ঝোড়ো হাওয়া।  ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে দার্জিলিং, কালিম্পংয়ে। হাওয়া অফিস জানাচ্ছে, এরপর  উত্তরবঙ্গের জলপাইগুড়ি, আলিপুরদুয়ার, কোচবিহার, দার্জিলিং ও কালিম্পং-এ বৃষ্টি চলবে আগামী 29 তারিখ থেকে 2 জুন পর্যন্ত। আবহাওয়া দপ্তর বলছে, ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে কোচবিহার, জলপাইগুড়ি এবং আলিপুরদুয়ার জেলার কিছু অংশে। নিম্নচাপের জেরে উত্তরবঙ্গ জুড়ে আগামী ২ তারিখ পর্যন্ত চলবে বৃষ্টি।

বাংলা হান্ট 28 May 2024 5:13 pm

হু হু করে বাড়ছে মুসলিম জনসংখ্যা! প্রকাশ্যে এই ৫ দেশের চমকে দেওয়া রিপোর্ট, কোন পজিশনে ভারত ?

বাংলাহান্ট ডেস্ক : গোটা বিশ্বে দ্রুত বৃদ্ধি পাচ্ছে ইসলাম ধর্মাম্বলীর সংখ্যা। পিউ রিসার্চ সেন্টারের একটি রিপোর্ট বলছে, এইভাবে যদি মুসলিম (Muslim) জনসংখ্যা বৃদ্ধি পেতে থাকে তাহলে 2070 সালের মধ্যে তা ছাপিয়ে যাবে খ্রিস্টান জনসংখ্যাকে। পিউ রিসার্চ সেন্টার জানাচ্ছে, পৃথিবীর মোট জনসংখ্যার প্রায় 24 শতাংশ মুসলিম। বিশ্বে মোট মুসলিম ধর্মাম্বলীর সংখ্যা 1.8 বিলিয়ন (প্রায় 1800000000 বিলিয়ন)। অপরদিকে, খ্রিস্টান ধর্মাম্বলীর সংখ্যা 2.4 বিলিয়ন (প্রায় 2400000000 বিলিয়ন)। অনুমান করা হচ্ছে, ২০৫০ সাল নাগাদ মুসলিমদের সংখ্যা পৌঁছে যাবে খ্রিস্টানদের কাছাকাছি। এই সময়টাতে 73 শতাংশ হারে বুদ্ধি পাবে মুসলিমদের জনসংখ্যা, যেখানে খ্রিস্টানদের জনসংখ্যা বৃদ্ধি পাবে 35 শতাংশ হারে। আরোও পড়ুন :  GPay, Phonepe-র দিন শেষ! এবার খেল দেখাবে নতুন UPI পরিষেবা, শুরু করছে আদানি গোষ্ঠী এই রিসার্চ সেন্টার বলছে, এশিয়া প্যাসিফিক অঞ্চলে সব থেকে বেশি মুসলিম মানুষ থাকেন। এই অঞ্চলে মোট জনসংখ্যার 61.7 শতাংশ মুসলিম। পাশাপাশি 19.8% মুসলিম জনসংখ্যা মধ্যপ্রাচ্য এবং উত্তর আফ্রিকায়, 15.5% সাব-সাহারান আফ্রিকায়, 2.7% ইউরোপে, 0.2% উত্তর আমেরিকায় এবং 0.1% লাতিন আমেরিকায় বসবাস করছে। আরোও পড়ুন :  কারেন্ট নেই! চালানো গেল না নেবুলাইজার! তীব্র শ্বাসকষ্টে দক্ষিণ ২৪ পরগনার হাসপাতালে মৃত্যু শিশুর বিশ্বের সবথেকে বেশি মুসলিম জনসংখ্যার মানুষ বাস করেন ইন্দোনেশিয়ায়। মুসলিম জনসংখ্যার ক্ষেত্রে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে পাকিস্তান ও তৃতীয় স্থানে রয়েছে ভারত (India)। পিউ রিসার্চ সেন্টার বলছে, ইন্দোনেশিয়াকে ছাপিয়ে পাকিস্তান 2030 সালের মধ্যে হয়ে উঠবে বিশ্বের সবথেকে বেশি মুসলিম জনসংখ্যার দেশ। 2050 সাল নাগাদ মুসলিম জনসংখ্যার ক্ষেত্রে পাকিস্তানকে ছাপিয়ে ভারত হয়ে উঠবে বিশ্বের সবথেকে বেশি মুসলিম বসবাসকারী দেশ। 2050 সালের মধ্যে নাইজারে মুসলিম জনসংখ্যা বৃদ্ধি পাবে 148 শতাংশ। বর্তমানে এই দেশে বাস করে 21 মিলিয়ন মুসলিম। 2050 সালের মধ্যে এদেশে মুসলিম জনসংখ্যা হবে 54 মিলিয়ন।   অন্যদিকে, 2050 সালের মধ্যে ইরাকে মুসলিম জনসংখ্যা বৃদ্ধি পাবে 94%। 2050 সাল নাগাদ ইরাকে বসবাস করবেন 80.11 মিলিয়ন মুসলিম। ভারতের ব্যাপারে বলতে গিয়ে পিউ রিসার্চ সেন্টার বলছে, 2050 সালের মধ্যে 40 শতাংশ মুসলিম জনসংখ্যা বৃদ্ধি পাবে ভারতে। এই সময়টাতে ভারতের মোট জনসংখ্যার 18.4% হবে মুসলিম।

বাংলা হান্ট 28 May 2024 4:53 pm

T20 বিশ্বকাপে ভারতের গ্রুপে কার শক্তি কতটা? পাকিস্তানের পাশাপাশি চিন্তা বাড়াতে পারে এই দল

বাংলা হান্ট ডেস্ক: শুরু হতে চলেছে চলতি বছরে ক্রিকেটের অন্যতম মেগা টুর্নামেন্ট T20 বিশ্বকাপ (ICC Men’s T20 World Cup)। যেটি অনুষ্ঠিত হবে আমেরিকা (America) এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজে (West Indies)। এই প্রসঙ্গে জানিয়ে রাখি যে, T20 বিশ্বকাপে এবারে অংশগ্রহণ করছে ২০ টি দল। এমতাবস্থায়, টুর্নামেন্টে ২০ টি দলকে চারটি গ্রুপে ভাগ করা হয়েছে। যার মধ্যে ভারত, পাকিস্তান, কানাডা, আয়ারল্যান্ড ও আমেরিকাকে রাখা হয়েছে গ্রুপ “A”-তে। এই গ্রুপে ভারত ও পাকিস্তান পরবর্তী রাউন্ডে যাওয়ার ক্ষেত্রে অন্যতম দাবিদার। উল্লেখ্য যে, ভারত ২০০৭ সালে T-20 বিশ্বকাপে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল। অপরদিকে, পাকিস্তান ২০০৯ সালে T-20 বিশ্বকাপ জয় করে। এমতাবস্থায় চলুন জেনে নিই গ্রুপ “A”-তে থাকা ৫ টি দলে কারা এবারের টুর্নামেন্টে চমক দেখাতে পারেন! ভারত: মহেন্দ্র সিং ধোনির নেতৃত্বে ভারত চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী পাকিস্তানকে হারিয়ে প্রথমবারের মতো T20 বিশ্বকাপে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল ২০০৭ সালে। যেখানে ২০১৪ সালে, ভারতীয় দল শ্রীলঙ্কার কাছে হেরে রানার্স আপ হয়েছিল। এবার ভারতীয় দলের অধিনায়কত্ব করছেন রোহিত শর্মা এবং অনেক সিনিয়র খেলোয়াড়কে দলে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। এই প্রতিযোগিতায় ভারতীয় দলের ক্ষেত্রে সবার চোখ থাকবে রোহিত শর্মা, বিরাট কোহলি, সূর্যকুমার যাদব এবং জাসপ্রীত বুমরাহর দিকে। পাকিস্তান: ইউনিস খানের নেতৃত্বে ২০০৯ সালে T20 বিশ্বকাপ জিতে যায় পাকিস্তান। এদিকে, ২০২২ সালে পাকিস্তান ইংল্যান্ডের কাছে হেরে রানার্স আপ হয়। এবার বাবর আজমের নেতৃত্বে ২০২৪ সালের T20 বিশ্বকাপে অংশ নিচ্ছে পাকিস্তান। এমতাবস্থায়, পাকিস্তান দলের ক্ষেত্রে সবার চোখ থাকবে বাবর, রিজওয়ান, শাহীন ও আমিরের দিকে। আয়ারল্যান্ড: আইরিশ দল T20 বিশ্বকাপে ৭ বার অংশগ্রহণ করেছে এবং ২০০৯ সালে সুপার এইটেও পৌঁছেছে। T20 বিশ্বকাপে ২৫ টি ম্যাচের মধ্যে ৭ টি জিতেছে আয়ারল্যান্ড। এবার দলটির অধিনায়কত্ব করছেন পল স্টার্লিং। আরও পড়ুন:  অন্য দেশ বানাতে চাইছে এয়ার বেস! ভেঙে খান খান হবে বাংলাদেশ, আশঙ্কা হাসিনার কানাডা: কানাডার দল প্রথমবারের মতো এই বড় প্রতিযোগিতায় অংশ নিচ্ছে। এই ICC টুর্নামেন্টে কানাডিয়ান দলকে নেতৃত্ব দেবেন অলরাউন্ডার সাদ বিন জাফর। ব্যাটার অ্যারন জনসন এবং ফাস্ট বোলার কলিম সানার দিকে সবার নজর থাকবে। এদিকে, স্পিনার এবং অধিনায়ক সাদ দলের জন্য অভিজ্ঞতার ভাণ্ডার নিয়ে আসবেন। আরও পড়ুন:  মোদী থেকে অমিত শাহ, সঙ্গে আছেন ধোনি! ইন্ডিয়া টিমের হেড কোচ হওয়ার জন্য করলেন আবেদন আমেরিকা: আমেরিকা T20 বিশ্বকাপ ২০২৪-এর আয়োজক এবং প্রথমবারের মতো আমেরিকান দল T20-তে অংশ নিচ্ছে। দলের দায়িত্ব নেবেন মনঙ্ক প্যাটেল। সম্প্রতি তাঁর অধিনায়কত্বে ৩ ম্যাচের T20 সিরিজে হেরেছে বাংলাদেশ।

বাংলা হান্ট 28 May 2024 4:41 pm

৪১ ডিগ্রি গরমে স্কুলের দৌড় প্রশিক্ষণ! হার্ট অ্যাটাকে মৃত্যু ১২ বছরের পড়ুয়ার

১২ বছরের এক পড়ুয়াকে প্রখর রোদের মধ্যে জোর করে দৌড় প্রশিক্ষণ করানোর অভিযোগ উঠল স্কুলের বিরুদ্ধে। ৪১ ডিগ্রি তাপমাত্রার মধ্যে দৌড় প্রশিক্ষণ করতে গিয়ে মৃত্যু হয়েছে কিশোরের। ঘটনার জেরে হইচই পড়ে গিয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়াতে। স্কুলের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিয়েছে পরিবার।

এ ই সময় 28 May 2024 4:36 pm

অন্য দেশ বানাতে চাইছে এয়ার বেস! ভেঙে খান খান হবে বাংলাদেশ, আশঙ্কা হাসিনার

বাংলা হান্ট ডেস্ক: এবার একটি অত্যন্ত চাঞ্চল্যকর দাবি সামনে আনলেন বাংলাদেশের (Bangladesh) প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা (Sheikh Hasina)। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য যে, চলতি বছরের শুরুতেই পঞ্চমবারের মতো বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন তিনি। নির্বাচনে তাঁর দল আওয়ামি লিগ একচেটিয়াভাবে জয় হাসিল করে। যদিও, বাংলাদেশের প্রধান বিরোধীদল অর্থাৎ বিএনপি এই নির্বাচন বয়কট করেছিল। তবে, নির্বাচনে জেতার প্রায় ৫ মাস পরে এবার একটি চাঞ্চল্যকর দাবি করলেন শেখ হাসিনা। শুধু তাই নয়, ইতিমধ্যেই তাঁর এই দাবির পরিপ্রেক্ষিতে রীতিমতো তোলপাড় শুরু হয়েছে সমগ্র বাংলাদেশ জুড়ে। মূলত, বাংলাদেশি সংবাদপত্র ডেইলি স্টারের রিপোর্ট অনুযায়ী, বাংলাদেশ ক্ষমতাসীন ১৪ দলের জোটের বৈঠক শেষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জানিয়েছেন, একটি দেশ তাঁকে “অফার” দিয়েছিল। যেখানে বলা হয়, বাংলাদেশে যদি ওই দেশটিকে তাদের বিমান ঘাঁটি করতে দেওয়া হয় সেক্ষেত্রে খুব সহজেই হাসিনার পুনর্নিবাচন হয়ে যাবে। তবে, হাসিনা ওই দেশের সরাসরি নাম উল্লেখ না করলেও তিনি এটা জানিয়েছেন যে, এই দাবি তাঁকে করেছিল এক “শ্বেতাঙ্গ”। পাশাপাশি, তিনি অভিযোগ তোলেন যে বাংলাদেশে নির্বাচন বানচাল করার লক্ষ্যে ষড়যন্ত্র পর্যন্ত করেছিল বিএনপি। শেখ হাসিনা জানান, “অনেকেরই নজর বঙ্গোপসাগর এবং ভারত মহাসাগরের ওপর রয়েছে। এই অঞ্চল দিয়ে বহুকাল আগে থেকেই বাণিজ্য হয়ে আসছে। ওই এলাকা নিয়ে কোনও বিতর্ক বা দ্বন্দ্ব নেই। আর আমি সেটা হতেও দেব না। তবে, তাদের চোখে এটা আমার আরও একটি বড় অপরাধ হয়ে উঠেছে।” আরও পড়ুন:  মোদী থেকে অমিত শাহ, সঙ্গে আছেন ধোনি! ইন্ডিয়া টিমের হেড কোচ হওয়ার জন্য করলেন আবেদন এর পাশাপাশি, বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এটাও দাবি করেন যে, “আমি এখন বাইরে ও ঘরে লড়াই করে চলেছি।” তাঁর মতে, বাংলাদেশের চট্টগ্রাম এবং মায়ানমারের অংশ নিয়ে পূর্ব তিমোরের মতো একটি খ্রিষ্ঠান দেশ গড়ে তোলার ষড়যন্ত্র চলছে। এছাড়াও, বঙ্গোপসাগরে একটি বেস তৈরির পরিকল্পনা করা হচ্ছে। আরও পড়ুন:  হয়ে যান সতর্ক! এবার ICICI সহ এই ব্যাঙ্কের ওপর ১.৯১ কোটির জরিমানা RBI-র, আপনার অ্যাকাউন্ট নেই তো? প্রসঙ্গত উল্লেখ্য যে, গত সোমবার হাসিনা আওয়ামি লিগের ১৪ জোটসঙ্গীর নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করেন। সেখানে তিনি স্পষ্ট জানিয়েছেন যে, তাঁর সরকার ফেলে দেওয়ার ক্ষেত্রেও ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে। শুধু তাই নয়, তাঁর বাবা শেখ মুজিবুর রহমানের মতো তাঁকেও খুন করা হতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন তিনি। যদিও, শেখ হাসিনা কোনো ষড়যন্ত্রের কাছেই মাথা নত করবেন না বলেও জানিয়েছেন।

বাংলা হান্ট 28 May 2024 3:46 pm

GPay, Phonepe-র দিন শেষ! এবার খেল দেখাবে নতুন UPI পরিষেবা, শুরু করছে আদানি গোষ্ঠী

বাংলাহান্ট ডেস্ক: দেশের ইউপিআই (Unified Payment Interface) ব্যবহারকারীদের জন্য বড় খবর। একাধিক সূত্র দাবি করছে, আদানি গোষ্ঠী এবার ইউনিফাইড পেমেন্ট ইন্টারফেস (ইউপিআই) এর লাইসেন্সের জন্য আবেদন করতে চলেছে। এছাড়াও জানা যাচ্ছে, আদানি গোষ্ঠী কো ব্র্যান্ডেড ক্রেডিট কার্ডের জন্য কথাবার্তা শুরু করেছে একাধিক ব্যাংকের সাথে। যদিও আদানি গোষ্ঠীর (Adani Group) পক্ষ থেকে এই বিষয়ে কিছুই জানানো হয়নি। দেশের বিশেষজ্ঞদের দাবি, ইউপিআই ব্যবসায় যদি আদানি গোষ্ঠী প্রবেশ করে, তাহলে কড়া প্রতিদ্বন্দ্বিতার মুখে পড়তে চলেছে গুগল পে, ফোন পের মতো সংস্থাগুলি। ফাইনান্সিয়াল টাইমস দাবি করেছে, আদানি গোষ্ঠী ওপেন নেটওয়ার্ক ফর ডিজিটাল কমার্স অর্থাৎ ONDC- এর মাধ্যমে অনলাইন শপিং প্ল্যাটফর্ম চালু করার ব্যাপারে পর্যালোচনা করছে।  আরোও পড়ুন :  বেকসুর খালাস রাম রহিম! ম্যানেজার খুনের মামলায় যাবজ্জীবনের স্বস্তি মুকুব করল হাইকোর্ট ওএনডিসি সরকার সমর্থিত একটি ই-কমার্স প্ল্যাটফর্ম। এখান থেকে কেনাকাটার জন্য প্রয়োজন পেমেন্ট অ্যাপ। যদি আদানি গোষ্ঠীর পরিকল্পনা বাস্তবায়িত হয়, তাহলে আদানি ওয়ান অ্যাপের মাধ্যমে গ্রাহকরা এই পরিষেবা পাবেন। আদানি গোষ্ঠী ২০২২ সালের শেষের দিকে লঞ্চ করে এই অ্যাপ। ফ্লাইট ও হোটেল পরিষেবা বুক করা যায় এই অ্যাপের মাধ্যমে। আরোও পড়ুন :  কারেন্ট নেই! চালানো গেল না নেবুলাইজার! তীব্র শ্বাসকষ্টে দক্ষিণ ২৪ পরগনার হাসপাতালে মৃত্যু শিশুর অনেকেই বলছেন ইউপিআই সেক্টরে আদানি গোষ্ঠী প্রবেশ করলেও ব্যবসা মোটেই সহজ হবে না। ইতিমধ্যেই ইউপিআই সেক্টরে কোটি কোটি গ্রাহক সংযুক্ত করে ফেলেছে গুগল পে, ফোন পের মতো সংস্থাগুলি। পাশাপাশি, ওএনডিসির মাধ্যমে গ্রসারি ও ফ্যাশন সেক্টরে অনলাইন পরিষেবা দিয়ে থাকে পেটিএম ও টাটার মতো একাধিক সংস্থা। এছাড়াও আদানি গোষ্ঠী বিভিন্ন ব্যাংকের সাথে আলোচনা করছে কো ব্র্যান্ডেড ক্রেডিট কার্ড লঞ্চ করার ব্যাপারে। এই ধরনের ক্রেডিট কার্ড গ্রাহকদের স্পেশাল কিছু অফার প্রদান করে থাকে। রিওয়ার্ডস পয়েন্টস, ক্যাশব্যাকের মতো বিভিন্ন লোভনীয় অফার থাকে এই ধরনের ক্রেডিট কার্ডে।

বাংলা হান্ট 28 May 2024 3:40 pm

পাঁচ-দশ নয়, ২৬১ কোটির মালিক! কীভাবে এত সম্পত্তি করলেন শাহজাহান? বিস্ফোরক তথ্য ফাঁস ED-র!

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ সন্দেশখালির ‘বেতাজ বাদশা’ নামে অনেকে চেনেন তাঁকে। এবার সেই বাদশার সম্পত্তির পরিমাণ সামনে আনল ইডি (Enforcement Directorate)। সোমবার আদালতে সন্দেশখালির শেখ শাহজাহানের (Sheikh Shahjahan) বিরুদ্ধে ১১৩ পাতার একটি চার্জশিট জমা করেছে কেন্দ্রীয় এজেন্সি। তদন্তের ৫৬ দিনের মাথায় এই প্রথম শাহজাহানের সম্পত্তি সংক্রান্ত চার্জশিট দিল তদন্তকারী সংস্থা। সেখানে সন্দেশখালির ‘বাঘে’র সম্পত্তির পরিমাণ উল্লেখ করেছে তারা। ED সূত্রে জানা যাচ্ছে, এখনও অবধি শাহজাহানের ২৬১ কোটি টাকার সম্পত্তির খোঁজ মিলেছে। কীভাবে এত টাকার সম্পত্তির মালিক হয়েছিলেন তিনি? সেই বিষয়েও চার্জশিটে উল্লেখ করা হয়েছে বলে খবর। কেন্দ্রীয় এজেন্সির একটি সূত্র মারফৎ জানা যাচ্ছে, প্রধানত পাঁচটি উপায়ে ‘কোটিপতি’ হয়েছিলেন তিনি। এর মধ্যে প্রথমেই রয়েছে চিংড়ির ব্যবসা। এই ব্যবসা করেই ফুলেফেঁপে উঠেছিলেন শাহজাহান। মূলত চিংড়ি আমদানি-রফতানির এজেন্ট হিসেবে কাজ করতেন তিনি। এর মাধ্যমেই প্রায় ২০০ কোটি টাকার সম্পত্তি করেছিলেন সন্দেশখালির (Sandeshkhali) ‘বাঘ’। এছাড়া ED সূত্রে জানা যাচ্ছে, ইট ভাটা থেকেও মোটা টাকা আয় ছিল শাহজাহানের। এর মাঝেই প্রায় ২০ কোটির সম্পত্তি করেছিলেন তিনি। আরও পড়ুনঃ  ভোটের মধ্যে বাংলায় ফের ED অভিযান! এবার স্ক্যানারে কে? ফাঁস নাম-পরিচয় শাহজাহানের বিরুদ্ধে গায়ের জোরে জমি, ভেড়ি দখলের অভিযোগ আগেই উঠেছিল। তবে শুধু সেখানেই থেমে থাকেননি তিনি। বলপূর্বক ইটভাটার মালিকানাও ছিনিয়ে নিয়েছিলেন। যে ব্যক্তির থেকে মালিকানা ছিনিয়েছিলেন, বর্তমানে তিনিই সেই ভাটায় ম্যানেজার হিসেবে কাজ করছেন বলে ED সূত্রে খবর। সরকারি টেন্ডার এবং তোলাবাজি থেকেও কয়েক কোটি টাকার সম্পত্তি করেছিলেন সন্দেশখালির এই বহিষ্কৃত তৃণমূল নেতা। বন্দুক দেখিয়ে, খুনের হুমকি দিয়ে প্রচুর টাকা আদায় করেছেন শাহজাহান। সেই সঙ্গেই সরকারি টেন্ডার থেকেও প্রচুর টাকা কামিয়েছেন! এই টেন্ডারগুলি কিছুতেই হাতের বাইরে যেতে দিতেন না তিনি। ভাই শেখ আলমগিরের নাম টেন্ডার নিতেন বলে দাবি করেছে ED। এর মাঝেই প্রায় ২০ কোটি টাকার সম্পত্তি করেছিলেন সন্দেশখালির ‘বাঘ’। শাহজাহানের সম্পত্তির পঞ্চম এবং অন্যতম একটি উৎস হল মাছের আড়ত। ED সূত্রে খবর, এর মাধ্যমে প্রায় ৮ কোটি টাকার সম্পত্তি করেছিলেন তিনি। তদন্তকারী সংস্থার অনুমান, জমি দখল করে যে বিপুল সম্পত্তি তৈরি করেছিলেন শাহজাহান, নানান ব্যবসায় তা লাগিয়ে ‘সাদা’ করতেন। গতকাল জমা দেওয়া ED-র চার্জশিটে দাবি করা হয়েছে, প্রায় ১১৮ বিঘা জমি দখল করেছেন সন্দেশখালির এই বহিষ্কৃত নেতা। তবে সেই পরিমাণ আরও বাড়তে পারে। আদালতে জমা দেওয়া চার্জশিটে অভিযুক্ত হিসেবে আলমগির, শিবপ্রসাদ হাজরা, দিদারবক্স মোল্লার নাম রয়েছে। সেই সঙ্গেই জমি দখল মামলায় শাহজাহানের বিরুদ্ধে জমা দেওয়া ED-র চার্জশিটে তাঁর সঙ্গে জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকের যোগের কথা উল্লেখ রয়েছে বলে খবর।

বাংলা হান্ট 28 May 2024 3:24 pm

কারেন্ট নেই! চালানো গেল না নেবুলাইজার! তীব্র শ্বাসকষ্টে দক্ষিণ ২৪ পরগনার হাসপাতালে মৃত্যু শিশুর

বাংলাহান্ট ডেস্ক : রেমাল ঘূর্ণিঝড়ের তাণ্ডবের মধ্যেই ১ মাসের শিশু কন্যার অকাল মৃত্যু। দক্ষিণ ২৪ পরগনার (South 24 Pargana) সাগর ব্লক হাসপাতালের বিরুদ্ধে উঠেছে চিকিৎসায় গাফিলতির অভিযোগ। জানা গেছে, রেমাল যখন তান্ডব চালাচ্ছিল, তখন ওই শিশু কন্যার শ্বাসকষ্ট দেখা দেয়। শিশুটির পরিবারের লোকজন সোমবার তাকে নিয়ে যান হাসপাতালে। মৃত শিশু কন্যাটি খানসাহেব আবাদ এলাকার বাসিন্দা ছিল। ১ মাস বয়সী তুলিকা মহতাকে সোমবার নিয়ে যাওয়া হয় সাগর ব্লক হাসপাতালে। সোমবার দুর্যোগের মধ্যেই শ্বাসকষ্ট শুরু হওয়ায় অভিভাবকরা তাকে নিয়ে যায় সাগর গ্রামীণ হাসপাতালে। মৃত শিশুর পরিবারের অভিযোগ, সেই সময় হাসপাতালে উপস্থিত ছিলেন না কোনো চিকিৎসক। পরে চিকিৎসক এলেও বিদ্যুৎ না থাকায় শিশুটিকে দেওয়া যায়নি নেবুলাইজার। আরোও পড়ুন :  লোনে বাইক কেনার জন্য দুর্দান্ত অফার দিচ্ছে SBI! কত টাকা করে দিতে হবে মাসিক কিস্তি? তার জেরে ওই শিশুর অবস্থার অবনতি হয়। তারপরই মৃত্যু হয় শিশুটির। মৃত শিশুটির পরিবার অভিযোগ করেছে, প্রশাসন অনেক আগে থেকেই ঘূর্ণিঝড় নিয়ে সতর্ক করেছিল। সেই বিষয় মাথায় রেখে আগে থেকে হাসপাতালে জেনারেটরের ব্যবস্থা করে রাখা উচিত ছিল। শিশুটির পরিবার বলছে, জেনারেটরের ব্যবস্থা থাকলেও হাসপাতালে সেই সময় তা ব্যবহার করা হয়নি। মৃত তুলিকার পরিবারের অভিযোগ, শিশুটি মারা যাওয়ার পর জেনারেটর চালিয়ে অক্সিজেন দেওয়ার ব্যবস্থা করা হয় হাসপাতালে। স্থানীয় এলাকার বাসিন্দারা এর আগেও একাধিকবার অভিযোগ তুলেছিলেন সাগর গ্রামীণ হাসপাতালের পরিষেবা নিয়ে। ডায়মন্ডহারবার জেলা স্বাস্থ্য মুখ্য আধিকারিকের দাবি, ওই শিশুটিকে হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়েছিল মুমূর্ষ অবস্থায়। গোটা ঘটনার তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

বাংলা হান্ট 28 May 2024 2:59 pm

গুজরাট প্রশাসনের উপর আর ভরসা রাখা যাচ্ছে না: হাইকোর্ট

রাজকোটের গেমিং জোনে আগুন লাগার ঘটনায় এখনও পর্যন্ত ৩৩ জন মারা গিয়েছে। এবার এই ঘটনায় গুজরাট হাইকোর্টের কড়া ভর্ৎসনার মুখে পড়ল রাজকোট মিউনিসিপ্যাল কর্পোরেশন এবং গুজরাট সরকার। রাজ্যের আইনজীবী আদালতে জানিয়েছিলেন, রাজকোটের গেমিং জোনটি বানানোর সময় প্রয়োজনীয় কোনও অনুমতি নেওয়া হয়নি। পাশাপাশি বিল্ডিং প্ল্যানিংয়েরও কোনও অনুমোদন ছিল না। এতে বিচারপতিরা তীব্র অসন্তোষ প্রকাশ করেন।

এ ই সময় 28 May 2024 2:48 pm

ভোটের মধ্যে বাংলায় ফের ED অভিযান! এবার স্ক্যানারে কে? ফাঁস নাম-পরিচয়

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ চব্বিশের লোকসভা নির্বাচন একেবারে শেষ লগ্নে এসে গিয়েছে। আগামী ১ জুন রাজ্যে সপ্তম দফার ভোট। বাংলার ৯টি আসনে ভোট রয়েছে শনিবার। এর মাঝেই ফের শুরু ইডির (Enforcement Directorate) অ্যাকশন! এদিন রাজারহাটের ভাতেণ্ডা অঞ্চলের একটি অভিজাত আবাসনে হানা দেয় কেন্দ্রীয় এজেন্সি। এবার আতসকাঁচের তলায় কে? তা নিয়ে শুরু হয়েছে জোর চর্চা। মঙ্গলবার রাজারহাটের (Rajarhat) ওই আবাসনে হানা দেওয়ার পাশাপাশি নিউটাউনের আরও বেশ কিছু এলাকায় ED তল্লাশি চালাচ্ছে বলে খবর। ওই অভিজাত আবাসনের একজন ব্যবসায়ীর বাড়িতে এদিন কেন্দ্রীয় এজেন্সির আধিকারিকরা অভিযান (ED Raid) চালায় বলে জানা যাচ্ছে। অনুমান, ভিনরাজ্যের একটি ব্যাঙ্ক প্রতারণার মামলার তদন্ত সূত্রেই ওই আবাসনে হানা দিয়েছেন ED আধিকারিকরা। জানা যাচ্ছে, রাজারহাটের শান্তিনিকেতন আবাসনের ৩ নং টাওয়ারের ডি৪ রুমে ED-র তল্লাশি চলছে। ভিনরাজ্যের  একটি ব্যাঙ্ক প্রতারণার মামলা সূত্রে এক ব্যবসায়ীর বাড়িতে হানা দিয়েছে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা। তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে বলে খবর। ওই ব্যাঙ্ক প্রতারণার মামলার সঙ্গে কলকাতার এই পর্যটন ব্যবসায়ীর যোগ রয়েছে এই সন্দেহে তাঁর বাড়ি এবং সংস্থার আর একজন ডিরেক্টরেট বাড়িতে অভিযান চালায় ED। আরও পড়ুনঃ  BJP-র ‘বেস্ট পারফর্মিং স্টেট’ বাংলা! ‘তৃণমূল অস্তিত্বের লড়াই লড়ছে’, ভোট শেষের আগে বিস্ফোরক মোদী সূত্র মারফৎ জানা যাচ্ছে, ওই পর্যটন ব্যবসায়ীর নাম সন্তোষ বর্মা। একটি পর্যটন ও হোটেল চেন সংস্থার যুগ্ম ডিরেক্টর। দেশের একাধিক রাজ্যে তাঁদের হোটেল রয়েছে বলে খবর। পুরী, ভুবনেশ্বর, দার্জিলিংয়ে ওই সংস্থার হোটেল আছে। এদিন তাঁর বাড়িতেই ED হানা হয়েছে বলে জানা যাচ্ছে। উল্লেখ্য, বিগত কয়েক মাসে পশ্চিমবঙ্গের বুকে একাধিকবার অ্যাকশনে দেখা গিয়েছে ED-কে। ভোটের আবহে রাজ্যের মন্ত্রী চন্দ্রনাথ সিনহার বাড়িতে হানা দিয়েছিল কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা। তা নিয়ে বিস্তর চর্চা হয়েছিল সেই সময়। এবার শেষ দফার ভোটের আগে ফের একবার অ্যাকশনে দেখা গেল ED-কে। এবার এই অভিযান নিয়ে রাজ্যবাসীর মনে কৌতূহল তৈরির পাশাপাশি শুরু হয়েছে আলোচনা।

বাংলা হান্ট 28 May 2024 2:42 pm

৩০ মিনিটের মধ্যে বিস্ফোরণ! শৌচালয়ে চিরকুট পেয়েই তৎপর পাইলট, তারপর...

দিল্লির বিমানবন্দরে ফের বোমাতঙ্ক। এবার বোমা মেরে বিমান উড়িয়ে দেওয়ার হুমকির অভিযোগ। দিল্লির ইন্দিরা গান্ধী বিমানবন্দরের ঘটনা। জানা গিয়েছে, মঙ্গলবার ভোরে দিল্লি থেকে বারাণসী ওড়ার কথা ছিল ইন্ডিগোর 6E2211 বিমানটির । কিন্তু, উড়ানের ঠিক আগেই বিমানে বোমা রাখা আছে বলে একটি হুমকি বার্তা পাওয়া যায়। আতঙ্ক ছড়ায় যাত্রীদের মধ্যে। জেনে নিন বিস্তারিত।

এ ই সময় 28 May 2024 2:09 pm

BJP-র ‘বেস্ট পারফর্মিং স্টেট’ বাংলা! ‘তৃণমূল অস্তিত্বের লড়াই লড়ছে’, ভোট শেষের আগে বিস্ফোরক মোদী

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ পশ্চিমবঙ্গের ৪২টি আসনের মধ্যে ইতিমধ্যেই ৩৩টি আসনে নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে। বাকি রয়েছে আর মাত্র ৯টি আসন। আগামী ১ জুন সপ্তম দফার ভোটের আগে মঙ্গলবার কলকাতার বুকে বর্ণাঢ্য রোড শো করবেন প্রধানমন্ত্রী। বিকেলে বারুইপুরে সভাও করার কথা আছে নরেন্দ্র মোদীর (Narendra Modi)। তার আগে একটি সাক্ষাৎকারে বাংলায় BJP-র ‘রেজাল্ট’ নিয়ে বিরাট দাবি করলেন তিনি। উত্তর এবং পশ্চিম ভারতের বেশিরভাগ রাজ্যে গেরুয়া শিবিরের শক্তি এবং আসন সংখ্যা প্রায় সম্পৃক্ত অবস্থায় পৌঁছে গিয়েছে। সেই কারণে চব্বিশের লোকসভা নির্বাচনে (Lok Sabha Election 2024) পূর্বে এবং দক্ষিণে বাড়তি নজর দিয়েছিল BJP। ভোটের আবহে পিএমের একাধিকবার বঙ্গ সফরের দিকে নজর রাখলেই তা বেশ বোঝা যায়। এবার সপ্তম দফার নির্বাচনের আগে তাঁর দাবি, এবার ভোটে BJP-র ‘বেস্ট পারফর্মিং স্টেট’ হয়ে উঠে আসবে বাংলা (West Bengal)। সম্প্রতি জনপ্রিয় এক সংবাদসংস্থার মুখোমুখি হয়েছিলেন মোদী। সেখানে তিনি বলেন, ‘বাংলার নির্বাচনে তৃণমূল কংগ্রেস স্রেফ অস্তিত্বের লড়াই লড়ছে। আপনারা নিশ্চয়ই জানান, একসময় বাংলায় BJP-র ৩টে আসন ছিল। সেটা বেড়ে হয়েছে ৮০টি (আসলে ৭৭)। ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনে আমরা প্রচুর সমর্থন পেয়েছিলাম। এবার গোটা দেশের মধ্যে BJP-র বেস্ট পারফর্মিং স্টেট হবে বাংলা। এখানে সবচেয়ে বেশি সাফল্য পাবে BJP’। আরও পড়ুনঃ  ‘৮ সপ্তাহের মধ্যে…’! মধ্যশিক্ষা পর্ষদকে বিরাট নির্দেশ হাই কোর্টের, ঘুম উড়ল শিক্ষকদের এদিকে শেষ দফায় বাংলার যে ৯টি আসনে নির্বাচন হতে চলেছে, সেগুলি প্রত্যেকটি তৃণমূলের দখলে রয়েছে। ডায়মন্ড হারবার, দক্ষিণ কলকাতা, উত্তর কলকাতা থেকে শুরু করে বসিরহাট, যাদবপুর- প্রত্যেকটি আসনে গতবার জোড়াফুল ফুটেছিল। তবে এবার এই আসনগুলি ছিনিয়ে নিতে মরিয়া গেরুয়া শিবির। সেই কারণে শেষ দফার ভোটের আগে মরণ কামড় দিতে চাইছে BJP। জানা যাচ্ছে, বিশেষ করে উত্তর কলকাতা আসনে জিততে মরিয়া কেন্দ্রের শাসক দল। একই সাক্ষাৎকারে বাংলার সাম্প্রতিক পরিস্থিতি নিয়েও কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘বাংলায় লাগাতার খুন, হামলার ঘটনা ঘটছে। নির্বাচনের আগে BJP কর্মীদের জেলে ভরা হচ্ছে। এত অত্যাচারের পরেও প্রচুর সংখ্যক মানুষ বেরিয়ে এসে নিজেদের ভোট নিজেরা দিচ্ছেন’।

বাংলা হান্ট 28 May 2024 2:04 pm

লোনে বাইক কেনার জন্য দুর্দান্ত অফার দিচ্ছে SBI! কত টাকা করে দিতে হবে মাসিক কিস্তি?

বাংলাহান্ট ডেস্ক : আজকাল প্রত্যেকের কাছে দু চাকা বা বাইকের গুরুত্ব অপরিসীম। আপনি যদি লোনে অর্থাৎ মাসিক কিস্তিতে বাইক কেনার কথা ভেবে থাকেন তাহলে আপনার জন্য আকর্ষণীয় অফার নিয়ে এসেছেন স্টেট ব্যাঙ্ক। SBI Super Bike Loan Scheme থেকে আপনি টাকা পেতে পারেন কিস্তিতে বাইক কেনার জন্য। এই লোনের সুবিধা কারা পাবেন? আবেদন পদ্ধতি কী? দেড় লক্ষ টাকার লোন নিলে কত টাকা করে দিতে হবে ইএমআই? সবকিছুর বিবরণ জেনে নেব এই প্রতিবেদনে। বাইকের অন-রোড মূল্যের নূন্যতম ১৫ শতাংশ মার্জিন আবশ্যক এসবিআই সুপার বাইক লোন স্কিমে। ২১ বছর থেকে ৫৭ বছর বয়সীরা এই লোনের জন্য আবেদন জানাতে পারবেন। সর্বনিম্ন ১.৫ টাকা থেকে সর্বোচ্চ ২৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত লোন দেওয়া হচ্ছে এই স্কিমে। লোন পরিশোধ করার জন্য সর্বোচ্চ চার বছরের সময়সীমা দেওয়া হচ্ছে। আরোও পড়ুন :  টাকা তুলতে আর যেতে হবে না ATM! বাড়ি বসেই পেয়ে যাবেন, কীভাবে? জানুন স্টেট ব্যাংক (State Bank of India) থেকে বাইক লোন নিলে ১২.১৫ শতাংশ থেকে ২০.৪০ শতাংশ পর্যন্ত সুদ দিতে হবে আপনাকে। সুদের হার নির্ভর করবে সিবিল স্কোর ও আপনার কাজের উপর। যদি আপনি ১৩.১৫ শতাংশ সুদের হারে স্টেট ব্যাংক থেকে দেড় লক্ষ টাকার বাইক লোন নেন, তাহলে কত টাকা করে মাসিক কিস্তি দিতে হবে চলুন জেনে নেওয়া যাক। আরোও পড়ুন :  পাশে নেই ভারত! জলের হাহাকার মলদ্বীপে, মইজ্জুর ‘গুড বুকে’ থাকতে সাহায্য করল এই দেশ SBI Super Bike Loan স্কিম থেকে ১৩.১৫ শতাংশ সুদের হারে ধরে নিন আপনি দেড় লক্ষ টাকার বাইক লোন পেয়েছেন। আপনি যদি দু’বছর সময়সীমা বেছে নেন লোন পরিশোধ করার জন্য, তাহলে আপনাকে প্রতিমাসে ইএমআই বাবদ দিতে হবে ৭,১৪২ টাকা। আপনাকে মোট ১,৭১,৪০৪ টাকা পরিশোধ করতে হবে। সেক্ষেত্রে সুদ হিসেবে অতিরিক্ত ২১,৪০৪ টাকা প্রদান করতে হবে। যদি আপনি তিন বছর লোন শোধের সময়সীমা নেন তাহলে আপনাকে প্রতি মাসে দিতে হবে ৫,০৬৫ টাকার EMI। সেক্ষেত্রে আপনাকে পরিশোধ করতে হবে মোট ১,৮২,৩৩৮ টাকা। চার বছরের সময়সীমার জন্য লোন নিলে প্রতি মাসে ইএমআই বাবদ দিতে হবে ৪,০৩৫ টাকা। সেক্ষেত্রে আপনাকে মোট ১,৯৩,৬৯৪ টাকা পরিশোধ করতে হবে। চার বছর আপনাকে মোট সুদ দিতে হবে ৪৩,৬৯৪ টাকা। রাজ্য সরকারি ও কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারী, সরকার আন্ডারটেটিং সংস্থা, বেসরকারি সংস্থার কর্মীরা আবেদন করতে পারবেন এই লোনের জন্য। এছাড়াও বাইক লোনের জন্য আবেদন জানাতে পারেন ব্যবসায়ী ও কৃষি কাজের সাথে যুক্ত ব্যক্তিরাও। বেতনভোগী/পেনশনভোগী ব্যাক্তিদের এবং ব্যাবসায়ীদের বার্ষিক আয় সর্বনিম্ন ৩ লক্ষ টাকা ও কৃষিবিদদের বার্ষিক আয় ৪ লক্ষ টাকা হতে হবে আবেদন জানানোর জন্য।

বাংলা হান্ট 28 May 2024 2:04 pm

প্রধানমন্ত্রীর ৮০ লাখের বকেয়া হোটেল বিল মেটাবে কর্নাটক সরকার, 'ফকির আদমি' কটাক্ষ তৃণমূলের

কর্নাটকের মাইসুরুতে একটি বিলাসবহুল হোটেলে ৮০ লাখ টাকার হোটেল বিল বকেয়া রয়েছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর! তাঁকে আপ্যায়ন করার জন্যই এই বিপুল পরিমাণ খরচ হয়েছিল বলে খবর। কিন্তু, সে টাকা মেটায়নি কেন্দ্র। জানা গিয়েছে, কর্নাটক সরকারের পক্ষ থেকে এই বিল মিটিয়ে দেওয়া হচ্ছে। এই নিয়ে তীব্র আক্রমণ তৃণমূল কংগ্রেসের।

এ ই সময় 28 May 2024 1:59 pm

ঘূর্ণিঝড় আসার আগেই বিক্রি লক্ষাধিক টাকার মদ, সকাল ঘুম থেকে উঠে ভিখারি দোকানের মালিক

বাংলা হান্ট ডেস্ক: রেমালের দাপটে এমনিতেই জলমগ্ন কলকাতার শহর এবং শহরতলীর বেশ কিছু জায়গা। তবে ২৬ মে আবহাওয়া দপ্তরের দেওয়া পূর্বাভাস অনুযায়ী এদিন সপ্তাহের শেষ দিনে যখন রেমাল আছড়ে পড়ল সেই দিনটা একে তো ছিল রবিবার সাথে বাইরের ঝড়ো হাওয়ার সাথে বৃষ্টি আর উপরি পাওনা আইপিএলের ফাইনাল। সবমিলিয়ে এই রবিবারটা ছিল সুরাপ্রেমীদের জন্য একেবারে আদর্শ। তাই এই রবিবার রেমাল আসার আগে থেকেই মদের দোকান গুলিতে (Liquor Shop) ভিড় ছিল চোখে পড়ার মতো। এমনকি লম্বা লাইন পড়ে গিয়েছিল পাড়ার মদের দোকানগুলিতেও। তাছাড়া অনেক রাত পর্যন্ত মদ বিক্রি হওয়ায় লাভও হয়েছিল মোটা টাকা। কিন্তু কাটোয়ার এক দোকানের মালিকের কপালে সেই সুখ স্থায়ী হল না। তাই লাভের গুড়ের স্বাদ পাওয়ার আগেই একরাতের মধ্যে সর্বস্ব খুইয়ে মাথায় হাত কাটোয়ার মুস্থূলী গ্রামের মদের দোকানের মালিক বুদ্ধদেব ঘোষের। রবিবারের দুর্যোগের রাতেই তার মদের দোকানে ঘটে গিয়েছে এক দুঃসাহসিক ডাকাতির (Robbery) ঘটনা। যার যার ফলে প্রায় ২ লক্ষ নগদ টাকা সহ দামি ব্রান্ডের মদ খুইয়ে একেবারে নিঃস্ব হয়ে গিয়েছেন ওই দোকানের মালিক।  আসলে রবিবার অনেক রাতে বিক্রিবাটা শেষ হওয়ার পর ঘূর্ণিঝড়ের কথা মাথায় রেখেই সেদিন সমস্ত টাকা-পয়সা দোকানের আলমারিতে রেখেই নিশ্চিন্তে বাড়ি ফিরে গিয়েছিলেন ওই দোকান মালিক। আরও পড়ুন: ডুয়ার্সে ভয়ঙ্কর কাণ্ড, রাতে অন্ধকারে যুবককে নগ্ন করে পিটিয়ে খুন! থমথমে গোটা এলাকা কিন্তু এই পরদিন দোকানে আসতেই মাথায় কার্যত বাজ পড়ে তার। দোকানে ঢুকে দেখেন চারদিকে লন্ডভন্ড সব জিনিস। আর আলমারি থেকে গায়েব নগদ এক লক্ষ ৩০ হাজার টাকার বেশি টাকা সহ বেশ কিছু দামি ব্রান্ডের মদের বোতল। অভিযোগ এদিন টাকা-পয়সা সমেত দামি ব্র্যান্ডের মদ নিয়ে  চম্পট দেওয়ার সাথে সাথে দোকানে থাকা হার্ডডিস্ক এবং সিসিটিভি ক্যামেরাও খারাপ করে দিয়ে গিয়েছে দুষ্কৃতীরা। সব হারিয়ে এদিন বিপর্যস্ত মদের দোকানের মালিক বুদ্ধদেব ঘোষ। ওই ডাকতি প্রসঙ্গে তিনি জানিয়েছেন ‘দুর্যোগের জন্য রাতে দোকানে কেউ ছিল না।গত রবিবারের বিক্রির পর ১ লক্ষ ৩০ হাজার টাকা-সহ আরও কিছু টাকা দোকানেই ছিল।দুর্যোগের সুযোগ কাজে লাগিয়ে দুষ্কৃতীরা তালা ভেঙে সব নিয়ে চম্পট দেয়।’ ইতিমধ্যেই কাটোয়া থানায় অভিযোগ দায়ের করা হলেও, সিসিটিভি খারাপ করে দেওয়ায় এখনও পর্যন্ত  এই ঘটনায় কাউকে সনাক্ত করতে পারেনি পুলিশ।

বাংলা হান্ট 28 May 2024 1:57 pm

পাশে নেই ভারত! জলের হাহাকার মলদ্বীপে, মইজ্জুর ‘গুড বুকে’থাকতে সাহায্য করল এই দেশ

বাংলাহান্ট ডেস্ক : এবার পানীয় জল পাঠিয়ে মলদ্বীপের (Maldives) উপর নতুন ভাবে জাঁকিয়ে বসতে চাইছে চীন (China)। সূত্রের খবর, ১৫০০ টন পানীয় জল তিব্বত থেকে মলদ্বীপে পাঠিয়েছে চীন। মার্চ মাসের পর এই নিয়ে দ্বিতীয় বার চীন তিব্বতের হিমবাহ থেকে জল বার করে পাঠাল মলদ্বীপে। চীন ঘনিষ্ঠ মোহাম্মদ মুইজ্জু মলদ্বীপের প্রেসিডেন্ট হওয়ার পর থেকে নতুন উচ্চতায় গেছে চীন ও মলদ্বীপের সম্পর্ক। ১৫০০ টন জলের চালানটি মলদ্বীপের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মুসা জামিরের কাছে হস্তান্তর করেছেন মালেতে নিযুক্ত চীনা রাষ্ট্রদূত ওয়াং লিক্সিন। মলদ্বীপের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মুসা জমির টুইটারে লেখেন, ১৫০০ টন জল শিজাং (তিব্বত) স্বায়ত্তশাসিত অঞ্চলের জনগণের কাছ থেকে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি আমরা। চীনের পক্ষ থেকে এর আগে মার্চ মাসে ১৫০০ টন জল পাঠানো হয়েছিল। আরোও পড়ুন :  টাকা তুলতে আর যেতে হবে না ATM! বাড়ি বসেই পেয়ে যাবেন, কীভাবে? জানুন মলদ্বীপের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর কথায়, পানীয় জলের যে চালানটি পাঠানো হয়েছে তা জল সংকটে থাকা মলদ্বীপকে অনেকটাই সাহায্য করবে। রাষ্ট্রদূত ওয়াং লিক্সিন টুইটারে লিখেছেন,  ‘শিজাং স্বায়ত্তশাসিত অঞ্চল থেকে দান করা ৫১০০ মিটার উচ্চ হিমবাহের প্রিমিয়াম জল পাহাড় এবং সমুদ্রের মধ্য দিয়ে মালেতে পৌঁছতে দেখে খুব আনন্দ লাগছে। এটি চীন ও মলদ্বীপের জনগণের মধ্যে গভীর বন্ধুত্ব এবং তিব্বতের জনগণের মহানুভবতাকে প্রতিফলিত করে।’ তিব্বত থেকে পানীয় জল পাঠিয়ে চীন সোশ্যাল মিডিয়ায় ঢালাও প্রচার করছে ঠিকই, কিন্তু একটা সময় নিঃশব্দে ভারত পানীয় জলের সরবরাহ করেছে মলদ্বীপকে। ২০১৪ সালে মলদ্বীপে তীব্র জল সংকট দেখা দেওয়ার পর অপারেশন নীরের মাধ্যমে ভারত মলদ্বীপে পানীয় জল পৌঁছে দিয়েছিল। এরপরেও আইএনএস দীপক এবং আইএনএস শুক্লাযও ২০০০ টন পানীয় জল সরবরাহ করেছিল মলদ্বীপকে।

বাংলা হান্ট 28 May 2024 1:50 pm

মোদী থেকে অমিত শাহ, সঙ্গে আছেন ধোনি! ইন্ডিয়া টিমের হেড কোচ হওয়ার জন্য করলেন আবেদন

বাংলা হান্ট ডেস্ক: T20 বিশ্বকাপের (ICC Men’s T20 World Cup) পর ভারতীয় দলের হেড কোচ হিসেবে রাহুল দ্রাবিড়ের (Rahul Dravid) মেয়াদ শেষ হতে চলেছে। এমন পরিস্থিতিতে, BCCI (Board of Control for Cricket)-এর তরফে ভারতীয় টিমের হেড কোচ পদে আবেদনের জন্য বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়। রাহুল দ্রাবিড়ও এই পদের জন্য আবার আবেদন করতে পারেন। এমতাবস্থায়, সামগ্রিকভাবে ভারতীয় দলের কোচের দায়িত্ব কে নিতে চলেছেন সেটাই এখন দেখার বিষয়। তবে, এই আবহেই একটি চমকপ্রদ তথ্য সামনে এসেছে। যেটি সর্ম্পকে জানার পর অবাক হবেন প্রত্যেকে। মূলত, ভারতীয় দলের হেড কোচের ক্ষেত্রে নরেন্দ্র মোদী থেকে শুরু করে অমিত শাহ, মহেন্দ্র সিং ধোনি এবং শচিন তেন্ডুলকাররাও নাকি আবেদন করেছেন! হ্যাঁ, প্রথমে এই বিষয়টি পড়ে চমকে গেলেও ঠিক এই ঘটনাই এবার সামনে এসেছে। বর্তমান প্রতিবেদনে এই প্রসঙ্গে বিস্তারিত তথ্য উপস্থাপিত করা হল। News The Board of Control for Cricket in India (BCCI) invites applications for the position of Head Coach (Senior Men) Read More #TeamIndia https://t.co/5GNlQwgWu0 pic.twitter.com/KY0WKXnrsK — BCCI (@BCCI) May 13, 2024 ভুয়ো আবেদনের বন্যা: প্রসঙ্গত উল্লেখ্য যে, ইতিমধ্যেই ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের একটি রিপোর্টে বলা হয়েছে নরেন্দ্র মোদী থেকে শুরু করে অমিত শাহ, শচীন তেন্ডুলকার এবং এমএস ধোনির নামে ভুয়ো আবেদন এসেছে। জানা গিয়েছে যে, ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড হেড কোচের পদের জন্য ৩,০০০-এরও বেশি আবেদন পেয়েছে। এদিকে, হেড কোচ পদে আবেদন করার শেষদিন ছিল গত ২৭ মে। রিপোর্টে বলা হয়েছে, BCCI তেন্ডুলকার, ধোনি, হরভজন সিং, বীরেন্দ্র শেবাগ এবং অন্যান্য প্রাক্তন ক্রিকেটারদের নামে বেশ কয়েকটি আবেদন পেয়েছে। সবথেকে উল্লেখযোগ্য বিষয় হল সেখানে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের মতো রাজনীতিবিদদের নামেও এসেছে ভুয়ো আবেদন। আরও পড়ুন:  আম্বানির বড় পদক্ষেপ! ভারতের পাশাপাশি এই দেশে বাজবে Reliance Jio-র ডঙ্কা, সম্পন্ন হল চুক্তি ২০২২ সালেও এসেছিল ভুয়ো আবেদন: এই প্রসঙ্গে জানিয়ে রাখি, এর আগেও BCCI ঠিক এইরকমই ভুয়ো আবেদন পেয়েছিল। ২০২২ সালে BCCI যখন প্রধান কোচের জন্য আবেদনপত্র চেয়েছিল সেই সময়ে সেলিব্রিটিদের নাম করে এসেছিল ভুয়ো আবেদনপত্র। বোর্ড সেইসময়ে মেইল মারফত আবেদনপত্র গ্রহণ করেছিল। তবে, এবার BCCI আবেদনপত্র গ্রহণের ক্ষেত্রে Google Form-এর ব্যবহার করেছে। আরও পড়ুন:  হয়ে যান সতর্ক! এবার ICICI সহ এই ব্যাঙ্কের ওপর ১.৯১ কোটির জরিমানা RBI-র, আপনার অ্যাকাউন্ট নেই তো? এই প্রসঙ্গে BCCI-এর একজন আধিকারিক জানিয়েছেন, “২০২২ সালেও BCCI এমন প্রতিক্রিয়া পেয়েছিল। যেখানে ভুয়ো আবেদনপত্র সামনে আসে। এবারেও ঠিক একই ঘটনা ঘটেছে। BCCI-এর Google Form-এ আবেদন চাওয়ার এটাই কারণ যে এক্ষেত্রে আবেদনকারীদের নাম পরীক্ষা করা সহজ হয়।”

বাংলা হান্ট 28 May 2024 1:46 pm

টাকা তুলতে আর যেতে হবে না ATM! বাড়ি বসেই পেয়ে যাবেন, কীভাবে? জানুন

বাংলাহান্ট ডেস্ক : টাকা তোলার জন্য এখন আর প্রয়োজন হবে না এটিএমে যাওয়ার। বায়োমেট্রিক ব্যবহার করে আপনারা আধার এটিএমের (Automated Teller Machine) মাধ্যমে সহজেই পারবেন লেনদেন করতে। যদি আপনার ব্যাংক অ্যাকাউন্ট আধারের সাথে লিংক থাকে, তাহলে নগদ টাকার তোলা ছাড়াও আরো অন্যান্য কাজ করতে পারবেন অতি সহজে। যদি আপনি এটিএম পর্যন্ত যেতে অক্ষম হন, তাহলে কীভাবে ঘরে বসেই আধার এটিএমের মাধ্যমে টাকা তুলতে পারবেন সেই সম্পর্কে জেনে নেব আজ। ইন্ডিয়া পোস্ট পেমেন্ট ব্যাঙ্ক ঘরে বসে গ্রাহকদের টাকা সরবরাহ করার পরিষেবা শুরু করেছে। অনলাইন এটিএমের ভিক্তিতে ইন্ডিয়া পোস্ট পেমেন্ট ব্যাঙ্ক (India Post Payment Bank) এই সুবিধা প্রদান করছে।  আরোও পড়ুন :  জুন মাস জুড়ে প্রায় অর্ধের দিনই ব্যাঙ্ক বন্ধ! ছুটির তালিকা না জানলেই পড়বেন মহা ফ্যাসাদে যেকোনো ব্যাংক গ্রাহক এই পরিষেবার ফলে ঘরে বসেই পেয়ে যাবেন টাকা। টাকার জন্য যেতে হবে না এটিএম বা নিকটস্থ ব্রাঞ্চে। এই অর্থ প্রদান পরিষেবা সম্পূর্ণ আধার ভিত্তিক। গ্রাহকদের বাড়িতে স্থানীয় পোস্টম্যান এই টাকা সরবরাহ করবেন। আধারের বায়োমেট্রিক পরিচয় ব্যবহার করে সহজেই গ্রাহক লেনদেন করতে পারবেন। আরোও পড়ুন :  ফিক্সড ডিপোজিটে মিলছে ৯.১০% সুদ! এই ব্যাঙ্কগুলোয় বিনিয়োগ করলে মোটা রিটার্ন নিশ্চিত টাকা তোলা ছাড়াও এই পরিষেবার মাধ্যমে গ্রাহক ব্যালেন্স চেক ও অ্যাকাউন্ট বিবরণের মতো পরিষেবাও পেয়ে যাবেন। ঘরে বসে টাকা তোলার জন্য প্রথমে যেতে হবে ইন্ডিয়া পোস্ট পেমেন্ট ব্যাংকের ওয়েবসাইটে। সেখানে আবেদন করার পর আপনার বাড়িতে পোস্টম্যান মাইক্রো এটিএম নিয়ে উপস্থিত হবেন। তারপর পোস্টম্যান আপনার বায়োমেট্রিক তথ্য যাচাই করবেন। যাচাই প্রক্রিয়া পর আপনাকে প্রদান করা হবে অর্থ। জানা যাচ্ছে, ঘরে বসে টাকা তোলার জন্য গ্রাহকদের অতিরিক্ত চার্জ প্রদান করতে হবে না। ইন্ডিয়া পোস্ট পেমেন্ট ব্যাংকের ডোর স্টেপ সার্ভিসের জন্য কোনও রকম চার্জ করা হচ্ছে না। ন্যাশনাল পেমেন্ট কর্পোরেশনের নিয়ম অনুযায়ী, গ্রাহক এককালীন সর্বোচ্চ ১০ হাজার টাকা পর্যন্ত তুলতে পারবেন। এই পরিষেবাটি পাওয়ার জন্য প্রথমে ইন্ডিয়া পোস্ট পেমেন্ট ব্যাংকের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে (https://ippbonline.com) ভিজিট করতে হবে। সেখান থেকে বেছে নিতে হবে ডোর স্টেপ সার্ভিস। এরপর নাম, মোবাইল নম্বর, ই-মেল আইডি, ঠিকানা এবং পিন কোড এবং বাড়ির কাছের পোস্ট অফিসের সঠিক বিবরণ ও ব্যাংকের বিবরণ প্রদান করতে হবে সেখানে। পূরণ করার পর গ্রাহকদের সাবমিট বটনে ক্লিক করতে হবে।

বাংলা হান্ট 28 May 2024 1:25 pm

‘৮ সপ্তাহের মধ্যে…’! মধ্যশিক্ষা পর্ষদকে বিরাট নির্দেশ হাই কোর্টের, ঘুম উড়ল শিক্ষকদের

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ সরকারি শিক্ষকরা প্রাইভেট টিউশন করাতে পারবেন না, কলকাতা হাই কোর্টের (Calcutta High Court) তরফ থেকে অনেক আগেই এই নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু অভিযোগ, উচ্চ আদালতের এই নির্দেশকে কার্যত বুড়ো আঙুল দেখিয়ে এখনও নানান জেলায় স্কুল শিক্ষকরা প্রাইভেট টিউশন করাচ্ছেন। এবার এই নিয়ে মধ্যশিক্ষা পর্ষদ (WBBSE) এবং জেলা স্কুল পরিদর্শককে বিরাট নির্দেশ দিল আদালত। সম্প্রতি গৃহ শিক্ষক কল্যাণ সমিতির তরফ থেকে এই নিয়ে হাই কোর্টের একটি আদালত অবমাননার মামলা হয়। সেখানে তাঁদের আইনজীবী এক্রামুল বারি অভিযোগ করেন, আদালতের নির্দেশের তোয়াক্কা না করে বহু সরকারি স্কুলের শিক্ষক (Government School Teacher) এখনও প্রাইভেট টিউশন করাচ্ছেন। সেগুলি বন্ধ করার জন্য সরকার যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণ করতে পারছেন না। এদিকে জেলা স্কুল পরিদর্শকদের দেওয়া রিপোর্টে, কোথাও সরকারি স্কুল শিক্ষকরা প্রাইভেট টিউশন (Private Tuition) করাচ্ছেন বলে তথ্য নেই। তবে গৃহ শিক্ষক কল্যাণ সমিতির দাবি, মধ্যশিক্ষা পর্ষদের তরফ থেকে নির্দেশিকা জারি করে সরকারি বিদ্যালয়ের শিক্ষক এবং অশিক্ষক কর্মীদের প্রাইভেট টিউশন বন্ধের কথা বলা হয়েছিল। কিন্তু তা সত্ত্বেও কাজের কাজ হয়নি! এখনও বহু শিক্ষক ছাত্রছাত্রীদের পরীক্ষায় কম নম্বর দেওয়ার ভয় দেখিয়ে তাঁদের কাছে টিউশন পড়ার জন্য ‘বাধ্য’ করছেন। গৃহ শিক্ষক কল্যাণ সমিতির দাবি, এটা অপরাধ। এবার এই মামলায় হাই কোর্ট আগামী ৮ সপ্তাহের মধ্যে মধ্যশিক্ষা পর্ষদ ও জেলা স্কুল পরিদর্শককে যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণের নির্দেশ দিয়েছে। আরও পড়ুনঃ  রেশন দুর্নীতির পর আরেক মামলায় নাম জ্যোতিপ্রিয়র! ED-র অ্যাকশনে ঘুম উড়ল বালুর অনেক আগেই হাই কোর্টের তরফ থেকে সরকার ও সরকার পোষিত বিদ্যালয়ে চাকরিরত শিক্ষকদের প্রাইভেট টিউশন অবৈধ বলা হয়েছিল। ২০১৮ সালে মধ্যশিক্ষা পর্ষদের তরফ থেকে এই মর্মে একটি নির্দেশিকাও জারি করা হয়। সেখানে বলা হয়েছিল, সরকার ও সরকার পোষিত বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা নিজের বাড়ি কিংবা কোনও প্রতিষ্ঠানে প্রাইভেট টিউশন করাতে পারবেন না। এই নিয়ে রাজ্য সরকারের নিয়মও আছে। সরকারের এই নির্দেশিকা অগ্রাহ্য করে কেউ যদি প্রাইভেট টিউশন করান তাহলে তা শাস্তিযোগ্য অপরাধ। তবে অভিযোগ, এরপরেও অনেক শিক্ষক প্রাইভেট টিউশন করাচ্ছেন। আইনজীবীর অভিযোগ, স্কুল শিক্ষকদের প্রাইভেট টিউশন করানো নিয়ে যে সকল জেলার তথ্য দেওয়া হয়েছিল সেই বিষয়ে কোনও ‘অ্যাকশন’ নেওয়া হয়নি। ডিআরওয়াইদের গা ছাড়া মনোভাবের কারণে বহু ছাত্রছাত্রী বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের কাছে প্রাইভেট টিউশন পড়তে কার্যত বাধ্য হচ্ছেন! এবার এই প্রেক্ষিতে হাই কোর্টের প্রধান বিচারপতি টি এস শিবজ্ঞানমের ডিভিশন বেঞ্চ পরিষ্কার জানিয়েছেন, ২০১৮ সালে জারি হওয়া বিধি অনুসারে সরকারি শিক্ষকরা প্রাইভেট টিউশন করাতে পারবেন না। তাই কমিশনার অফ স্কুল এডুকেশনকে এই বিষয়ে যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে।

বাংলা হান্ট 28 May 2024 1:25 pm

এক লাথিতেই ব্যথা সারছে কোমরের! তারাপীঠে এই সাধুর দরবারে ভিড় আম জনতার

বাংলা হান্ট ডেস্ক: অসুখ হলেই তা সারাতে সবাই সাধারণত চিকিৎসকের কাছেই দৌড়ান। কিন্তু ইদানিং লাথি মেরে কোমরের ব্যথা সারিয়ে চারিদিকে রীতিমতো সাড়া ফেলে দিয়েছেন তারাপীঠের (Tarapith) এক অঘোরী সাধু (Aghori Sadhu)। তাই কোমরের ব্যথা (Back Pain) সারাতে দূর দূরান্ত থেকে তার কাছে সেধে লাথি খেতে ছুটে আসছেন বহু মানুষ। কথায় আছে বিশ্বাসে মিলায় বস্তু, তর্কে বহুদূর! এই অঘোরী সাধুর কাছে লাথি খেয়ে কোমরের ব্যথা সারানোর বিষয়টিও ঠিক তেমনি। অনেকেই আবার এই বিষয়টিকে নেহাত বুজরুকি বলেও উড়িয়ে দিয়েছেন। বছরের পর বছর ধরে শুধু বাংলায় নয়, সারা বিশ্বে বিশেষ খ্যাতি রয়েছে বীরভূমের এই তারাপীঠ মন্দিরের। তন্ত্রসাধনার অন্যতম জনপ্রিয় পিঠস্থান হিসেবে স্বীকৃত এই মন্দির। সম্প্রতি এই তারাপীঠ মহাশ্মশানেই সাধক বামাক্ষ্যাপার সমাধিস্থলে ওই অঘোরী সাধুর লাথি খেয়ে কোমরের ব্যথা সারাতে ভিড় জমাচ্ছেন শয়ে শয়ে ভক্ত। কিভাবে ব্যথা সারছে ভক্তদের? জানা যাচ্ছে,মন্দিরের দিকে মুখ করে প্রথমেই প্রণাম করছেন ভক্তরা। আর ঠিক সেই সময়ে কালো কাপড় আর কালো চাদর গায়ে এক অঘোরী সাধু এসে লাথি মারছেন ভক্তের কোমরে। লাথি খাওয়ার পরেই হুমড়ি খেয়ে সামনের দিকে পড়ে যাচ্ছেন অনেকেই। এরপর উঠে তারা প্রণাম করছেন ওই অঘোরী সাধুকে। কারণ তাদের বিশ্বাস এই বাবার লাথি খেয়েই নাকি সেরে যাচ্ছে  তাদের কোমরের ব্যথা। তাই দিকে দিকে এখন তারাপীঠের  অঘোরী সাধু সমীরনাথের নাম ছড়িয়ে পড়েছে। জানা যাচ্ছে বর্তমানে এই সাধুর বয়স নাকি চল্লিশের  কাছাকাছি। একটা সময় তাঁর পূর্বাশ্রম ছিল কলকাতার শিয়ালদহে। ২০১৯ সালেই নাকি তিনি দীক্ষা গ্রহণ করেছিলেন যোগী বাবা রবীন্দ্র-র কাছে। আরও পড়ুন: আজকের রাশিফল ২৮ মে, পারিবারিক জীবন সুখের হবে এই চার রাশির একসময়  কলকাতার  নিমতলা মহাশ্মশানে তিনি রোজ ১২টা  থেকে ৩ টে পর্যন্ত সাধনা করতেন। তবে গত ১২ বছর ধরে  তারাপীঠ মহাশ্মশানের একটি কুঠুরিতে পাকাপাকি ভাবে থাকতে শুরু করেছেন তিনি  বিশেষ অলৌকিক ক্ষমতা সম্পন্ন এই বাবার নাকি বেশি চাহিদা নেই। কাঞ্চন মূল্যেই তিনি সন্তুষ্ট বলে জানিয়েছেন। কিন্তু কিভাবে তিনি এই অসম্ভবকে সম্ভব করছেন? এই প্রশ্ন করা হলে  উত্তরে তিনি স্পষ্ট জানিয়েছেন  ১২ বছর ধরে তিনি যে সাধনা করছেন তাতেই নাকি তিনি স্বয়ং মা কালীর ইঙ্গিত পেয়েছেন। যা থেকেই এই কাজ তিনি করতে পারছেন বলে জানিয়েছেন।সেই সাথে তিনি জানান জন্মের সময় মাতৃগর্ভ থেকে নাকি তাঁর পা আগে বেরিয়েছিল সেই কারণেই নাকি তাঁর পা এই বিশেষ ক্ষমতা সম্পন্ন। যদিও বিজ্ঞান মঞ্চের তরফ থেকে পুরো বিষয়টিকে বুজরুকি বলে দাবি করা হয়েছে।  বিজ্ঞান মঞ্চের সদস্য হিমাদ্রি শুক্লা এপ্রসঙ্গে সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, ‘লাথি মেরে কারো ব্যথা ঠিক করা যায় না।  নির্দিষ্ট চিকিৎসার মাধ্যমেই সেই রোগ নিরাময় হয়। তবে যারা অর্থের অভাবে  চিকিৎসকের কাছে যেতে পারেন না। তাদের তাদেরই কায়দা করে এসব বুজরুকির ফাঁদে ফেলা হয়।’

বাংলা হান্ট 28 May 2024 12:55 pm

রেশন দুর্নীতির পর আরেক মামলায় নাম জ্যোতিপ্রিয়র! ED-র অ্যাকশনে ঘুম উড়ল বালুর

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ রেশন দুর্নীতি কাণ্ডে দীর্ঘদিন ধরে জেলবন্দি রাজ্যের প্রাক্তন খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক। জেলের চার দেওয়ালের মধ্যেই বর্তমানে দিন কাটছে তাঁর। জামিনের আবেদন করেও সুরাহা হচ্ছে না। এবার সেই জ্যোতিপ্রিয় ওরফে বালুরই নতুন এক মামলায় নাম জড়াল। সম্প্রতি ED (Enforcement Directorate) সূত্রে জানা গিয়েছে এমনটাই। রেশন দুর্নীতির পর এই মামলার চার্জশিটেও তাঁর নাম রয়েছে বলে খবর। রেশন দুর্নীতি কাণ্ডে বালুর (Jyotipriya Mallick) সূত্র ধরে সন্দেশখালির ‘বেতাজ বাদশা’ শেখ শাহজাহানের (Sheikh Shahjahan) নাম উঠে এসেছিল। তাঁর বাড়িতে গিয়ে হামলার মুখে পড়তে হয়েছিল ED আধিকারিকদের। এরপর সেই মামলার মোড় একেবারে ঘুরে যায়। তবে সেই সময় শাহজাহান-বালুর ঘনিষ্ঠতার খবর শিরোনামে উঠে এসেছিল। এবার জমি দখল মামলাতেও দু’জনের ‘যোগ’ সামনে এসেছে বলে খবর। সোমবার জমি দখল মামলায় আদালতে চার্জশিট দিয়েছে কেন্দ্রীয় এজেন্সি ED। সেখানে জ্যোতিপ্রিয়র নাম রয়েছে বলে খবর। সূত্রের খবর, ইডি যে চার্জশিট দিয়েছে সেখানে উল্লেখ রয়েছে, শাহজাহানকে  সন্দেশখালির ‘বেতাজ বাদশা’ তৈরির নেপথ্যে এই বালুই ছিলেন। বাম জমানা থেকে ধীরে ধীরে সন্দেশখালির বুকে শাহজাহানের প্রভাব বাড়তে শুরু করলেও ‘জ্যোতিপ্রিয়-যোগে’র পর রমরমা বৃদ্ধি পায়। আরও পড়ুনঃ  যুদ্ধ বন্ধ হোক! ইজরায়েলকে নির্দেশ ভারতীয় বিচারপতিরও! কে এই দলবীর? রইল পরিচয় বালুর প্রশ্রয়েই সন্দেশখালির বুকে নিজের ‘রাজত্ব’ এবং ‘রাজপ্রাসাদ’ তৈরি করেন শাহজাহান। প্রাক্তন খাদ্যমন্ত্রী সরাসরি জমি দখলের সঙ্গে যুক্ত না হলেও তিনি নাকি এই বিষয়ে শাহজাহানকে মদত দিয়েছিলেন বলে খবর। ED সূত্রে জানা যাচ্ছে, নানান সময়ে সন্দেশখালির ‘বাঘ’কে সমর্থন করেছেন জ্যোতিপ্রিয়। গোটা বিষয়ে তাঁর আর কী কী ভূমিকা আছে সেটাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে খবর। উল্লেখ্য, এর আগে ED সূত্রে জানা গিয়েছিল, জ্যোতিপ্রিয়র কয়েক হাজার কোটি টাকা পাচারের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন শাহজাহান। তাঁর টাকা সন্দেশখালির এই বহিষ্কৃত তৃণমূল নেতা সরাসরি বাংলাদেশের নানান সংস্থায় বিনিয়োগ করতেন বলে অনুমান করেছিল কেন্দ্রীয় এজেন্সি। এছাড়া তদন্তকারী সংস্থার একটি সূত্র মারফৎ জানা যাচ্ছে, শাহজাহানের বিরুদ্ধে জ্যোতিপ্রিয়র টাকা ‘পার্ক অ্যান্ড লন্ডার’এর অভিযোগও রয়েছে। সব মিলিয়ে, ফের একবার ED স্ক্যানারে উঠে এসেছে শাহজাহান-বালু ‘যোগ’। এবার এই মামলা কোন দিকে মোড় নেয় সেটাই দেখার।

বাংলা হান্ট 28 May 2024 12:46 pm

Arvind Kejriwal News : জরুরি শুনানি নয়, কেজরির অন্তর্বর্তী জামিনের মেয়াদ বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত কার হাতে?

অরবিন্দ কেজরিওযালের অন্তর্বর্তী জামিনের মেয়াদ বৃদ্ধির আবেদনে এখনই কোনও জরুরি শুনানি করবে না সুপ্রিম কোর্ট। সোমবার সাতদিনের মেয়াদ বৃদ্ধি চেয়ে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিলেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী। কারণ হিসেবে দেখানো হয় মেডিক্যাল গ্রাউন্ড। কিন্তু, সেই আবেদনে জরুরি শুনানির আবেদন খারিজ করে দেওয়া হয়েছে। যদিও এই নিয়ে প্রয়োজনীয় সিদ্ধান্ত নেবেন দেশের প্রধান বিচারপতি।

এ ই সময় 28 May 2024 12:22 pm

যুদ্ধ বন্ধ হোক! ইজরায়েলকে নির্দেশ ভারতীয় বিচারপতিরও! কে এই দলবীর? রইল পরিচয়

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ অবিলম্বে গাজার দক্ষিণে রাফায় সেনা অভিযান বন্ধ করা হোক। গত শুক্রবার আন্তর্জাতিক অপরাধদমন আদালত ঠিক এমনই নির্দেশ দিয়েছে ইজরায়েলকে (Israel Hamas War)। আদালতের ১৫ জন সদস্যের মধ্যে ১৩ জন বিচারপতি যুদ্ধ বন্ধ করার পক্ষে রায় দিয়েছেন। তাঁদের মধ্যে রয়েছে একজন ভারতীয় বিচারপতিও রয়েছেন। তাঁর নাম দলবীর ভাণ্ডারী (Judge Dalveer Bhandari)। আন্তর্জাতিক অপরাধদমন আদালতে (International Court of Justice) ভারতীয় প্রতিনিধি হলেন বিচারপতি দলবীর। বিগত এক দশকেরও বেশি সময় ধরে ICJ-এর সদস্য তিনি। ২০১২ সাল থেকে আন্তর্জাতিক অপরাধদমন আদালতের সঙ্গে জড়িত। গত শুক্রবার ICJ-এর যে বিচারকমণ্ডলী সেনা অভিযান বন্ধের রায় দিয়েছেন তাঁদের মধ্যে অন্যতম হলেন ভারতের বিচারপতি ভাণ্ডারী। ১৯৪৭ সালে রাজস্থানের যোধপুরে জন্ম। বিচারপতি দলবীরের (Dalveer Bhandari) বাবা এবং দাদু দু’জনেই আইনজীবী ছিলেন। তাঁর পিতা মহাবীর চাঁদ ভাণ্ডারী এবং দাদু বিসি ভাণ্ডারী আইনজীবী এবং রাজস্থান বারের সদস্য ছিলেন। যোধপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র ছিলেন বিচারপতি ভাণ্ডারী। এরপর স্বনামধন্য নর্থওয়েস্টার্ন ইউনিভার্সিটি স্কুল অফ ল থেকে আইনে স্নাতকোত্তর পাশ করেন তিনি। আরও পড়ুনঃ  সন্দেশখালির বাঁধের বিরাট ক্ষতি করেছেন শাহজাহান! কীভাবে? ভোটের মধ্যেই ফাঁস নয়া ‘কীর্তি’ ১৯৭৩ সাল থেকে ১৯৭৬ সাল অবধি রাজস্থান হাই কোর্টে প্র্যাকটিস করেছেন বিচারপতি দলবীর। এরপর ১৯৭৭ সালে সুপ্রিম কোর্টে পদার্পণ। প্রায় ২৩ বছর ধরে প্র্যাকটিস করার পর ১৯৯১ সালে তাঁকে দিল্লি হাই কোর্টের বিচারপতি হিসেবে নিযুক্ত করা হয়। ২০০৫ সালের অক্টোবর মাসে দেশের শীর্ষ আদালত সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি পদে আসীন হন তিনি। এর আগে বম্বে হাই কোর্টের প্রধান বিচারপতির দায়িত্বও পালন করেছেন জাস্টিস ভাণ্ডারী। এদিকে আন্তর্জাতিক অপরাধদমন আদালতের রায়ের কথা বলা হলে, আদালতের ১৫ জন সদস্যের মধ্যে বিচারপতি ভাণ্ডারী সহ ১৩ জন সদস্য যুদ্ধ বন্ধের পক্ষে রায় দিয়েছেন। উগান্ডা এবং ইজরায়েলের প্রতিনিধিরা এর বিপক্ষে মতদান করেন। অন্যদিকে ইজরায়েলের তরফ থেকে স্পষ্ট জানানো হয়েছে, ICJ-এর দেওয়া এই রায় তারা মানবে না।

বাংলা হান্ট 28 May 2024 11:57 am

বিয়ের ‘প্রতিশ্রুতি’ নিয়ে প্রশ্ন করায় প্রেমিকাকে খুন? ধৃত IRS অফিসার

নয়ডার ফ্ল্যাটে 'ভারত হেভি ইলেকট্রিক্যাল লিমিটেড’-এর পদস্থ কর্মী শিল্পা গৌতমের দেহ উদ্ধারের ঘটনায় IRS অফিসার সৌরভ মীনাকে গ্রেফতার করল নয়়ডা পুলিশ। পুলিশ জানিয়েছে, ডেটিং অ্যাপে আলাপ হয়েছিল সৌরভ ও শিল্পার। খুব তাড়াতাড়ি তা প্রেমে পরিণত হয়। তবে বিয়ে নিয়ে দু’জনের মধ্যে হামেশাই অশান্তি হতো। গত শনিবারও তাই হয়েছিল।

এ ই সময় 28 May 2024 11:22 am

Cyber ​​Fraud : সাইবার ফ্রড বাড়ল ১১৪%, ৪ মাসেই গচ্চা ১৭৫০ কোটি

দেশে সাইবার অপরাধের ঘটনা কিছুতেই লাগাম পরানো যাচ্ছে না। চলতি বছরেই সাইবার অপরাধীদের হাতে ১,৭৫০ কোটি খুইয়েছেন ভারতীয়রা। এই তথ্য দিয়েছে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের ন্যাশনাল সাইবার ক্রাইম রিপোর্টিং পোর্টালে। তারা জানাচ্ছে ৭ লক্ষ ৪০ হাজারের বেশি অভিযোগে প্রকাশ্যে এসেছে এই বিপুল আর্থিক ক্ষতির ঘটনা।

এ ই সময় 28 May 2024 11:04 am

সন্দেশখালির বাঁধের বিরাট ক্ষতি করেছেন শাহজাহান! কীভাবে? ভোটের মধ্যেই ফাঁস নয়া ‘কীর্তি’

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ সন্দেশাখলির ‘বাঘ’ শেখ শাহজাহানের (Sheikh Shahjahan) বিরুদ্ধে অভিযোগ ছিল ভুরি ভুরি। এর মধ্যে অন্যতম হল বলপূর্বক চাষের জমি নিয়ে নোনা জল ঢুকিয়ে তা মাছের ভেড়ি করে দেওয়া। এর ফলে চরম ক্ষতি হয়েছিল সেখানকার বাঁধের (Dam)। স্থানীয় বাসিন্দারা এই বিষয়ে একেবারে ভালোরকম অবগত ছিলেন। সেই কারণেই ঘূর্ণিঝড় রেমাল আসছে শুনে ভয়ে বুক কেঁপে উঠেছিল তাঁদের। শেষ অবধি রেমাল (Cyclone Remal) গতিপথ পরিবর্তন করার সন্দেশখালি (Sandeshkhali) রক্ষা পেয়েছে। কিন্তু তা সত্ত্বেও তাঁদের মন থেকে ভয় যায়নি। আবার কবে ঝড় আসবে ঠিক নেই, তখন কী হবে? স্থানীয়দের কথায়, ‘আবার কবে যে ঝড় আসবে, আর বাঁধ ভেঙে যাবে, কে জানে’। জনপ্রিয় এক সংবাদমাধ্যমের কাছে তাঁরা বলেন, ‘শেখ শাহজাহান যে গোটা এলাকার কতখানি ক্ষতি করে গিয়েছে, সেটা শুধুমাত্র আমরা জানি’। এদিকে স্থানীয় বাসিন্দাদের পাশাপাশি ঘূর্ণিঝড় আসছে শুনে চিন্তায় পড়ে গিয়েছিল স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্বও। কারণ ভোট আসন্ন। এই অবস্থায় যদি বাঁধ ভেঙে যায় তাহলে সকলের প্রশ্নের মুখে পড়তে হবে তাঁদের। এদিকে ২০০৯ সালের আয়লার তাণ্ডবের পর সুন্দরবনে কংক্রিটের নদীবাঁধ তৈরি হওয়ার কথা থাকলেও তার কাজ খুব একটা এগোয়নি। এবার ভোটের মুখে যদি বাঁধ ভেঙে যায় তাহলে তার প্রভাব ভোটবাক্সে পড়তে পারে, এই ভেবে চিন্তায় পড়েছিলেন অনেকে। আরও পড়ুনঃ  রেমালের ‘খেল’ খতম! মঙ্গল থেকে ফের গরম দক্ষিণবঙ্গে, তাপপ্রবাহের সতর্কতা! সুন্দরবন এলাকার এক তৃণমূল নেতা বলেন, ‘একেবারে ভোটের আগে যদি বাঁধ ভেঙে বড় রকমের কোনও বিপর্যয় ঘটতো, তাহলে অনেক প্রশ্নের সম্মুখীন হতে হতো। কিন্তু তেমন কিছু না ঘটায় খানিকটা নিশ্চিন্ত’। এদিকে রায়মঙ্গল নদীবাঁধের পাশেই থাকে একাধিক পরিবার। বিনয় সর্দার, সতীশ সর্দার, যদু খামরুদের বাড়ি সেখানেই। প্রত্যেকের কাঁচা বাড়ি। সতীশ বলেন, ‘এই এলাকায় সারা বছরই বাঁধের অবস্থা খারাপ থাকে। রবিবার রাতে যখন জানতে পারলাম যে বাঁধ ভাঙেনি, তখন একটু স্বস্তি পেলাম’। তবে রেমালের থেকে রক্ষা পেলেও স্থানীয়রা জানিয়েছেন, এখানে দ্রুত কংক্রিটের বাঁধ তৈরি করা প্রয়োজন। এলাকাবাসীদের একাংশ জানান, গত কয়েক বছরে তালতলা থেকে গোপালের ঘাট অবধি বেশ কয়েক কিমি নদীবাঁধের পাশে কিছু অসাধু মানুষ অবৈধভাবে মাছের ভেড়ি বানিয়েছেন। যে কারণে বাঁধ দুর্বল হয়ে পড়েছে। এমনকি বাঁধে মাটি দিতে গেলে সেই মাটি পেতেও সমস্যা হয়। এই প্রসঙ্গে মণিপুর পঞ্চায়েতের তৃণমূল কংগ্রেস প্রধান প্রসেনজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় বলেন, ‘প্রায় ৩ কিমি রায়মঙ্গল নদীবাঁধ কংক্রিটের করার কাজ চলছে। এখনও প্রায় ৯ কিমি রায়মঙ্গল নদীবাঁধ কংক্রিটের করা দরকার’। তাঁর সংযোজন, বাঁধের পাশে কিছু অসাধু মানুষ অবৈধভাবে মাছ চাষ করছেন। যে কারণে বাঁধ দুর্বল হয়ে পড়ছে। এই বিষয়ে প্রশাসনিকভাবে যথাযথ পদক্ষেপ নেওয়া প্রয়োজন বলে মন্তব্য করেন প্রসেনজিৎ। সেচ দফতর সূত্রে জানা যাচ্ছে, বসিরহাট মহকুমার সন্দেশখালি, হিঙ্গলগঞ্জ, হাসনাবাদে যত নদীবাঁধ রয়েছে, তার মধ্যে মাত্র ৬% থেকে ৭% কংক্রিটের। বাকি সবগুলি মাটির। পরিবেশ সুভাষ দত্ত এই প্রসঙ্গে বলেন, কৃষিজমিতে মাছের চাষ করা একেবারেই বৈধ নয়। এর ফলে বাঁধ ক্ষতিগ্রস্ত হয়।

বাংলা হান্ট 28 May 2024 11:02 am

বিমানে বোমাতঙ্ক, ভয়ে ডানায় চেপে বসলেন যাত্রীরা! দিল্লি এয়ারপোর্টে ভয়ঙ্কর কাণ্ড

বাংলা হান্ট ডেস্ক: ফের একবার বিমানে বোমাতঙ্কের ঘটনায় পড়ে গিয়েছে তুমুল শোরগোল। গত ১৫ দিনের মধ্যে এই নিয়ে দ্বিতীয় বার এই একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঘটলো। জানা গিয়েছে, এদিন দিল্লি বিমানবন্দরে দিল্লী-বারাণসী (Delhi-Varanasi) 6E2211 ইন্ডিগো বিমানে (Indigo Flight) বোমাতঙ্ককে কেন্দ্র করে যাত্রীদের মধ্যে তৈরি হয় ব্যাপক উত্তেজনা। ঠিক বিমান ওড়ার আগের মুহূর্তেই কর্তৃপক্ষের কাছে আসে একটি উড়ো ফোন। সেই ফোনে জানানো হয় বিমানে নাকি বোমা রাখা আছে। বোমার কথা কানে আসা মাত্রই যাত্রীদের মধ্যে শুরু হয়ে যায় প্রচন্ড হুড়োহুড়ি। পরিস্থিতি সামাল দিতে এবং যাত্রীদের প্রাণ বাঁচাতে তড়িঘড়ি তাঁদের এমার্জেন্সি গেট দিয়ে নামিয়ে আনা হয়। কিন্তু এদিন যাত্রীদের মধ্যে এতটাই আতঙ্ক ছড়িয়ে গিয়েছিল যে ভয়ের চোটে অনেকেই বিমানের ডানাতেও চড়ে বসেছিলেন।  জানা গিয়েছে এদিন ওই বিমানে মোট  ১৭৬ জন যাত্রী ছিলেন। তাদের মধ্যে ছিল দুজন শিশু-ও। এদিন বোমাতঙ্কের খবর কানে আসা মাত্রই তড়িঘড়ি সেখানে গিয়ে পৌঁছায় বিভিন্ন এজেন্সি। তবে বিমানবন্দর সূত্রের খবর পুরো বিমানে  চিরুনি তল্লাশি চালিয়েও এদিন কিছুই মেলেনি।তবে আশ্চর্যের বিষয় সারা বিমান জুড়ে কিছু না মিললেও বিমানের শৌচাগারে একটু টিস্যু পেপারের লেখা ছিল ‘বম্ব’। দিল্লির বিমানবন্দরের  এই দিল্লি-বারাণসী বিমানের আগে ইতিপূর্বে, দিল্লী ভাদোদরা বিমানেও তৈরি হয়েছিল একই ধরনের বোমাতঙ্ক। আরও পড়ুন: লিলুয়ায় লাইনচ্যুত লোকাল ট্রেন! অফিস টাইমে ব্যাহত হাওড়া-বর্ধমান মেন লাইনের পরিষেবা তাই বারবার এই ধরনের ঘটনা উস্কে দিচ্ছে বেশ কিছু প্রশ্ন। অনেকেই মনে করছেন বড় কোনো নাশকতা ঘটনার আগে এইভাবে  ইঙ্গিত দেওয়া হচ্ছে না তো? তাই এই মুহূর্তে দেশের প্রতিটি বিমানের নিরাপত্তা আরও জোরদার করাই বাঞ্চনীয়।

বাংলা হান্ট 28 May 2024 10:51 am

রেমালের ‘খেল’ খতম! মঙ্গল থেকে ফের গরম দক্ষিণবঙ্গে, তাপপ্রবাহের সতর্কতা!

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ ‘রেমাল আসবে, রেমাল আসবে’ করে গত কয়েকটা দিন বেশ উৎকণ্ঠায় কেটেছে দক্ষিণবঙ্গবাসীর (South Bengal)। রবিবার থেকেই চোখে পড়েছিল এই ঘূর্ণিঝড়ের দাপট। সোমবার বিকেল অবধি চলেছে বৃষ্টি। তবে সন্ধ্যার পর থেকে আস্তে আস্তে আবহাওয়ার উন্নতি হয়েছে। মঙ্গল সকালে মেঘের পর্দা সরিয়ে দেখা গিয়েছে সূর্যের মুখ। এর মাঝেই সামনে এল আবহাওয়ার নতুন আপডেট (Weather Update)। রেমালের দাপটে দক্ষিণবঙ্গের তাপমাত্রা অনেকটাই কমেছে। টানা বৃষ্টি, ঝোড়ো হাওয়ার জেরে গত দু’দিন গরমের তেমন চোখ রাঙানি সহ্য করতে হয়নি। লাগাতার বৃষ্টিতে শহর কলকাতার (Kolkata) তাপমাত্রাও নিম্নমুখী। সোমবার যেমন তিলোত্তমার সর্বাধিক তাপমাত্রা ছিল ২৬.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা কিনা স্বাভাবিকের চেয়ে ৮.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস কম। তবে মঙ্গল থেকেই বদলে যাবে ‘খেলা’! রবিবার থেকে টানা বৃষ্টির জেরে দক্ষিণবঙ্গে গরমের তেমন দাপট দেখা যাচ্ছে না। তবে হাওয়া অফিসের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, আজ থেকে দক্ষিণবঙ্গে আর কোনও সতর্কতা থাকছে না। ফের একটু একটু বাড়তে থাকবে তাপমাত্রা পারদ। অর্থাৎ রেমাল সরতেই ফের গুটি গুটি পায়ে এগোতে শুরু করেছে গরম। আরও পড়ুনঃ  লিলুয়ায় লাইনচ্যুত লোকাল ট্রেন! অফিস টাইমে ব্যাহত হাওড়া-বর্ধমান মেন লাইনের পরিষেবা আবহাওয়ার ভাবগতিক বলছে, আবারও গরম বাড়তে চলেছে। আবহাওয়াবিদরা মনে করছেন, আগামী কয়েকদিনে ৩ থেকে ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস অবধি তাপমাত্রা বাড়তে পারে। অর্থাৎ রেমালের জন্য ঝড়-বৃষ্টি হয়ে গত কয়েকদিনে যে তাপমাত্রা কমেছে, তাঁর পুনরায় বাড়তে চলেছে। তাপমাত্রা বাড়লেও অবশ্য আজ কলকাতা সহ দক্ষিণবঙ্গের সকল জেলায় বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে। তবে গত দু’দিনের মতো ভারী বর্ষণ নয়, আজ হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টিপাত হতে পারে। সেই সঙ্গেই দোসর হতে পারে ঝোড়ো হাওয়া। আগামী শনিবার অবধি দক্ষিণের সকল জেলায় হালকা বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে। অন্যদিকে উত্তরে আবার আজ থেকে বর্ষণ বাড়তে চলেছে। উত্তরবঙ্গের তিন জেলায় সতর্কতা জারি করা হয়ছে। আলিপুরদুয়ার, জলপাইগুড়ি এবং কোচবিহারে অতি ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে। উত্তরের তিন জেলায় জারি করা হয়েছে কমলা সতর্কতা। অন্যদিকে কালিম্পং এবং দার্জিলিংয়ে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। আগামী বুধ, বৃহস্পতি এবং শুক্রবার আলিপুরদুয়ার, জলপাইগুড়ি এবং কোচবিহারে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।

বাংলা হান্ট 28 May 2024 10:28 am

লিলুয়ায় লাইনচ্যুত লোকাল ট্রেন! অফিস টাইমে ব্যাহত হাওড়া-বর্ধমান মেন লাইনের পরিষেবা

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ সকাল হতেই রেল স্টেশনগুলিতে (Indian Railway) শুরু হয়ে যায় যাত্রীদের আনাগোনা। অফিস টাইমে তো স্টেশনগুলি রীতিমতো গমগম করে। এমতাবস্থায় যদি ট্রেন পরিষেবা ব্যাহত হয় তাহলে ভোগান্তির মুখে পড়তে হয় অগুনতি মানুষকে। মঙ্গলবার এমনটাই ঘটেছে। অফিসের ব্যস্ত সময়ে লোকাল ট্রেন (Local Train) পরিষেবা ব্যাহত হয়ে পড়ে। যে কারণে সমস্যায় পড়তে হয়েছে যাত্রীদের। এদিন পূর্ব রেলের (Eastern Railway) হাওড়া ডিভিশনে লিলুয়ার (Liluah) কাছে একটি লোকাল ট্রেন লাইনচ্যুত হয়ে যায়। যে কারণে হাওড়া-বর্ধমান মেন লাইনে ট্রেন চলাচল ব্যাহত হয়। আপাতত আপ লাইন ধরে আস্তে আস্তে ট্রেন এগোলেও, ডাউন লাইনে বহুক্ষণ ধরে ট্রেন চলছে না। হাওড়াগামী (Howrah) লোকাল ট্রেন না চলায় সমস্যার মুখে পড়েছেন অগুনতি যাত্রী। পূর্ব রেল সূত্রে জানা যাচ্ছে, আজ সকালে শেওড়াফুলি থেকে একটি খালি লোকাল ট্রেন হাওড়ার উদ্দেশে রওনা দেয়। হাওড়ার ঠিক আগের স্টেশন তথা লিলুয়ার কাছে ওই ট্রেনটির ডাউন মেন লাইন থেকে রিভার্স লাইনে ওঠার কথা ছিল। তবে সেটি লাইনচ্যুত হয়ে যায়। সকাল ৭:১০ নাগাদ ঘটনাটি ঘটেছে বলে খবর। আরও পড়ুনঃ  যাদবপুরে প্রার্থী বাছাইয়ে ভুল? বোমা ফাটান মমতা, ভোটের মধ্যেই মুখ খুললেন সায়নী, তোলপাড়! এদিকে ট্রেন লাইনচ্যুত হয়ে যাওয়ার দরুন ডাউন লাইনে ট্রেন পরিষেবা থমকে যায়। পরপর নানান স্টেশনে একাধিক ট্রেন দাঁড়িয়ে যায়। বর্ধমান-হাওড়া, ব্যান্ডেল-হাওড়া শাখার একাধিক ট্রেন নানান স্টেশনে দাঁড়িয়ে পড়ে। যে কারণে ভোগান্তির মুখে পড়তে হয় যাত্রীদের। রেলের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, ইতিমধ্যেই একটি ‘অ্যাক্সিডেন্ট রিলিফ ট্রেন’ ঘটনাস্থলে এসেছে। রেলওয়ে কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে দ্রুত পরিস্থিতি স্বাভাবিক করার চেষ্টা করার আশ্বাস দেওয়া হয়েছে। এই বিষয়ে পূর্ব রেলের মুখ্য জনসংযোগ আধিকারিক কৌশিক মিত্র বলেন, ‘দ্রুত পরিষেবা ফের স্বাভাবিক করার কাজ চলছে। কেন লোকাল ট্রেনটি লাইনচ্যুত হল, তা তদন্ত করে দেখা হবে। রেলকর্মী এবং যাত্রীদের সুরক্ষা সবসময় অগ্রাধিকার পেয়ে এসেছে। সেই জন্য আমাদের যা যা দরকার, আমরা সব করব’।

বাংলা হান্ট 28 May 2024 9:41 am

Gangtok To Nathu La : গ্যাংটক থেকে নাথু লা যেতে কত খরচে মিলবে পারমিট? গাড়িভাড়া কত? ট্যুর প্ল্যানের আগে জানুন খুঁটিনাটি

সিকিম বেড়ানোর প্ল্যান করে ফেলেছেন? গ্যাংটকে নেমেই সোজা নাথু লা রওনা দেবেন ভাবছেন? সরকারের তরফে নির্ধারিত গাড়িভাড়া অনুযায়ী এবার নাথু লা বেড়াতে যেতে কত খসবে পর্যটকদের। ট্রাভেল এজেন্সির মাধ্যমে পারমিট বুক করতে গেলে কী করতে হবে? কোন কোন নথি না থাকলে গ্যাংটক থেকে নাথু লা যাওয়া সম্ভব নয়? জেনে নিন খুঁটিনাটি তথ্য

এ ই সময় 28 May 2024 9:02 am

Pune Porsche Case: ৩ লাখ টাকার বিনিময়ে নাবালকের রক্তের নমুনা বদল! পুনে পোর্শেকাণ্ডে পরতে পরতে চাঞ্চল্যকর তথ্য়

পুনের পোর্শে কাণ্ডে গ্রেফতার করা হয়েছে হাসপাতালের ফরেন্সিক বিভাগের প্রধানকে। অভিযুক্ত নাবালক চালককে নির্দোষ প্রমাণ করতে রক্তের নমুনাই বদলে দেওয়ার অভিযোগ রয়েছে তাঁর বিরুদ্ধে। এমনকী একই অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়েছে আরও এক চিকিৎসককেও। এছাড়াও এক পিওনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। পিওন মিডলম্যান হিসেবে কাজ করেছিলেন। এবার প্রকাশ্যে আরও চাঞ্চল্যকর তথ্য। মোটা টাকার বিনিময়ে রক্তের নমুনা বদল করে দেওয়া হয়।

এ ই সময় 28 May 2024 8:57 am

CM Mamata Banerjee : পয়লা জুন ‘ইন্ডিয়া’ বৈঠকে থাকছেন না তৃণমূলনেত্রী

লোকসভা ভোটের ফল ঘোষণার আগেই পয়লা জুন দিল্লিতে বৈঠক ডেকেছে ‘ইন্ডিয়া’ জোটের শরিক দলগুলির। ডিএমকে সুপ্রিমো বিরোধী শিবিরের সবক’টি দলের শীর্ষ নেতৃত্বকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল। ‘ইন্ডিয়া’ শিবিরের মিটিংএর দিনই লোকসভার ভোটগ্রহণের শেষ দিন। ওই দিন রাজ্যের ৯টি লোকসভা কেন্দ্রে ভোট রয়েছে। এই কারণে বৈঠকে থাকতে পারছেন না। সোমবার স্পষ্ট জানালেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

এ ই সময় 28 May 2024 8:29 am

রেমাল সরলেও সপ্তাহভর দুর্যোগের পূর্বাভাস! তুমুল বৃষ্টির সম্ভাবনা এই ৫ জেলায়ঃ আবহাওয়ার খবর

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ রবিবার থেকে ঘূর্ণিঝড় রেমালের দাপট দেখেছে দক্ষিণবঙ্গ (South Bengal)। সোমবার বিকেল অবধি চলেছে বৃষ্টি। তবে সন্ধ্যার পর বৃষ্টি ও ঝোড়ো হাওয়া দুই-ই বন্ধ হয়। রেমালের (Cyclone Remal) প্রভাব আস্তে আস্তে কমতে শুরু করে। হাওয়া অফিস জানাচ্ছে, মঙ্গলবার থেকে আবহাওয়ার উন্নতি হবে। আজ কেমন থাকবে রাজ্যের আবহাওয়া (Weather Update), চলুন দেখে নেওয়া যাক। সোমবার রাতেই প্রবল ঘূর্ণিঝড় থেকে গভীর নিম্নচাপে পরিণত হয়েছে রেমাল। ক্রমেই এখন পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশের ওপর দিয়ে উত্তর এবং উত্তর- পূর্ব দিয়ে এগিয়ে চলেছে সেটি। রেমাল যেহেতু এখন অনেকটাই দূরে সরে গিয়েছে তাই আজ দক্ষিণবঙ্গের কোনও জেলাতেই ভারী বর্ষণের সম্ভাবনা (Rain Forecast) নেই। তবে উত্তরবঙ্গের জেলাগুলিতে আগামী কয়েকদিন ঝড়বৃষ্টি হতে পারে। আলিপুর আবহাওয়া দফতর (Alipore Weather Office) জানাচ্ছে, আজ কলকাতা সহ দক্ষিণবঙ্গের সকল জেলায় বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। তবে গত দু’দিনের মতো ভারী বর্ষণ নয়, আজ হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টিপাত হতে পারে দক্ষিণে। বৃষ্টির সঙ্গে ঝোড়ো হাওয়াও বইতে পারে। তবে কোথাও কোনও সতর্কতা জারি করা হয়নি। আগামী শনিবার অবধি দক্ষিণের সকল জেলায় হালকা বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে। আরও পড়ুনঃ  আয়লা থেকে রেমাল কেন মে মাসেই আসে সব ঘূর্ণিঝড়? ৯৯% মানুষই জানেন না আসল কারণ সপ্তাহান্তের দিন তথা রবিবারও দক্ষিণবঙ্গের সকল জেলায় হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টিপাত হতে পারে। সেই সঙ্গেই দোসর হতে পারে ঝোড়ো হাওয়া। আজ থেকে দক্ষিণবঙ্গের সকল জেলার তাপমাত্রা ৩-৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস বাড়তে পারে। অন্যদিকে দক্ষিণবঙ্গে বৃষ্টির পরিমাণ খানিক কমলেও আজ থেকে উত্তরবঙ্গে বর্ষণ বাড়তে চলেছে। আজ উত্তরের তিন জেলায় কমলা সতর্কতা জারি করা হয়েছে। আজ ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে জলপাইগুড়ি, কোচবিহার এবং আলিপুরদুয়ারে। অন্যদিকে কালিম্পং এবং দার্জিলিংয়ে ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে। আগামী বুধ, বৃহস্পতি এবং শুক্রবার আলিপুরদুয়ার, জলপাইগুড়ি এবং কোচবিহারে ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। এদিকে রেমাল ক্রমশ সরতে থাকলেও আগামী কয়েকদিন কলকাতায় বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। আজ তিলোত্তমায় বজ্রবিদ্যুৎ সহ হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টিপাত হতে পারে। শনিবার অবধি বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে মহানগরীতে। তবে আজ বৃষ্টি হলেও কলকাতার তাপমাত্রা বৃদ্ধি পাবে। হাওয়া অফিস জানাচ্ছে, আজ থেকে আস্তে আস্তে মহানগরীর তাপমাত্রা ৩-৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস বাড়বে।

বাংলা হান্ট 28 May 2024 8:21 am

আজকের রাশিফল ২৮ মে, পারিবারিক জীবন সুখের হবে এই চার রাশির

বাংলা হান্ট ডেস্ক: আজকের রাশিফল (Ajker Rashifal)-এর ওপর চোখ রেখে শুরু করুন আপনার দিন। রাশিফল হল জ্যোতিষ শাস্ত্রের একটি অন্যতম অঙ্গ। বহু মানুষ রাশিফলের দিকে নজর রেখেই পদক্ষেপ নেন জীবনে। কারণ, রাশিফলই আপনাকে জানিয়ে দিতে পারে গোটা দিনের এক সামগ্রিক ছবি। পাশাপাশি, জীবনে চলার প্রতিটি পদক্ষেপে আপনার ভাগ্যের চাকা কোন দিকে ঘুরছে সে সম্পর্কেও আঁচ পেতে পারেন আপনি। এছাড়াও, সতর্ক হওয়া যায় আসন্ন বিপদ থেকেও। তাই, জেনে নিন কেমন যাবে আপনার দিনটি: মেষ রাশি: আপনার মনোমুগ্ধকর আচরণ আজ খুব সহজে সবাইকে আকৃষ্ট করবে। কাউকে প্রভাবিত করার জন্য আজ অত্যধিক খরচ করবেন না। আপনার মধ্যে আজ ভরপুর আত্মবিশ্বাস বজায় থাকবে। নতুন কোনো পরিকল্পনা অথবা প্রকল্প বাস্তবায়নের পক্ষে এই দিনটি অবশ্যই ভালো। আজকে আপনি সেইসব কাজ বেশি করে করবেন যেগুলি ছোটবেলায় করতে পছন্দ করতেন। নতুন কোনো পারিবারিক দায়িত্বের কারণে আজ আপনার মনে উত্তেজনার সৃষ্টি হবে। জীবনসঙ্গীর সাথে দিনটি ভালোভাবে কাটবে। প্রতিকার: আর্থিক দিক থেকে উন্নতির লক্ষ্যে “ওম নীলবর্ণায়ে বিদ্যাহে সহিকেয়ায় ধিমহি তন্ন রাহু প্রচোদয়া”-এই মন্ত্রটি প্রতিদিন ১১ বার জপ করুন। বৃষ রাশি: পরিবারের সদস্য এবং বন্ধুদের সাথে আজকের দিনটি দুর্দান্তভাবে অতিবাহিত হবে। এই রাশির ব্যবসায়ীদের জন্য আজকের দিনটি নিঃসন্দেহে ভালো। কারণ, তাঁরা বিপুল লাভের সম্মুখীন হতে পারেন। প্রত্যেকের সাথে আর ঠান্ডা মাথায় কথা বলুন। আজ আপনার আত্মবিশ্বাস বৃদ্ধি পাবে এবং অগ্রগতি স্পষ্ট হয়ে উঠবে। আপনার কাছে আজ কিছুটা অবসর সময় থাকবে। যদিও, সেই সময়ে আপনি কোনো খারাপ কাজে যুক্ত হয়ে যেতে পারেন। বিবাহিত জীবনে কোনো সমস্যার সম্মুখীন হলে নিজেরাই তা মিটিয়ে ফেলার চেষ্টা করুন। প্রতিকার: প্রেমের জীবন সুখকর করে তুলতে আপনার ভালোবাসার মানুষটিকে ঝিনুক, মুক্তো অথবা শাঁখের তৈরি জিনিস উপহার দিন। মিথুন রাশি: আর্থিক দিক থেকে আজ আপনাকে সতর্ক থাকতে হবে। পাশাপাশি, যদি আপনি কারোর কাছ থেকে ঋণ নিয়ে থাকেন সেক্ষেত্রে আজ সেটি আপনাকে ফেরত দিতে হবে। পরিবারের সদস্যদের সাথে ঠান্ডা মাথায় কথা বলুন। সামগ্রিকভাবে আজকের দিনটি অত্যন্ত ব্যস্ততার মধ্যে অতিবাহিত হওয়ায় আপনি শরীরচর্চা করতে পারবেন না। বাড়ির কোনো চিন্তা আজ আপনার মানসিক চাপ বাড়িয়ে দিতে পারে। বিবাহিত জীবন সুখের হবে। প্রতিকার: শারীরিক দিক থেকে সুস্থ থাকার লক্ষ্যে কপালে জাফরানের তিলক লাগান। কর্কট রাশি: আর্থিক দিক থেকে আজকের দিনটি অবশ্যই ভালো। সন্তানের জন্য কিছু বিশেষ পরিকল্পনা করার লক্ষ্যে এই দিনটি খুব একটা খারাপ নয়। আজকে শুরু হওয়া কোনো নির্মাণ কাজ সঠিকভাবে সম্পন্ন হবে। প্রতিটি কাজ আজ আত্মবিশ্বাসের সাথে করলে আপনি লাভবান হবেন। সামগ্রিকভাবে দিনটি খুব একটা খারাপ কাটবে না। আজকের দিনটি আপনার বিবাহিত জীবনের পরিপ্রেক্ষিতে অন্যতম শ্রেষ্ঠ দিন হিসেবে বিবেচিত হবে। প্রতিকার: পারিবারিক জীবনে সুখ এবং শান্তি বজায় রাখার জন্য ভগবান কৃষ্ণের পুজো করুন। সিংহ রাশি: আপনি আজ আর্থিক লেনদেন এবং অর্থ সঞ্চয় সম্পর্কে কিছু গুরুত্বপূর্ণ দক্ষতা শিখতে পারেন। যেগুলিকে সঠিকভাবে কাজে লাগিয়ে আপনার লাভবান হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। আজ সেইসব কাজগুলি বেশি করে করুন যেগুলি আপনাকে মানসিক দিক থেকে চাপমুক্ত রাখবে। আপনার কাছে আজ কিছুটা অবসর সময় থাকবে। সেই সময়ে আপনি একটি বই পড়তে পারেন। প্রেমের জীবনে আজ আপনাকে সতর্ক থাকতে হবে। জীবনসঙ্গীর সাথে দিনটি ভালোভাবে কাটবে। প্রতিকার: পারিবারিক জীবনে সুখ এবং শান্তি বজায় রাখার লক্ষ্যে স্নানের জলে কুশ বা পবিত্র ঘাস রাখুন। কন্যা রাশি: প্রতিটি কাজ আজ আত্মবিশ্বাসের সাথে করলে আপনার লাভবান হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। কোনো কাজে কাঙ্ক্ষিত সাফল্য অর্জনের জন্য ধৈর্য বজায় রাখুন। এই রাশির কিছু ব্যবসায়ী অভিজ্ঞ ব্যক্তিদের কাছ থেকে পরামর্শ নিয়ে ব্যবসায়িক ক্ষেত্রে কিছু পদক্ষেপ গ্রহণ করতে পারেন। যার ফলে তাঁরা লাভবান হবেন। আপনার উদ্বেগহীন মনোভাব আজ বাবা-মায়ের চিন্তা বৃদ্ধি করতে পারে। তাই, নিজেকে নিয়ন্ত্রণ করার চেষ্টা করুন। পাশাপাশি, কোনো নতুন প্রকল্প শুরু করার আগে বাবা-মায়ের কাছ থেকে পরামর্শ গ্রহণ করুন। কর্মক্ষেত্রে প্রতিটি কাজ সর্তকতার সাথে করতে হবে। বিবাহিত জীবনে কোনো সমস্যার সম্মুখীন হলে নিজেরাই তা মিটিয়ে ফেলার চেষ্টা করুন। প্রতিকার: প্রেমের জীবন সুখকর করে তুলতে অভাবী ব্যক্তিদের মধ্যে ছোলা বিতরণ করুন। তুলা রাশি: আপনার রসিক মনোভাব আজ খুব সহজেই সবাইকে আকৃষ্ট করবে। আর্থিক দিক থেকে আজকের দিনটি অবশ্যই ভালো। আপনি আজ কোনো অপ্রত্যাশিত জায়গা থেকে আমন্ত্রণ পেতে পারেন। সহকর্মী এবং আত্মীয়দের কাছ থেকে আজ আপনি কিছু গুরুত্বপূর্ণ সাহায্য পাবেন। প্রেমের জীবনে আজ আপনাকে সতর্ক থাকতে হবে। সেইসব ব্যক্তিদের থেকে দূরে থাকুন যাঁরা আপনার সুনাম নষ্ট করে দিতে পারেন। বিবাহিত জীবন সুখের হবে। প্রতিকার: প্রেমের সম্পর্ক সুখকর করে তুলতে ভগবান শিব এবং হনুমান মন্দিরে ভোগ অর্পণ করুন। বৃশ্চিক রাশি: আপনার মধ্যে আজ ভরপুর আত্মবিশ্বাস বজায় থাকবে। তাই, এই দিনটিকে সঠিকভাবে কাজে লাগান। আর্থিক দিক থেকে আজ আপনি কোনো সমস্যার সম্মুখীন হলেও আপনার অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগিয়ে বিষয়টি সমাধান করে ফেলতে পারবেন। প্রত্যেকের সাথে আজ ঠান্ডা মাথায় কথা বলুন। কর্মক্ষেত্রে দিনটি দুর্দান্তভাবে অতিবাহিত হবে। প্রেমের জন্য এই দিনটি খুব একটা খারাপ নয়। প্রতিকার: পারিবারিক জীবনে সুখ এবং শান্তি বজায় রাখার লক্ষ্যে তামার পাত্রে অথবা সম্ভব হলে সোনার পাত্রে জল রেখে সেটি পান করুন। ধনু রাশি: দীর্ঘস্থায়ী লাভের জন্য আপনি কোনো শেয়ারে অথবা মিউচুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগ করতে পারেন। কর্মক্ষেত্রে অতিরিক্ত চাপ এবং বাড়িতে চলা কোনো বিরোধের কারণে আজ আপনার মেজাজ খিটখিটে হয়ে উঠতে পারে। শিশুদের সাথে আজ কিছুটা সময় কাটান। এর ফলে আপনার মন ভালো হয়ে যাবে। অতীতের ব্যর্থতাকে পেছনে ফেলে সামনের দিকে এগিয়ে যান। প্রতিটি কাজ আজ আত্মবিশ্বাসের সাথে করলে আপনার লাভবান হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। ব্যবসায়ীদের আজ প্রতিটি পদক্ষেপ অত্যন্ত সতর্কতার সাথে গ্রহণ করতে হবে। বিবাহিত জীবন সুখের হবে। প্রতিকার: কর্মক্ষেত্রে অগ্রগতির লক্ষ্যে সূর্যের আলোয় লাল বা মেরুন রঙের কাঁচের বোতলে জল রেখে সেই জল স্থানের জলের সাথে মিশিয়ে স্নান করুন। আরও পড়ুন:  Chanakya Niti: এই ৫ টি কথা স্ত্রী-রা কখনও জানতে দেন না স্বামীদের! সবসময় লুকিয়ে রাখেন তাঁদের কাছ থেকে মকর রাশি: মন থেকে সমস্ত নেতিবাচক চিন্তাকে দূরে সরিয়ে রাখুন। আবেগপ্রবণ হয়ে আজ কোনো কাজ করবেন না। আপনার রসিক মনোভাব খুব সহজেই সবাইকে আকৃষ্ট করবে। প্রেমের জন্য এই দিনটি খুব একটা খারাপ নয়। শরীর এবং মনকে সুস্থ রাখার জন্য নিয়মিতভাবে ধ্যান ও যোগ ব্যায়াম করুন। এর ফলে আপনার আত্মবিশ্বাস বৃদ্ধি পাবে। বিবাহিত জীবনে সুখ এবং শান্তি বজায় থাকবে। প্রতিকার: আর্থিক দিক থেকে উন্নতির লক্ষ্যে একজন অভাবী মহিলাকে দুধের প্যাকেট দান করুন। আরও পড়ুন:  এই অক্ষরগুলি দিয়ে নাম শুরু হলেই জীবনে মিলবে বড় সাফল্য! দু’হাতে আসবে টাকা, কি বলছে জ্যোতিষশাস্ত্র? কুম্ভ রাশি: এই রাশির যাঁরা দুগ্ধ শিল্পের সাথে যুক্ত রয়েছেন তাঁদের জন্য এই দিনটি নিঃসন্দেহে ভালো। কারণ, তাঁরা আর্থিকভাবে লাভবান হতে পারবেন। আপনার যদি কোথাও দীর্ঘ সফরের সম্ভাবনা থাকে সেক্ষেত্রে শরীরকে সেভাবে তৈরি করুন। সামগ্রিকভাবে আজকের দিনটি অত্যন্ত ব্যস্ততার মধ্যে কাটলেও আপনি ক্লান্ত হয়ে পড়বেন না। কোনো কাজে আজ আপনি বন্ধুদের কাছ থেকে সাহায্য পাবেন না। কোনো অংশীদারিত্বে অংশগ্রহণ করার আগে সেই বিষয়ে সমস্ত তথ্য ভালোভাবে জেনে নেওয়ার চেষ্টা করুন। বিবাহিত জীবনে আজ আপনি একটি চমকের সম্মুখীন হবেন। প্রতিকার:  পারিবারিক জীবনের সুখ এবং শান্তি বজায় রাখার লক্ষ্যে প্রতিদিন শিবলিঙ্গে জল দিন। মীন রাশি: আপনার মনোমুগ্ধকর ব্যক্তিত্ব আজ খুব সহজেই সবাইকে আকৃষ্ট করবে। আজ সেইসব বন্ধুদের থেকে দূরে থাকুন যাঁরা অর্থ ধার নিয়ে আর তা ফেরত দেন না। আপনি আজ একজন বয়স্ক আত্মীয়ের কাছ থেকে আশীর্বাদ পাবেন। আপনার নির্ভীক মনোভাব আজ অন্যদের থেকে আপনাকে এগিয়ে রাখবে। প্রেমের জন্য এই দিনটি নিঃসন্দেহে ভালো। মনে রাখবেন, আমাদের জীবনে সময় হল অত্যন্ত মূল্যবান। তাই, অযথা সময় নষ্ট করা থেকে বিরত থাকুন। অর্ধাঙ্গিনীর সাথে দিনটি দুর্দান্তভাবে অতিবাহিত হবে। প্রতিকার : আর্থিক দিক থেকে উন্নতির লক্ষ্যে অভাবী ব্যক্তিদের মধ্যে তন্দুরি রুটি বিতরণ করুন।

বাংলা হান্ট 28 May 2024 12:01 am

হয়ে যান সতর্ক! এবার ICICI সহ এই ব্যাঙ্কের ওপর ১.৯১ কোটির জরিমানা RBI-র, আপনার অ্যাকাউন্ট নেই তো?

বাংলা হান্ট ডেস্ক: এবার ফের কড়া অ্যাকশন RBI (Reserve Bank Of India)-র। এই প্রসঙ্গে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী জানা গিয়েছে যে, দু’টি বড় বেসরকারি ব্যাঙ্কের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়েছে ভারতীয় রিজার্ভ ব্যাঙ্ক। এমতাবস্থায় ওই ব্যাঙ্কগুলির বিরুদ্ধে ১.৯১ কোটি টাকা জরিমানা করা হয়েছে। এদিকে, ওই ব্যাঙ্কগুলির মধ্যে রয়েছে Yes ব্যাঙ্ক এবং ICICI ব্যাঙ্ক। মূলত, কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্কের নির্দেশ না মানা এবং অভ্যন্তরীণ/অফিস অ্যাকাউন্টের অনুমোদন ছাড়াই পরিচালনার কারণে এই জরিমানা আরোপ করা হয়েছে। পাশাপাশি, ১৯৪৯ সালের ব্যাঙ্কিং রেগুলেশন অ্যাক্টের অধীনে এই ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। RBI দেখেছে যে, এই দু’টি ব্যাঙ্কই কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্কের নির্দেশ মানছে না। এমতাবস্থায়, এই জরিমানা ব্যাঙ্কিং শিল্পে নিয়ন্ত্রক নির্দেশিকা পালন এবং মেনে চলার গুরুত্বকে নির্দেশ করে। ICICI ব্যাঙ্কের জরিমানার পরিমাণ: জানিয়ে রাখি যে, ভারতীয় রিজার্ভ ব্যাঙ্ক গত ২১ মে কিছু নির্দেশ অনুসরণ না করার জন্য ICICI ব্যাঙ্ক লিমিটেডের ওপর ১ কোটি টাকা জরিমানা আরোপ করেছে। এই প্রসঙ্গে RBI একটি বিবৃতির মাধ্যমে জানিয়েছে যে, “ব্যাঙ্কিং রেগুলেশন অ্যাক্ট, ১৯৪৯-এর ধারা ৪৬(৪)(i)-এর সাথে ধারা ৪৭A(১)(c)-এর বিধানের অধীনে RBI-তে অর্পিত ক্ষমতা প্রয়োগের মাধ্যমে এই শাস্তি আরোপ করা হয়েছে।” আরও পড়ুন:  আম্বানির বড় পদক্ষেপ! ভারতের পাশাপাশি এই দেশে বাজবে Reliance Jio-র ডঙ্কা, সম্পন্ন হল চুক্তি Yes ব্যাঙ্কের জরিমানার পরিমাণ: ভারতীয় রিজার্ভ ব্যাঙ্ক গত ১৭ মে তারিখে একটি বিবৃতিতে জানিয়েছে, “গ্রাহক পরিষেবা এবং অভ্যন্তরীণ/অফিসের অনুমোদন ছাড়াই পরিচালনার নির্দেশ মেনে না চলার জন্য ইয়েস ব্যাঙ্ক লিমিটেডকে ৯১ লক্ষ টাকা জরিমানা আরোপ করা হয়েছে।” RBI জানিয়েছে, “ব্যাঙ্কিং রেগুলেশন অ্যাক্ট, ১৯৪৯-এর ধারা ৪৬(৪)(i) সহ ৪৭A(১)(c)-এর বিধানের অধীনে RBI-এ অর্পিত ক্ষমতা প্রয়োগের মাধ্যমে এই জরিমানা আরোপ করা হয়েছে।” আরও পড়ুন:  “T20 বিশ্বকাপে টিম ইন্ডিয়ার পরিবর্তে….”, KKR চ্যাম্পিয়ন হতেই বড় প্রতিক্রিয়া দিলেন সৌরভ দু’টি ব্যাঙ্কই সম্প্রতি সমস্যার সম্মুখীন হয়েছে: প্রসঙ্গত উল্লেখ্য যে, ICICI ব্যাঙ্ক এবং Yes ব্যাঙ্ক উভয়ই ভারতের অন্যতম প্রধান বেসরকারি ব্যাঙ্ক। কিন্তু, সাম্প্রতিক সময়ে এই দু’টি ব্যাঙ্ক কিছু চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন হয়। যেখানে ICICI ব্যাঙ্ক নন-পারফর্মিং লোন (NPA), গভর্নেন্স সংক্রান্ত উদ্বেগ এবং প্রযুক্তিগত ত্রুটির সম্মুখীন হয়েছে। পাশাপাশি, Yes ব্যাঙ্ক আর্থিক সঙ্কট এবং গ্রাহক হারানোর মতো সমস্যার মুখোমুখি হয়েছে। যদিও, এই দুই ব্যাঙ্কের তরফে এই চ্যালেঞ্জগুলি কাটিয়ে উঠতে বেশ কিছু পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে।

বাংলা হান্ট 27 May 2024 10:30 pm

Fact Check : কংগ্রেসের প্রশংসা করেছেন মোহন ভগবত? ভাইরাল ভিডিয়োর সত্যতা যাচাই

কিছুদিন ধরে বেশ কয়েকজন সোশ্যাল মিডিয়া ইউজার RSS প্রধান মোহন ভগবতের একটি ভিডিয়ো শেয়ার করে দাবি করছেন যে ভারতের স্বাধীনতা আন্দোলনে অবদানের জন্য কংগ্রেসের প্রশংসা করেছেন তিনি। সেই দাবির সত্যতা যাচাই করতে গিয়ে পিটিআই ফ্যাক্ট চেক টিম দেখে যে সোশ্যাল মিডিয়া পোস্টগুলিতে শেয়ার করা ভিডিয়ো ক্লিপংটি আসলে ২০১৮ সালের একটি ভিডিয়োর অংশ।

এ ই সময় 27 May 2024 10:20 pm

অনর্গল বলছে ৮০টি কবিতা,৩ বছর হওয়ার আগেই ইন্ডিয়া বুক অফ রেকর্ডে নাম উঠল বাংলার এই শিশুকন্যার

বাংলা হান্ট ডেস্ক: বয়স এখনো ৩-ও পেরোয়নি। তার আগেই এতটুকু বয়সেই বাংলার এক ছোট্ট শিশু কন্যার মুকুটে জুড়লো এক বিরাট পালক। এখন তাঁর বয়স মাত্র দু’বছর ১১ মাস। আর এইটুকু বয়সেই ইন্ডিয়া বুক অফ রেকর্ডসে (India Book of Records)নাম উঠলো কান্দির শ্রীকৃষ্ণপুর গ্রামের শিশুকন্যা ঋতু সরকারের। এতটুকু বয়সের বিস্ময়কর এই শিশু যেন জ্ঞানের ভান্ডার। এই বয়স থেকেই খুব অল্প সময়ের মধ্যে সে বাংলা, হিন্দি এবং  ইংরেজি ভাষায় মোট ৮০ টি  কবিতা বলতে পারে। এছাড়াও মোট ৮০টি সাধারণ জ্ঞানের উত্তরসহ ৩০ ধরণের শাক সবজি, ৩৫ ধরনের ফলের নামও একেবারে ঠোঁটের গোড়ায় থাকে তাঁর। শুধু তাই নয়, কেউ বললে এগুলি সে হাতেও লিখে দেখিয়ে দিতে পারবে। এছাড়া ৪০ ধরণের গাড়ির নাম, ৪৫টি ফুলের নাম, ৩৬টি পশু ও ৩০টি পাখির নাম-সহ বিভিন্ন বিষয়ে বলতে গিয়ে একটু আটকায় না এই শিশু। সাধারণত এই বয়সে অধিকাংশ শিশুরই মুখের বুলি ঠিক করে ফোটে না। কিন্তু এই বয়সেই একাধিক বিষয়ে জ্ঞান আহরণ করে ইতিমধ্যে সে জায়গা করে নিয়েছে ইন্ডিয়া বুক অফ রেকর্ডে। আর বাড়ির এই খুদে সদস্যের সাফল্যে বেজায় খুশি তার পরিবারের সদস্যরাও। জানা গিয়েছে ঋতুর বাবা রাজু সরকার পেশায় একজন বিএসএফ জওয়ান। বর্তমানে কাশ্মীরে পোস্টিং রয়েছে তাঁর। ঋতুর মা মধুশ্রী মোদক সরকার সারাক্ষণ মেয়ের পিছনে ব্যস্ত। মেয়ের এই সাফল্যে তিনি জানিয়েছেন, ‘মেয়ের পারদর্শিতায় আমরা চরম খুশি। আগামীতে আরও বড় কিছু করে দেখানোর জন্য মেয়েকে সেভাবেই তৈরি করছি’। আরও পড়ুন: আয়লা থেকে রেমাল কেন মে মাসেই আসে সব ঘূর্ণিঝড়? ৯৯% মানুষই জানেন না আসল কারণ খুদে ঋতু প্রকৃত অর্থেই এই বয়স থেকে জ্ঞানের ভান্ডার। এখনই ছবি দেখেই সে ৩০টি প্রাণীর নাম বলতে পারে। টি বছর হওয়ার আগে থেকেই একাধিক দক্ষতার অধিকারী সে। প্রতিভাবান ওই শিশুর সাফল্যে উচ্ছাসিত তাঁর পরিবারের লোকজন জানিয়েছেন, ‘ও ছোট বলে কিছু জানবে না, এটা না ভেবে ওর সঙ্গে গল্প করতাম, বিভিন্ন জিনিস চেনাতাম। তাই আজকে সাফল্য এল।এটা আমাদের অনেক দিনের স্বপ্ন ছিল মেয়েকে নিয়ে। সেই স্বপ্ন পূরণ হল। আমরাও খুব খুশি।’

বাংলা হান্ট 27 May 2024 10:11 pm

আম্বানির বড় পদক্ষেপ! ভারতের পাশাপাশি এই দেশে বাজবে Reliance Jio-র ডঙ্কা, সম্পন্ন হল চুক্তি

বাংলা হান্ট ডেস্ক: এবার একটি অত্যন্ত বড় আপডেট সামনে এসেছে। এই প্রসঙ্গে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী জানা গিয়েছে যে, রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের (Reliance Industries Limited, RIL) প্রধান মুকেশ আম্বানির (Mukesh Ambani) সংস্থা Reliance Jio এখন ভারতে (India) আধিপত্য বিস্তার করে আফ্রিকার (Africa) বাজারে প্রবেশ করতে চলেছে। মূলত, আফ্রিকার দেশ ঘানা 4G এবং 5G পরিকাঠামো স্থাপনের জন্য Reliance Jio-র সহযোগী সংস্থা, Tech Mahindra এবং অন্যান্য ভেন্ডারদের সাথে একটি চুক্তি স্বাক্ষর করেছে। রিপোর্ট অনুসারে, এই মোট চুক্তির মূল্য ২০ কোটি ডলারের বেশি। ঘানার পরিকল্পনা: এই প্রসঙ্গে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী জানা গিয়েছে যে, ঘানা এখন তার টেলিকম ক্ষমতার আরও ভালো ব্যবহার করতে চায়। পাবলিক সেক্টরের নেক্সট-জেন ইনফ্রাস্ট্রাকচার কোম্পানি (NGIC) Reliance Jio-র সহযোগী সংস্থা Radisys, Tech Mahindra এবং Nokia-র সাথে অংশীদারিত্ব করেছে। এর উদ্দেশ্য হল দেশে সাশ্রয়ী মূল্যের 5G মোবাইল ব্রডব্যান্ড পরিষেবার জন্য প্রয়োজনীয় পরিকাঠামো তৈরি করা। এদিকে, NGIC-কে 5G স্পেকট্রাম বরাদ্দ করা হয়েছে এবং স্থানীয় টেলিকম কোম্পানিগুলি আগামী ছয় মাসের মধ্যে পরিষেবা চালু করার জন্য শেয়ার্ড পরিকাঠামো ব্যবহার করবে। রিপোর্ট অনুসারে, এই চুক্তির মোট মূল্য ২০ কোটি ডলারেরও বেশি। ঘানা ভারতের প্রশংসা করেছে: পশ্চিম আফ্রিকার এই দেশের যোগাযোগ ও ডিজিটালাইজেশন মন্ত্রী উরসুলা ওউসু-ইকুফুল (Ursula Owusu-Ekuful) বলেছেন যে, “ভারত এই প্রকল্পের জন্য আমাদের ‘কৌশলগত পছন্দ’। কারণ ঘানা এবং ভারতের জনসংখ্যা কমবেশি একই রকম। এছাড়াও, ভারত টেলিকম শিল্পে একটি সাফল্যের গল্প লিখেছে, আমরা এটি পুনরাবৃত্তি করতে চাই।” উরসুলা বলেন, “ভারতের জনসংখ্যা ঠিক আমাদের মতো। মাত্র কয়েক বছর আগে শুরু হওয়া Jio মডেল ভারতের টেলিকম সেক্টরের দিক এবং অবস্থা বদলে দিয়েছে। সুতরাং, সেই মডেলটি এখনও অত্যন্ত সময়োপযোগী এবং আমরা ঘানায় এই সাফল্যের পুনরাবৃত্তি করতে পারি।” আরও পড়ুন:  IPL জেতার পর কোন স্বপ্ন পূরণ করতে চান রিঙ্কু? নিজেই জানালেন KKR-এর তারকা খেলোয়াড় চিনের পরিবর্তে ভারতকে বেছে নিয়েছে: উরসুলা জানান, “ঘানা ৩৩ টি দেশের স্মার্ট আফ্রিকা জোটের অংশ। এই পরিস্থিতিতে, মহাদেশের অন্যান্য দেশগুলিও এই পরিকাঠাম প্রকল্পের ওপর কড়া নজর রাখবে। কারণ তারা জানতে চায় এই মডেলটি তাদের দেশেও বাস্তবায়িত হতে পারে কি না।” ঘানার মন্ত্রীকে জিজ্ঞাসা করা হয়েছিল যে ভারতীয় ভেন্ডাররা আগে কখনও এমন চুক্তি করেনি। অন্যদিকে চিনা সাপ্লায়ারদের এই ক্ষেত্রে অনেক অভিজ্ঞতা রয়েছে। তাই তারা কেন চিনের পরিবর্তে ভারতকে বেছে নিল? এর জবাবে উরসুলা বলেন, “ভারত আমাদের জন্য কৌশলগত বিকল্প ছিল। আমরা কোনো ভূ-রাজনীতিতে জড়াতে চাই না। আমরা আমাদের জাতীয় স্বার্থের জন্য সবচেয়ে ভালো চাই। আমাদের উদ্দেশ্য এই ক্ষেত্রে ভারতের অভিজ্ঞতার সদ্ব্যবহার করা।” আরও পড়ুন:  “T20 বিশ্বকাপে টিম ইন্ডিয়ার পরিবর্তে….”, KKR চ্যাম্পিয়ন হতেই বড় প্রতিক্রিয়া দিলেন সৌরভ ইলন মাস্কের সাথেও কথোপকথন: ঘানার মন্ত্রী বলেন যে, “আমরা আমাদের টেলিকম সেক্টর উন্নত করতে 4G এবং 5G নেটওয়ার্কের সাথে স্যাটেলাইট সংযোগের কথাও বিবেচনা করছি।” তিনি বলেছেন এই বিষয়ে ইলন মাস্কের স্টারলিঙ্কের সাথেও আলোচনা চলছে। জানিয়ে রাখি যে, ভারতে Jio-র প্রতিদ্বন্দ্বী, Bharti Airtel আফ্রিকা মহাদেশের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ মোবাইল নেটওয়ার্ক অপারেটর হিসেবে বিবেচিত হয়।

বাংলা হান্ট 27 May 2024 10:09 pm

IPL জেতার পর কোন স্বপ্ন পূরণ করতে চান রিঙ্কু? নিজেই জানালেন KKR-এর তারকা খেলোয়াড়

বাংলা হান্ট ডেস্ক: ২০১৪ সালের পর কেটে গিয়েছে ঠিক ১০ টা বছর। আর এই দীর্ঘ প্রতীক্ষার পরেই ফের স্বপ্ন পূরণ করল KKR (Kolkata Knight Riders)। তৃতীয়বারের মতো IPL (Indian Premier League) চ্যাম্পিয়ন হয়ে লক্ষ লক্ষ অনুরাগীদের মন জিতে নিল এই দল। এদিকে, গত সাত বছর ধরে KKR-এর সাথে যুক্ত থাকার পর এই প্রথমবার চ্যাম্পিয়ন হওয়ার আনন্দে সামিল হয়েছেন দলের অন্যতম তারকা খেলোয়াড় রিঙ্কু সিং (Rinku Singh)। এদিকে, IPL চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পরেই রিঙ্কু তাঁর পরবর্তী স্বপ্ন পূরণের প্রসঙ্গ সামনে আনলেন। রবিবার, হায়দ্রাবাদকে হারানোর পর তিনি সেই ইচ্ছের বিষয়টি জানিয়েছেন। এই প্রসঙ্গে জানিয়ে রাখি যে, আগামী মাসের একদম প্রথম থেকেই শুরু হতে চলেছে T20 বিশ্বকাপ। এমতাবস্থায়, IPL চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর রিঙ্কু বিশ্বকাপও এবার হাতে তুলতে চান। ‘ , Unfiltered joy & pure adoration like a child’s dream coming true ✨ One dream ✅, On to the next one now ⏳ #TATAIPL | #KKRvSRH | #Final | #TheFinalCall | @KKRiders | @rinkusingh235 pic.twitter.com/gkvOztSkWS — IndianPremierLeague (@IPL) May 27, 2024 প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, ধারাবাহিকভাবে দুর্দান্ত পারফরম্যান্স প্রদর্শন করলেও রিঙ্কু সিং বিশ্বকাপে ভারতের মূল দলের সুযোগ পাননি। যদিও, তিনি রয়েছেন রিজার্ভে। আর সেই কারণেই আমেরিকায় পাড়ি দেবেন তিনি। প্রাপ্য তথ্য অনুযায়ী জানা গিয়েছে যে, আগামী মঙ্গলবার তিনি আমেরিকার বিমানে চাপবেন। আরও পড়ুন:  “T20 বিশ্বকাপে টিম ইন্ডিয়ার পরিবর্তে….”, KKR চ্যাম্পিয়ন হতেই বড় প্রতিক্রিয়া দিলেন সৌরভ এই প্রসঙ্গে, রিঙ্কু জিও সিনেমায় জানিয়েছেন, “আমি আপাতত নয়ডায় যাব। সেখান থেকে আমি আমেরিকার উদ্দেশ্যে রওনা দেব। আপনারা দেখে নেবেন, বিশ্বকাপও আমি হাতে তুলব।” অর্থাৎ, T20 বিশ্বকাপে দলের সাথে যুক্ত হওয়ার আগেই চরম আত্মবিশ্বাস বজায় রেখেছেন রিঙ্কু। এদিকে, সামগ্রিকভাবে KKR-এর পারফরম্যান্সের প্রশংসাও করেছেন রিঙ্কু। আরও পড়ুন:  KKR চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর রিঙ্কুকে এই ৩ টি কথা বলেন শাহরুখ! যেগুলি কখনোই ভুলবেন না তারকা খেলোয়াড় কলকাতার এই তারকা খেলোয়াড় জানান, “এক্ষেত্রে নির্দিষ্ট করে কোনো এক জনকে কৃতিত্ব দেওয়া যাবে না। কারণ, প্রত্যেকের পরিশ্রম রয়েছে। গৌতম গম্ভীর স্যার দলের সাথে যুক্ত হওয়ার পর অনেক কিছু বদলে গিয়েছে। সুনীলকে ওপেনিংয়ে আনা হয়েছে। ও দারুণ ব্যাট করেছে। বাকি ব্যাটারেরাও দুর্দান্ত খেলেছে। ধন্যবাদ দিতে হবে বোলিং বিভাগকেও।”

বাংলা হান্ট 27 May 2024 9:55 pm

আয়লা থেকে রেমাল কেন মে মাসেই আসে সব ঘূর্ণিঝড়? ৯৯% মানুষই জানেন না আসল কারণ

বাংলা হান্ট ডেস্ক: রবিবার ২৬ মে বাংলাদেশ এবং সংলগ্ন পশ্চিমবঙ্গের উপকূলবর্তী এলাকায় মাঝরাতে ল্যান্ডফল হয়েছে ঘূর্ণিঝড় রেমালের (Remal Cyclone)। যার জেরে ইতিমধ্যেই বিরাট ক্ষয়ক্ষতি হয়ে গিয়েছে। যদিও আবহাওয়া দপ্তরের তরফে পাওয়া শেষ আপডেট অনুযায়ী জানা যাচ্ছে এখন শক্তি হারিয়ে নিন্মচাপে পরিণত হয়েছে রেমাল। তবে ইতিহাস বলছে এর আগে বাংলায় যত গুলো ঘূর্ণিঝড় হয়েছে তার সিংহভাগ-ই কিন্তু হয়েছে এই মে মাসেই। তাই রেমাল আসার পর থেকেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ঘোরাফেরা করছে একটি প্রশ্ন। তা হল মে মাসেই কেন বার বার আছড়ে পড়ে এই ঘূর্ণিঝড়? কি বলছেন বিষেশজ্ঞরা? আবহাওয়াবিদরা জানাচ্ছেন, বর্ষা আসার আগে ও পরে ভারত মহাসাগরের উত্তর অংশ নাকি অতিরিক্ত স্পর্শকাতর হয়ে ওঠে। এই সময় নাকি সমুদ্রপৃষ্ঠের তাপমাত্রা থাকে ২৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসের কাছাকাছি। নিম্নচাপ থেকে ঘূর্ণিঝড়ে পরিণতহওয়ার জন্য এই দুই অনুকূল পরিস্থিতিই নাকি একেবারে আদর্শ হয়ে থাকে । যদিও আলিপুর আবহাওয়া দফতরের আবহাওয়াবিদ সোমনাথ দত্ত মে মাসে ঘূর্ণিঝড় হওয়ার কারণ বিশ্লেষণ করতে গিয়ে আগেই জানিয়েছিলেন, লো প্রেশার বা নিম্নচাপ তৈরি হওয়ার সম্ভাবনাকে বলা হয় সাইক্লোজেনেসিস। আর এই সাইক্লোজেনেসিস তৈরি হওয়ার জন্য দরকার হয় বেশ কয়েকটি  অনুকূল পরিস্থিতির। যার মধ্যে অন্যতম হল ওয়ার্ম সি সারফেস টেম্পারেচার। আরও পড়ুন: আজই রেহাই নেই! টানা ৫ দিন ঝড়-বৃষ্টি চলবে বাংলার এই জেলাগুলিতে, জারি হল সতর্কতা আর এই মার্চ, এপ্রিল, মে মাসেই অর্থাৎ গরমকালে সি সারফেস টেম্পারেচার বা সমুদ্রের জলের উপরের তাপমাত্রা  অনেকটাই বেশি থাকে। এমনকি এই তাপমাত্রা বজায় থাকে জলের প্রায় ৫০ মিটার গভীর পর্যন্ত। মূলত এই কারণেই মার্চ, এপ্রিল, মে কিংবা  বাংলার কোথাও কোথাও জুন মাসেও ঘূর্ণিঝড় তৈরি হয়। তবে বর্ষা চলে আসার পরে পরিস্থিতি এমনটা থাকে না। বাংলার বুকে ঘটে যাওয়া অতীতের ঘূর্ণিঝড়ের ইতিহাস ঘাঁটলে দেখা যাবে ২০০৯ সালের ২৫শে মে আয়লা এসেছিল বাংলায়। তারপর সেই ২০১৯ সালের মে মাসেই এসেছিল ফণি। করোনা আবহে আমফান এসেছিল মে মাসেই। পরবর্তীতে আবার ২৬শে মে এসেছিল ইয়াস। আর রবিবার সেই ২৬শে মে মধ্য়রাতেই এসেছে রেমাল।

বাংলা হান্ট 27 May 2024 8:16 pm

“T20 বিশ্বকাপে টিম ইন্ডিয়ার পরিবর্তে….”, KKR চ্যাম্পিয়ন হতেই বড় প্রতিক্রিয়া দিলেন সৌরভ

বাংলা হান্ট ডেস্ক: গত রবিবার রাতে এক দশক পর ফের IPL (Indian Premier League) চ্যাম্পিয়ন হল কলকাতা নাইট রাইডার্স (Kolkata Knight Riders)। যার ফলে খুশির সীমা নেই KKR-এর অনুরাগীদের। আর তা হবে নাই বা কেন! সমগ্র মরুশুম জুড়েই দুর্দান্ত পারফরম্যান্স প্রদর্শন করেছে KKR। সেই রেশ বজায় ছিল ফাইনাল ম্যাচেও। হায়দ্রাবাদকে (Sunrisers Hyderabad) হেলায় হারিয়ে দিয়ে তৃতীয়বারের জন্য চ্যাম্পিয়ন হয় কলকাতা। এদিকে, KKR জেতার পরই সোশ্যাল মিডিয়ায় উচ্ছ্বাস প্রকাশ করলেন টলিউডের জনপ্রিয় অভিনেতা সৌরভ দাস। তিনি KKR-এর একজন অন্ধ ভক্ত। এমতাবস্থায়, ফাইনাল ম্যাচের পর নেটমাধ্যমে তিনি একটি ভিডিও পোস্ট করেছেন। যেখানে, “মন্টু পাইলট”-একটি বড় দাবি করেছেন। মূলত, ওই ভিডিওতে সৌরভ বলেছেন, “T20 বিশ্বকাপে টিম ইন্ডিয়াকে না পাঠিয়ে বেঙ্গলকে পাঠানো হোক”। সৌরভের মতে, “একটা ছোট্ট পর্যবেক্ষণ বলি। এই বছর ক্রিকেটটা হয়ে গেল কলকাতার। টাইগার্স অফ কলকাতা ISPL টুর্নামেন্টে জিতেছে। এদিকে, CCL জিতেছে বেঙ্গল টাইগার্স। আর অবশ্যই এখন IPL জিতেছে কলকাতা নাইট রাইডার্স।” তিনি আরও বলেন যে, “T20 বিশ্বকাপে টিম ইন্ডিয়াকে না পাঠিয়ে বেঙ্গল টিমকে পাঠালে আমার মনে হয় জিতে যেত।” যদিও, এরপরেই সৌরভ এটাও বলেন, “আমি কিন্তু এটা মজা করেই বলছি। কেউ আবার সিরিয়াসলি নেবেন না।” এই প্রসঙ্গে জানিয়ে রাখি যে, টলিউড তারকা যীশু সেনগুপ্তর নেতৃত্বে CCL জয়ী বেঙ্গল টাইগার্স টিমের অন্যতম সদস্য ছিলেন সৌরভ দাস। এদিকে, সৌরভের এই মজার মন্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে মিলছে বিভিন্ন প্রতিক্রিয়া। অনেকেই বিষয়টিকে মজার ছলে নিলেও কেউ কেউ আবার বলছেন, “তুমি ঠিকই বলেছো। টিম ইন্ডিয়ার ঝুলিতে দীর্ঘ ১০ বছরের বেশি সময় ধরে কোনো ICC ট্রফি নেই।” আরও পড়ুন:  KKR চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর রিঙ্কুকে এই ৩ টি কথা বলেন শাহরুখ! যেগুলি কখনোই ভুলবেন না তারকা খেলোয়াড় জানিয়ে রাখি যে, আগামী মাসের শুরু থেকেই T20 বিশ্বকাপে মেতে উঠবেন ক্রিকেটের অনুরাগীরা। শুধু তাই নয়, T20 বিশ্বকাপ খেলার জন্য রোহিত শর্মার নেতৃত্বাধীন ইন্ডিয়া টিমের বেশ কিছু সদস্য ইতিমধ্যেই আমেরিকায় পাড়ি দিয়েছেন। যদিও, বিরাট কোহলি আগামী ৩০ মে আমেরিকার বিমানে চাপবেন বলে জানা গিয়েছে। এদিকে, সৌরভের ভিডিওর কমেন্টে অনেকে জানিয়েছেন যে, T20 বিশ্বকাপের দলে KKR-এর কোনো খেলোয়াড়রা সরাসরি সুযোগ পাননি। শুধুমাত্র রিঙ্কু রয়েছেন রিজার্ভ বেঞ্চে। আরও পড়ুন:  “২৫ কোটির বোলার….”, সতীর্থরাই করত মজা! চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর “আক্ষেপ” স্টার্কের একজন আবার জানিয়েছেন, T20 বিশ্বকাপের আগেই ফর্ম ফিরে পেয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার তারকা পেসার মিচেল স্টার্ক। এমন পরিস্থিতিতে, KKR-এর ফাইনাল জয়ের নায়কের মুখোমুখি হতে হবে ভারতীয় দলকে। যেটা অবশ্যই একটা চিন্তার বিষয়। এই প্রসঙ্গে জানিয়ে রাখি যে, নির্ধারিত সূচি অনুযায়ী আগামী ৫ জুন T20 বিশ্বকাপে প্রথম ম্যাচ খেলবে ভারত। ওই ম্যাচে টিম ইন্ডিয়া মুখোমুখি হবে আয়ারল্যান্ডের বিরুদ্ধে। তবে, আগামী ৯ জুন রয়েছে হাইভোল্টেজ ম্যাচ। ওই ম্যাচে রোহিতরা মুখোমুখি হবেন পাকিস্তানের বিরুদ্ধে।

বাংলা হান্ট 27 May 2024 8:05 pm

জুন মাস জুড়ে প্রায় অর্ধের দিনই ব্যাঙ্ক বন্ধ! ছুটির তালিকা না জানলেই পড়বেন মহা ফ্যাসাদে

বাংলাহান্ট ডেস্ক : রিজার্ভ ব্যাঙ্কের (Reserve Bank of India) ছুটির তালিকা (Holiday) বলছে, জুন মাসে অনেক দিনই বন্ধ থাকবে ব্যাঙ্ক। জানা যাচ্ছে যে, পুরো জুন মাস জুড়ে বারো দিন বন্ধ থাকবে ব্যাঙ্ক। নানান ধর্মীয় উৎসব উপলক্ষে ছুটি, কিছু আঞ্চলিক উৎসব আর সপ্তাহান্তের ছুটি মিলিয়ে দেখলে ১২দিন ধরে ব্যাঙ্ক বন্ধ থাকায় ছুটি পাবেন ব্যাঙ্কের কর্মীরা। যদিও রাজ্য, শহর কিংবা স্থান ভেদে সেই ছুটির ঘোষণা করা হয়। তো সেই কারণেই সব রাজ্যের সঙ্গে বাংলার ব্যাঙ্ক ছুটির তালিকা সেভাবে মিলবে না। বিভিন্ন কাজের জন্য ব্যাংকে যেতেই হয়। তাই ছুটির দিনের তালিকা আগে থেকে জানা থাকলে আর সমস্যায় পড়তে হবে না গ্রাহকদের। ২০২৪ সালের জুন মাসে কমপক্ষে ১২ দিন ছুটি থাকবে স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া (এসবিআই) সহ এদেশের প্রত্যেকটি সরকারি ও বেসরকারি ব্যাঙ্কে। আরোও পড়ুন :  হাজার কথাটি লেখার জন্য কেন ‘K’ ব্যবহার করা হয় বলতে পারবেন? ৯৯% মানুষই জানেন না আসল উত্তর কারণ বেশ কিছু আঞ্চলিক উৎসব এর উপরও নির্ভর করে ব্যাঙ্কের ছুটি। তাছাড়া মাসের দ্বিতীয় এবং চতুর্থ শনিবারসহ প্রত্যেক রবিবার ছুটি থাকে ব্যাংক। এই মাসে আবার রয়েছে পাঁচটি রবিবার। এবার দেখে নেওয়া যাক ছুটির তালিকা। আগামী ৯ জুন তারিখ হিমাচল প্রদেশ, হরিয়ানা এবং রাজস্থান রাজ্যে মহারানা প্রতাপ জয়ন্তীর কারণে ছুটি থাকবে। ১০ই জুন পাঞ্জাবের শ্রী গুরু অর্জুন দেব জির শাহাদত দিবস উপলক্ষে ছুটি। আরোও পড়ুন :  এই রাজ্যে বোনকেই বিয়ে করে ভাই! অবাক হলেন? এমন জায়গা আছে এদেশেই, জানতেন ? আগামী ১৪ই জুন পাহিলি রাজার জন্য বন্ধ থাকবে ওড়িশার সব ব্যাঙ্ক। ১৫ই জুন YMA দিবসের জন্য উত্তর-পূর্ব রাজ্য মিজোরামের ব্যাঙ্কগুলি বন্ধ থাকবে। এবার রাজা সংক্রান্তির জন্য ওড়িশার ব্যাংকগুলিও বন্ধ থাকবে। বকরি ঈদ উপলক্ষে কয়েকটি রাজ্য বাদ দিয়ে দেশজুড়ে ১৭ জুন ব্যাংক ছুটি থাকবে। ভাত সাবিত্রী ব্রত পালনের জন্য আগামী ২১ জুন রাজ্যের ব্যাঙ্ক বন্ধ থাকতে পারে। এদিকে আবার ৮ই জুন ভারতে জুড়ে দ্বিতীয় শনিবার উপলক্ষে প্রত্যেকটি ব্যাংক এমনি বন্ধ থাকে। বাইশে জুন চতুর্থ শনিবার ব্যাংক বন্ধ। জুন মাসের ২,৯,১৬,২৩ এবং ৩০ তারিখ রবিবার রয়েছে। রবিবার তো ভারতে জুড়ে এমনি ছুটির দিন। তাই ব্যাঙ্ক ছুটি। তবে ব্যাংক ছুটি থাকলেও ইউপিআই পরিষেবা চালু থাকবে। মোবাইল ব্যাঙ্কিং বা নেট ব্যাঙ্কিংয়ের টাকা-পয়সার আদান প্রদান করতে পারবেন গ্রাহকরা। এছাড়াও নগদ অর্থের জন্য ব্যবহার করতে পারেন এটিএম।

বাংলা হান্ট 27 May 2024 7:59 pm

হাজার কথাটি লেখার জন্য কেন ‘K’ব্যবহার করা হয় বলতে পারবেন? ৯৯% মানুষই জানেন না আসল উত্তর

বাংলাহান্ট ডেস্ক : আপনারা হয়ত লক্ষ্য করে দেখেছেন হাজার কথাটি বোঝানোর জন্য অনেক সময় ‘K’ ব্যবহার করা হয়ে থাকে। আমরা হয়ত বহুজনের এই সাধারণ জ্ঞানটি (General Knowledge) নেই। তবে অনেকেই ইংরেজি K শব্দ ব্যবহার করেছি হাজার অর্থটি বোঝানোর জন্য। সোশ্যাল মিডিয়াতে আজকাল ব্যাপকভাবে এই জিনিসটি লক্ষ্য করা যায়। তবে আপনাদের মনে কি কখনো এসেছে কেন হাজারের জন্য K লেখা হয়? বিষয়টি নিয়ে আপনাদের কি স্বচ্ছ ধারণা আছে? আপনারা হয়ত লক্ষ্য করবেন অধিকাংশ ওয়েবসাইটে ভিউয়ার্স সংখ্যা, সাবস্ক্রাইবার সংখ্যা কিংবা অন্যান্য গণনা K দিয়ে প্রকাশ করা হয়। মিলিয়ন শব্দটি বোঝানোর জন্য সাধারণত ব্যবহার করা হয় M। তেমনভাবে বিলিয়ন বোঝানোর জন্য ব্যবহার করা হয় B।  আরোও পড়ুন :  পেট্রোলের ঝামেলা থেকে এবার মিলবে মুক্তি! মাত্র ৩০ পয়সায় উপভোগ করুন থ্রিলিং জার্নি তাহলে হাজার বোঝানোর জন্য কেন T এর বদলে K ব্যবহার করা হয়? এই কারণটা জানতে হলে আমাদের ইতিহাসের পাতায় চোখ রাখতে হবে। একটা সময় গ্রীক বা রোমান সংস্কৃতি দ্বারা ব্যাপকভাবে প্রভাবিত ছিল অনেক পশ্চিমা দেশ। মনে করা হয় রোমান সংস্কৃতি থেকে হাজার বোঝানোর জন্য K ব্যবহার করার ধারণাটি এসেছে। গ্রীক ভাষায় হাজারকে বলা হয় ‘CHILLOI’। সেখান থেকেই এসেছে এই শব্দটি। এছাড়াও বাইবেলে হাজার বোঝানোর জন্য ব্যবহার হয়েছে K। গ্রীক শব্দ ‘CHILLOI’-কে ফরাসিরা সংক্ষিপ্ত করে K করে। এরপর হিসাব করা হয় কিলোমিটার, কিলোগ্রাম ইত্যাদি। কিলোগ্রামে যেহেতু এক হাজার গ্রাম রয়েছে, সেহেতু হাজার বোঝানোর জন্য K ব্যবহৃত হয়।

বাংলা হান্ট 27 May 2024 7:41 pm

ট্রেনের কনফার্ম টিকিট পাওয়া এখন আরও সহজ! মাত্র ২৫ শতাংশ দিয়েই করুন ‘সিট লক’

বাংলা হান্ট ডেস্ক: প্রতিদিন রেলযাত্রীদের সফর আরও বেশি উন্নত এবং আরামদায়ক করে তুলতেই নিত্য নতুন পরিষেবা নিয়ে আসছে ভারতীয় রেল। তাই বছরের পর বছর ধরে ভারতীয় রেলই (Indian Railways) হয়ে উঠেছে যাত্রীদের অন্যতম ভরসার পরিবহণ মাধ্যম। ভারতীয় রেলের নিয়ম অনুযায়ী টিকিট ছাড়া ট্রেনে সফর করা আইনত অপরাধ। কিন্তু এই টিকিট কাটতে গিয়েই মূলত দুরপাল্লার ট্রেনের টিকিট বুকিংয়ের (Ticket Booking) সময় বিরাট সমস্যার মুখে পড়েন অধিকাংশ যাত্রী। তাই এবার এই সমস্যার সমাধান করতেই চালু করা হল নতুন ফিচার। টিকিট কাটতে গিয়ে যাত্রীদের যাতে আর কোনো অসুবিধা না হয় তার জন্যই এবার একেবারে নতুন একটি ফিচার নিয়ে এসেছে MakeMyTrip। এই নতুন প্রযুক্তিগত পরিবর্তন হওয়ার ফলে আগামী দিনে যাত্রীদের ট্রেন যাত্রা আরও সহজ হতে চলেছে। সম্প্রতি এই অ্যাপের মাধ্যমে টিকিট বুকিংয়ের প্রক্রিয়া সহজ করতে বেশ কয়েকটি পর্যায়ে ভাগ করা হয়েছে। আর প্রত্যেক পর্যায়ে সাহায্য নেওয়া হয়েছে প্রযুক্তির। MakeMyTrip-র এই বিশেষ ফিচারগুলির মধ্যে একটি হল ‘সিট লক’। এবার থেকে এই  নতুন ফিচারের মাধ্যমে যাত্রীরা টিকিটের দামের মাত্র ২৫ শতাংশ দিয়ে আগেভাগেই সিট বুক করতে পারেন। তবে সেই টিকিটের দামের বাকি টাকা  যাত্রার ২৪ ঘণ্টা আগেই দিয়ে দিতে হবে। ফলে কনফার্ম টিকিট পাওয়া নিয়ে এখন আর কোনো টেনশন থাকবে না। দূরপাল্লার ট্রেনের সিট পাওয়া নিয়েও পোহাতে হবে না আর কোনো ঝামেলা। আরও পড়ুন: নবান্নের আবেদন মেনে নিল কেন্দ্র! মুখ্যসচিব পদে বিপি গোপালিকার মেয়াদ বৃদ্ধি, কতদিন বাড়ানো হল? এছাড়াও ট্রেনের টিকিট বুক করার সময় অনেকেই নিজের পছন্দের দিনে টিকিট বুক করার সুযোগ পান না। তাছাড়া সরাসরি ট্রেনের কনফার্ম টিকিটও পাওয়া যায় না। এমনকি হাতে বিকল্প-ও থাকে কম। তাই যাত্রীদের এই সমস্যা দূর করতেই  ‘কানেক্টেড ট্রাভেল’ ফিচার চালু করেছে MakeMyTrip। এই ফিচারের মাধ্যমে যাত্রীরা নিজের পছন্দ মতো দিনে কিভাবে বাস আর ট্রেন মিলিয়ে কীভাবে গন্তব্যে পৌছাঁতে পারবেন তা জানা যায়।     তাছাড়া যেতে কতক্ষণ সময় লাগবে, কিংবা দাঁড়াতে হবে কতক্ষণ, তার সমস্ত বিবরণ দেওয়া থাকে। এছাড়াও চালু করা হয়েছে আরও একটি নতুন ফিচার ‘রুট এক্সটেনশন অ্যাসিস্টেন্স’। MakeMyTrip-এর নিজস্ব প্রযুক্তিতে তৈরি এই ফিচারে যাত্রীরা পছন্দের ট্রেনে টিকিট না পেলে এই ফিচার তখন যাত্রীদের বিকল্প রুটের সন্ধান দেয়।

বাংলা হান্ট 27 May 2024 7:00 pm

এই প্রথম শাহজাহানের বিরুদ্ধে চার্জশিট দিল ED, উঠে ‘হেভিওয়েট’৩ জনের নাম! তোলপাড় রাজ্য

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ সন্দেশখালি (Sandeshkhali) কাণ্ডে নয়া মোড়! শাহজাহানের বিরুদ্ধে এই প্রথম চার্জশিট জমা দিল কেন্দ্রীয় এজেন্সি। ইডি পেটানোর মামলায় বর্তমানে ইডি (ED) হেফাজতেই রয়েছেন সন্দেশখালির বেতাজ বাদশা শেখ শাহজাহান (Sheikh Sahajahan)। এর আগে কেন্দ্রীয় সংস্থার উপর হামলার ‘মাস্টারমাইন্ড’ শেখ শাহজাহানের বিপুল পরিমাণ সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত হয়েছে। তদন্তে নেমে কোটি কোটির সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করেছে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (Enforcement Directorates)। এবার আরও বড় পদক্ষেপ। জানা যাচ্ছে, সন্দেশখালির শেখ শাহজাহানের বিরুদ্ধে জমি দখল সংক্রান্ত মামলায় চার্জশিট পেশ করেছে ইডি। গত ফেব্রুয়ারী মাসে গ্রেফতারির ৫৬ দিনের মাথায় সোমবার কলকাতায় বিশেষ ইডি আদালতে জমা পড়েছে ১১৩ পাতার চার্জশিটে। সূত্রের খবর, চার্জশিটে শাহজাহান ছাড়াও নাম রয়েছে শাহজাহানের ভাই আলমগির এবং তার ‘সঙ্গী’ বলে পরিচিত সন্দেশখালির দিদার বক্স ও শিবু হাজরার। সন্দেশখালিতে জমি দখল সংক্রান্ত বিস্তর অভিযোগ উঠে এসেছিল শাহজাহান ও তার সঙ্গীদের বিরুদ্ধে। ইডি সূত্রে খবর, এখনও পর্যন্ত প্রায় ১৮০ বিঘা জমি শাহজাহান দখল করেছিলেন এবং সেখান থেকে ২৬১ কোটিরও বেশি টাকা হাতিয়েছেন। জমি দখল সংক্রান্ত অভিযোগের তদন্তের সূত্র ধরেই এই টাকার সন্ধান পেয়েছে ইডি। যার মধ্যে ইতিমধ্যেই ২৭ কোটি টাকা বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে বলেও ইডি সূত্রে খবর। এই বিপুল পরিমাণ টাকার উল্লেখও চার্জশিটে রয়েছে। কেন্দ্রীয় এজেন্সি সূত্রের দাবি, এদিন পেশ করা চার্জশিটে এমন কিছু তথ্য রয়েছে, যা পরবর্তীতে শেখ শাহাজাহানের জামিন পাওয়ার ক্ষেত্রে বড়সড় প্রতিরোধক হয়ে দাঁড়াবে। প্রসঙ্গত, জানুয়ারির ৫ তারিখ ইডি পেটানোর ঘটনার পর টানা দুমাসের টানটান উত্তেজনা, তারপর হঠাৎ পুলিশের জালে ধরা পড়ে সন্দেশখালির বাঘ। তারপর প্রথমে সিআইডি, সিবিআই হয়ে বর্তমানে ইডি হেফাজতে সন্দেশখালির বাঘ। আরও পড়ুন:  আজই রেহাই নেই! টানা ৫ দিন ঝড়-বৃষ্টি চলবে বাংলার এই জেলাগুলিতে, জারি হল সতর্কতা গত জানুয়ারি মাসের ৫ তারিখ রেশন দুর্নীতির তদন্ত করতে গিয়ে লাইমলাইটে আসে শাহজাহান নাম। সেই সময় শাহজাহানের অনুগামীদের হাতে মার খেয়ে ফিরে আসতে হয় তদন্তকারীদের। তারপর থেকে সাধারণ মানুষজনের জমি দখল সংক্রান্ত একের পর এক অভিযোগ উঠে এসেছে। উঠে আসে ধর্ষণ, শ্লীলতাহানির অভিযোগও। সেই সংক্রান্ত বিষয়ে ইতিমধ্যেই বিস্তর তদন্ত চালাচ্ছে ইডি-সিবিআই। এরই মাঝে এবার শাহজাহান মামলায় প্রথম চার্জশিট দিল এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট।

বাংলা হান্ট 27 May 2024 6:57 pm

রেমাল দুর্যোগ মোকাবিলায় প্রশাসনের কাজে খুশি! সোমবারই বিরাট ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ রবিবার রাতে ‘তাণ্ডব’ করেছে রেমাল। এই ঘূর্ণিঝড়ের কারণে এখনও অবধি বাংলায় ৬ জনের প্রাণহানি হয়েছে। সোমবার সকাল থেকে দক্ষিণবঙ্গের নানান জেলায় লাগাতার বৃষ্টি হচ্ছে। এই আবহে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলির পাশে দাঁড়ানোর বার্তা দিলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। সেই সঙ্গেই অবিলম্বে আর্থিক সহায়তা পৌঁছে দেওয়ার কথাও বলেন তিনি। গতকাল রাতে পশ্চিমবঙ্গের সাগরদ্বীপ এবং বাংলাদেশের খেপুপাড়ার মাঝামাঝি অংশে বাংলাদেশের মোংলার কাছ থেকে স্থলভাগে প্রবেশ করে রেমাল (Cyclone Remal)। প্রায় ঘণ্টা চারেক ধরে ‘ল্যান্ডফল’ চলেছিল। এর জেরে উপকূলবর্তী এলাকা ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছে। শহর কলকাতাতেও আঁচ এসে পড়ে। পশ্চিমবঙ্গ নদীমাতৃক রাজ্য, বঙ্গোপসাগরের উপকূলে। প্রতিবছরই তাই আমাদের নানা প্রাকৃতিক দুর্যোগের সম্মুখীন হতে হয়। এবারো সাইক্লোন ‘রেমালে’র প্রভাবে আমাদের রাজ্যে প্রচুর ক্ষয়ক্ষতি হল ও হচ্ছে। কিন্তু সবার উপরে মানুষের জীবন। সৌভাগ্যক্রমে এবং অবশ্যই রাজ্য প্রশাসনের তৎপরতায় এবার… — Mamata Banerjee (@MamataOfficial) May 27, 2024 এই আবহে রেমাল দুর্যোগের জেরে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলির পাশে দাঁড়ানোর বার্তা দিলেন মুখ্যমন্ত্রী (CM Mamata Banerjee)। সোমবার এক্স হ্যান্ডেলে মমতা লেখেন, ‘পশ্চিমবঙ্গ নদীমাতৃক রাজ্য, বঙ্গোপসাগরের উপকূলে। প্রতিবছরই তাই আমাদের নানা প্রাকৃতিক দুর্যোগের সম্মুখীন হতে হয়। এবারও সাইক্লোন ‘রেমালে’র প্রভাবে আমাদের রাজ্যে প্রচুর ক্ষয়ক্ষতি হল ও হচ্ছে। কিন্তু সবার উপরে মানুষের জীবন। সৌভাগ্যক্রমে এবং অবশ্যই রাজ্য প্রশাসনের তৎপরতায় এবার জীবনহানি তুলনামূলকভাবে অনেক কম’। আরও পড়ুনঃ  নবান্নের আবেদন মেনে নিল কেন্দ্র! মুখ্যসচিব পদে বিপি গোপালিকার মেয়াদ বৃদ্ধি, কতদিন বাড়ানো হল? মমতা লেখেন, ‘নিহতদের পরিবারবর্গকে আমার আন্তরিক সমবেদনা জানাই, তাঁদের নিকটজনের হাতে অবিলম্বে আর্থিক সহায়তা পৌঁছাবে। ফসলের ও বাড়িঘরের যা ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে, তা ক্ষতিপূরণের বন্টন আইন মোতাবেন প্রশাসন এখনই দেখে নেবে এবং নির্বাচনের আচরণবিধি উঠে গেলে আমরা এই সব বিষয়ে আরও গুরুত্ব দিয়ে সবটা আলোচনা করব’। একইসঙ্গে ভয় না পাওয়ার বার্তা দিয়ে মুখ্যমন্ত্রী লেখেন, ‘নির্বাচনী বন্দোবস্তের ব্যস্ততা সত্ত্বেও সর্বস্তরে আমাদের প্রশাসন দুর্যোগ মোকাবিলায় এবার প্রস্তুত ছিল। মুখ্যসচিব থেকে শুরু করে আমার রাজ্যের সম্পূর্ণ সচিবালয়, জেলা প্রশাসন থেকে ব্লক প্রশাসন- দুর্যোগের মোকাবিলায় সকলে সংহতভাবে সবসময় মানুষের পাশে রয়েছে, ভবিষ্যতেও থাকবে। দু’লক্ষ মানুষকে নিরাপদ জায়গায় ১৪০০ শিবিরে সরানোর কৃতিত্ব আমাদের পুরসভা- পঞ্চায়েতগুলিরও। এজন্য আমি রাজ্য ও স্থানীয় প্রশাসনের সকলকে আমার আন্তরিক ধন্যবাদ জানাই। আমি বিশ্বাস রাখি, সকলের সহযোগিতায় এই ঝড়ও আমরা কাটিয়ে উঠব। আমি জানি, এই দুর্যোগে আপনারা চিন্তিত। আমরাও চিন্তিত। কিন্তু ভয় পাবেন না, চিন্তা করবেন না। পরিস্থিতির মোকাবিলায় যা যা করণীয়, আমরা সবটাই করব’।

বাংলা হান্ট 27 May 2024 6:35 pm

আজই রেহাই নেই! টানা ৫ দিন ঝড়-বৃষ্টি চলবে বাংলার এই জেলাগুলিতে, জারি হল সতর্কতা

বাংলা হান্ট ডেস্ক: আশঙ্কা মতোই রবিবার রাতে শহর থেকে জেলা তছনছ করেছে শক্তিশালী রেমাল (Remal)। উপকূলবর্তী এলাকা থেকে শহর, জেলা ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে লন্ডভন্ড হয়ে গিয়েছে দক্ষিণবঙ্গ (South Bengal)। রাক্ষুসে রেমালের জেরে এখনও পর্যন্ত ৬ জনের মৃত্যুর খবর সামনে এসেছে। রাত থেকে শুরু করে এখনও পর্যন্ত অবিরাম বৃষ্টিতে ভিজছে দক্ষিণবঙ্গ । কলকাতা শহরে কোথাও হাঁটু জল তো কোথাও কোমর ছুঁই ছুঁই। এই আবহে দুর্যোগ কবে কমবে? সেই বার্তা দিন আলিপুর আবহাওয়া দফতর। আবহাওয়া দপ্তর জানিয়েছে, আজ কলকাতা থেকে শুরু করে বাংলার অধিকাংশ জেলায় ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টির সতর্কতা জারি থাকবে। আজ দক্ষিণবঙ্গের দুই ২৪ পরগনা, হাওড়া, হুগলি, কলকাতা, নদিয়া, মুর্শিদাবাদ, মালদহ জেলায় কমলা সতর্কতা জারি করা হয়েছে। পাশাপাশি আজ ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে দুই মেদিনীপুর, বীরভূম, বর্ধমান, দার্জিলিং, কালিম্পং-এ। যার জেরে এসব জেলায় জারি হয়েছে হলুদ সতর্কতা। বুধবার পর্যন্ত দক্ষিণবঙ্গের জেলা গুলিতে হালকা বৃষ্টি জারি থাকতে পারে। মঙ্গলবার থেকে দক্ষিণবঙ্গে বৃষ্টি কমবে। বাড়বে উত্তরে। আগামীকাল কমলা সতর্কতা জারি করা হয়েছে উত্তরবঙ্গের জলপাইগুড়ি, আলিপুরদুয়ার, কোচবিহার, দার্জিলি ও কালিম্পং-এ। সোমবারও দিনভর মেঘলা ছিল উত্তরবঙ্গের আকাশ। বৃষ্টিও হয়েছে। আগামীকাল বৃষ্টির পাশাপাশি ৪০-৫০ কিমি বেগে ঝোড়ো হাওয়া বইতে পারে উত্তরবঙ্গের জেলাগুলিতে। আরও পড়ুন:  গরমের ছুটি নিয়ে কী জানাল রাজ্য? কবে খুলছে স্কুল? বিভ্রান্ত না হয়ে দেখুন শিক্ষাদপ্তরের বিজ্ঞপ্তি এরপর ২৯ থেকে ১ জুন পর্যন্ত উত্তরবঙ্গের জলপাইগুড়ি, আলিপুরদুয়ার, কোচবিহার, দার্জিলিং ও কালিম্পং-এ বৃষ্টি চলবে। কোচবিহার, জলপাইগুড়ি এবং আলিপুরদুয়ার জেলায় এক বা দুই জায়গায় অত্যন্ত ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। দুই দিনাজপুর ও মালদহেও বিক্ষিপ্ত বৃষ্টি জারি থাকবে।

বাংলা হান্ট 27 May 2024 6:29 pm

পেট্রোলের ঝামেলা থেকে এবার মিলবে মুক্তি! মাত্র ৩০ পয়সায় উপভোগ করুন থ্রিলিং জার্নি

বাংলাহান্ট ডেস্ক : টিভিএস বাজারে নিয়ে এসেছে নতুন ব্যাটারি চালিত স্কুটার। এক চার্জে এই স্কুটার চলবে ৭০ কিলোমিটার পর্যন্ত। TVS iQube-এর সবচেয়ে সস্তা ভেরিয়েন্ট বাজারে লঞ্চ করেছে। একাধিক বৈশিষ্ট্যের সাথে এই স্কুটারে থাকছে  ৭ ইঞ্চি ফুল কালার TFT টাচস্ক্রিন, ব্লুটুথ কানেক্টিভিটি, ভয়েস অ্যাসিস্ট, অ্যালেক্সা সাপোর্ট, টায়ার প্রেশার মনিটরিং সিস্টেম, ডিজিটাল ডকুমেন্ট স্টোরেজ, ৩২ লিটার আন্ডার সিট স্টোরেজ ইত্যাদি। কপার ব্রোঞ্জ ম্যাট, কোরাল স্যান্ড স্যাটিন, টাইটানিয়াম গ্রে ম্যাট এবং স্টারলাইট ব্লু রঙের ভেরিয়েন্টে বাজারে পাওয়া যাচ্ছে এই স্কুটার (Scooter)। iQube-এর সবচেয়ে সস্তা ভেরিয়েন্টটি লঞ্চ করা হয়েছে টিভিএস-এর (TVS) পক্ষ থেকে। সংস্থা জানিয়েছে, এই ভেরিয়েন্টের দাম পড়বে মাত্র ৯৫ হাজার টাকা। বৈদ্যুতিক স্কুটারের এটি বেস ভেরিয়েন্ট। আরোও পড়ুন :  ফিক্সড ডিপোজিটে মিলছে ৯.১০% সুদ! এই ব্যাঙ্কগুলোয় বিনিয়োগ করলে মোটা রিটার্ন নিশ্চিত ৫.১ kwh ব্যাটারি প্যাকের টপ মডেলের দাম পড়বে ১.৮৫ লাখ টাকা। কোম্পানি জানিয়েছে, ৪ ঘণ্টা ১৮ মিনিট সময় লাগে এর ব্যাটারি শূন্য থেকে আশি শতাংশ চার্জ করতে। ইতিমধ্যে এই ইলেকট্রিক স্কুটারের (Electric Scooter) বুকিং শুরু হয়ে গেছে। কোম্পানির অফিসিয়াল ওয়েবসাইট বা অনুমোদিত ডিলারের কাছ কেনা যাবে এই স্কুটার। এন্ট্রি-লেভেল ভেরিয়েন্টটিতে টিভিএস দিয়েছে  ৫-ইঞ্চি TFT ডিসপ্লে। এই স্কুটারে দেওয়া হয়েছে ৩২ লিটারের আন্ডার সিট স্টোরেজ। কোম্পানি এই স্কুটারে আরামদায়ক ও লম্বা সিট দিয়েছে যা চালককে অসাধারণ ড্রাইভিং অনুভূতি দেবে। দৈনন্দিন কাজের জন্য আপনারা এই স্কুটারটি কিনতেই পারেন অত্যন্ত কম দামে। অত্যন্ত স্টাইলিশ এই স্কুটারটি সুরক্ষার দিক থেকেও খুবই উচ্চমানের।

বাংলা হান্ট 27 May 2024 6:15 pm

নবান্নের আবেদন মেনে নিল কেন্দ্র! মুখ্যসচিব পদে বিপি গোপালিকার মেয়াদ বৃদ্ধি, কতদিন বাড়ানো হল?

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ চব্বিশের লোকসভা নির্বাচন শেষ হওয়ার পথে। বাংলায় আর মাত্র এক দফার ভোট রয়েছে। আগামী ১ জুন সপ্তম দফার নির্বাচন হলেও ভোটগ্রহণ পর্ব শেষ হবে। এর মাঝেই সামনে এল বড় খবর। রাজ্যের মুখ্যসচিব পদে ভগবতীপ্রসাদ গোপালিকার মেয়াদবৃদ্ধি করা হল। পশ্চিমবঙ্গ সরকারের (Government of West Bengal) তরফ থেকেই গত ফেব্রুয়ারি মাসে এই আবেদন করা হয়েছিল। সেই আবেদন মেনে নিল কেন্দ্র (Central Government)। সপ্তাহের শুরুতেই দিল্লির নর্থ ব্লকের ‘কর্মীবর্গ, জন অভিযোগ, পেনশন এবং প্রশিক্ষণ মন্ত্রক’এর আন্ডার সেক্রেটারি কবিতা চৌহান এই সম্বন্ধিত চিঠি নবান্নে পাঠিয়েছেন। সেখানে জানানো হয়েছে, রাজ্যের আর্জি মেনে আগামী তিন মাসের জন্য বিপি গোপালিকার (BP Gopalika) কর্মজীবনের মেয়াদ বাড়ানো হয়েছে। উল্লেখ্য, আগামী ৩১ জুন রাজ্যের মুখ্যসচিব (Chief Secretary of West Bengal) পদ থেকে বিপি গোপালিকার অবসর নেওয়ার কথা ছিল। এদিকে বাংলায় ভোটগ্রহণ পর্ব সম্পন্ন হচ্ছে ১ জুন। নির্বাচনের ফলাফল প্রকাশ হবে ৪ জুন। এমতাবস্থার মুখ্যসচিবের মতো এত জরুরি একটি পদে নতুন কাউকে বসানো ঠিক হবে না বলে মনে করেছিল রাজ্য। সেই কারণে গত ২৬ ফেব্রুয়ারি তাঁর মেয়াদবৃদ্ধির আবেদন জানানো হয় কেন্দ্রের কাছে। এবার সেই আবেদনই মেনে নেওয়া হল। আরও পড়ুনঃ  ১ জুন বিরাট ‘কাণ্ড’ ঘটাতে চলেছে INDIA জোট, তোলপাড়! আজ নর্থ ব্লকের ‘কর্মীবর্গ, জন অভিযোগ, পেনশন এবং প্রশিক্ষণ মন্ত্রক’এর তরফ থেকে রাজ্যের অতিরিক্ত মুখ্যসচিবকে পাঠানো চিঠিতে লেখা হয়েছে, ‘রাজ্যের প্রস্তাব মেনে মুখ্যসচিব বিপি গোপালিকার কর্মজীবনের মেয়াদ আগামী ৩১ আগস্ট অবধি বাড়ানো হয়েছে’। উল্লেখ্য, রাজ্যের প্রস্তাব মতো মুখ্যসচিব পদে বদল না আনা হলেও, ভোটের আগে রাজ্য পুলিশের ডিজি পদে বদল এনেছিল নির্বাচন কমিশন। তাঁর জায়গায় অস্থায়ী ডিজি পদে প্রথমে বিবেক সহায়কে বসানো হয়। কিন্তু এরপর তাঁকেও সেই পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়। নির্বাচনের মাঝেই তাঁর রিটায়ারমেন্টের দিন হওয়ায় বিবেকের পরিবর্তে সঞ্জয় মুখোপাধ্যায়কে এই পদে আসীন করা হয়।

বাংলা হান্ট 27 May 2024 6:04 pm

গরমের ছুটি নিয়ে কী জানাল রাজ্য? কবে খুলছে স্কুল? বিভ্রান্ত না হয়ে দেখুন শিক্ষাদপ্তরের বিজ্ঞপ্তি

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ ফের পিছিয়ে গেল স্কুল খোলার দিন। রাজ্যের স্কুলে আরও বাড়ল ‘গরমে’র ছুটি(Summer Vacation)। ৩ জুন তারিখেই খুলে দেওয়া হবে রাজ্যে স্কুলগুলি। এমনই কথা ছিল। তবে সোমবার নয়া নির্দেশিকা জারি করেছে শিক্ষাদপ্তর জানিয়েছে ৩ জুন শিক্ষক-অশিক্ষক কর্মীদের স্কুলে যেতে হলেও পড়ুয়াদের এখনই যেতে হবে না। তারা স্কুল যাবে আরও এক সপ্তাহ পর। সরকারি নির্দেশিকা অনুযায়ী, রাজ্যের সমস্ত সরকারি, সরকারি সাহায্যপ্রাপ্ত প্রাথমিক- মাধ্যমিক-উচ্চ মাধ্যমিক স্কুল খুলছে ১০ জুন। সূত্রে জানা গিয়েছে, ভোটের আবহে স্কুলগুলি পড়ুয়াদের জন্য খোলা হবে না। বেশির ভাগ শিক্ষকই বর্তমানে ভোটের কাজে নিযুক্ত রয়েছেন। অনেক স্কুলে রয়েছে কেন্দ্রীয় বাহিনী। আগামী ১ জুন রয়েছে শেষ দফার ভোট। বিভিন্ন স্কুলে স্কুলে ভোটদান চলছে। ভোটকর্মী’ কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানরা স্কুলে স্কুলে ঠাঁই নিয়েছে। ভোটে ব্যবহারের কারণে স্কুলের অন্দরসজ্জা কিছুটা অগোছালো হয়ে রয়েছে। ৩ জুন স্কুল খুলে গেলে শিক্ষক ও অশিক্ষককর্মীরা স্কুলে গিয়ে সেই সমস্ত কিছু গুছিয়ে রাখবে। এরপর ১০ তারিখ থেকে স্কুল যাওয়া শুরু করবে পড়ুয়ারা। প্রসঙ্গত, দক্ষিণবঙ্গে তীব্র তাপপ্রবাহের জেরে গত ২২ এপ্রিল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলিতে আগাম গরমের ছুটি ঘোষণা করেছিল পশ্চিমবঙ্গ সরকার (Government of West Bengal)। গরমের জেরে যাতে ছাত্রছাত্রীরা অসুস্থ না হয়ে পড়ে সেই কারণেই তড়িঘড়ি পদক্ষেপ নেওয়া হয়। আরও পড়ুন:  ‘মুসলিম না, ফিরহাদ শুধুমাত্র মুসলমানের অভিনয় করেন’, মেয়রকে নিয়ে বিস্ফোরক অধীর তবে মাঝে বেশ কিছুদিন টানা বৃষ্টির জেরে তাপমাত্রা কমেছিল। সেই সময় স্কুল খুলে দেওয়ার দাবি জানিয়েছিল একাধিক শিক্ষা সংগঠন।এরই মধ্যে জানানো হয়েছে ৩ জুন তারিখেই খুলে দেওয়া হবে রাজ্যে স্কুলগুলি। আগামী ১০ জুন থেকে ফের স্বাভাবিক ছন্দে পড়ুয়ারা।

বাংলা হান্ট 27 May 2024 6:03 pm

ফিক্সড ডিপোজিটে মিলছে ৯.১০% সুদ! এই ব্যাঙ্কগুলোয় বিনিয়োগ করলে মোটা রিটার্ন নিশ্চিত

বাংলাহান্ট ডেস্ক : আমাদের দেশের অধিকাংশ মানুষ বিনিয়োগের মাধ্যম হিসেবে বেছে নেন ব্যাংকের ফিক্সড ডিপোজিটকে (Fixed Deposit)। ফিক্সড ডিপোজিটে বিনিয়োগ করা একদিকে যেমন নিরাপদ, অন্যদিকে এখান থেকে পাওয়া যায় নির্দিষ্ট পরিমাণ সুদ। মে মাসে বেশ কিছু ব্যাংক ফিক্সড ডিপোজিটের সুদের হার পরিবর্তন করেছে। বিভিন্ন স্মল ফিন্যান্স ব্যাংকগুলি ফিক্সড ডিপোজিটের উপর দিচ্ছে মোটা পরিমান সুদ। চলুন আজ আমরা জেনে নেব কিছু ব্যাংকের ফিক্সড ডিপোজিট রেট সম্পর্কে যেগুলি মে মাসে পরিবর্তিত হয়েছে। স্টেট ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া : স্থায়ী আমানতের উপর সুদের হার বৃদ্ধি করেছে স্টেট ব্যাংক। নতুন সুদের হার প্রযোজ্য হয়েছে ১৫ ই মে থেকে। আইডিএফসি ফার্স্ট ব্যাংক : দু কোটি টাকার কম আমানতের উপর সুদের হার পরিবর্তন করেছে আইডিএফসি ফার্স্ট ব্যাংক। নতুন সুদের হার প্রযোজ্য হয়েছে ১৫ ই মে থেকে। সাত দিন থেকে দশ বছরের স্থায়ী আমানতে এই ব্যাংক প্রদান করছে ৩% থেকে ৭.৯০% সুদ। এই ব্যাংক প্রবীণ নাগরিকদের ০.৫০% সুদ অতিরিক্ত দিচ্ছে। এই ব্যাংক থেকে প্রবীণ নাগরিকরা স্থায়ী আমানতের উপর সর্বোচ্চ ৮.৪% সুদ পেতে পারেন। আরোও পড়ুন :  এবার আরো সস্তায় হয়ে যাবে সিকিম সফর! কমে যাচ্ছে গাড়ি ভাড়ার খরচ, নির্দিষ্ট রেট প্রকাশ সরকারের ডিসিবি ব্যাংক : ২ কোটি টাকার কম স্থায়ী আমানতে সুদের হার বৃদ্ধি করেছে ডিসিবি ব্যাংক। ২২ শে মে থেকে কার্যকর হয়েছে নতুন সুদের হার। ১৯ মাস থেকে ২০ মাসের স্থায়ী আমানতে পাওয়া যাচ্ছে ৮.০৫% সুদ। এই মেয়াদে টাকা গচ্ছিত রাখলে প্রবীণ নাগরিকরা পেয়ে যাবেন ৮.৫৫% সুদ। আরবিএল ব্যাংক : সুদের হার পরিবর্তন করেছে আরবিএল ব্যাংক। ১৮ থেকে ২৪ মাসের ফিক্সড ডিপোজিটে এই ব্যাংক প্রদান করছে ৮% সুদ। আরোও পড়ুন :  মাধ্যমিক উত্তীর্ণ হলে মিলবে পোস্ট অফিসে চাকরি! মাসিক বেতন ৪০ হাজার টাকা,অ্যাপ্লাই না করলেই লস সিটি ইউনিয়ন ব্যাংক : এই ব্যাংকের স্থায়ী আমানতে পাওয়া যাচ্ছে ৫% থেকে ৭.২৫% সুদ। ৪০০ দিনের ফিক্সড ডিপোজিটে এই ব্যাংক দিচ্ছে সর্বোচ্চ ৭.২৫ শতাংশ সুদ। উৎকর্ষ স্মল ফিনান্স ব্যাংক : ১ লা মে থেকে স্থায়ী আমানতে সুদের হার বৃদ্ধি করেছে উৎকর্ষ স্মল ফিনান্স ব্যাংক। স্থায়ী আমানতে এই ব্যাংক প্রদান করছে ৪ শতাংশ থেকে সর্বোচ্চ ৮.৫০ শতাংশ সুদ। দুই বছর থেকে তিন বছর মেয়াদের ফিক্সড ডিপোজিটে সাধারণ নাগরিকরা সর্বোচ্চ ৮.৫০% সুদ পেয়ে যাবেন , সেখানে প্রবীণ নাগরিকদের দেওয়া হচ্ছে ৯.১০% সুদ।

বাংলা হান্ট 27 May 2024 5:55 pm

‘সম্পর্কে, আর এক ঘরে থাকা…’বিয়ের আগেই দেবের সাথে লিভ-ইন নিয়ে মুখ খুললেন রুক্মিণী

বাংলা হান্ট ডেস্ক: বিনোদন জগতে একের পর এক বাজছে বিয়ের সানাই। তাই ইদানিং টলিউড (Tollywood) সুপারস্টার দেবের (Dev) সাথে তাঁর দীর্ঘদিনের প্রেমিকা রুক্মিণী মিত্রের (Rukmini Mitra) বিয়ে নিয়েও তৈরি হয়েছে বিরাট কৌতূহল। এই মুহূর্তে অভিনয়ের পাশাপাশি রাজনীতি নিয়েও বেশ খোলামেলা জবাব দিয়ে থাকেন দেব। কিন্তু আজ পর্যন্ত যতবারই বিয়ের প্রশ্ন উঠেছে পাশ কাটিয়ে চলে গিয়েছেন টলিউড তারকা। তাই সকলের মনেই কৌতূহল তবে কি সম্পর্কে থাকলেও বিয়েতে বিশ্বাসী নন এই টলিউড তারকা? তাহলে কি সত্যিই বিয়ে করবেন না দেব-রুক্মিণী? প্রসঙ্গত দেব বর্তমানে রাজ্যের লোকসভা নির্বাচন নিয়ে ব্যস্ত। অন্য দিকে রুক্মিণী-ও ব্যস্ত রয়েছেন তাঁর আসন্ন সিনেমা ‘বুমেরাং’-র প্রচার নিয়ে। সম্প্রতি এই সিনেমার প্রচারের ফাঁকেই রুক্মিণীর কাছে দেবের সঙ্গে বিয়ে নিয়ে প্রশ্ন করা হলে এদিন হাসি মুখেই অনুরাগীদের আশ্বস্ত করে বলেছেন বিয়েতে বিশ্বাস রয়েছে তাঁর। তাই ভবিষ্যতে বিয়ে করার পরিকল্পনাও রয়েছে। অভিনেত্রীর কথায়, ‘আমার একটা সম্পর্ক আছে। আর সেটা যতটা ভালোবাসার, তার থেকে অনেক বেশি সম্মানের। ২০১৭-তে আমি সিনেমা জগতে আসার অনেক আগে থেকে।’ শুধু তাই নয়,অভিনেত্রী  এদিন স্পষ্ট বলে দিয়েছেন তাঁর কাছে সবচেয়ে প্রয়োজন ভালো থাকা, খুশি থাকা, আর সঙ্গে অবশ্যই একে-অপরের উপর বিশ্বাস। রুক্মিণীর কথায়, ‘আমার কাছে আমার মনের মানুষটা প্রাইমারি। বাকি সব সেকেন্ডারি। আমরা না এখন সোশ্যাল মিডিয়ায় বিয়ের ফোটোটা, তারপর কোথাও ঘুরতে গেলাম সেটাতেই আটকে আছি। আমি সত্যি ভালো আছি, খুশি আছি, কমিটমেন্ট আছি, এটাই দরকার। এই সম্মান, এই কমিটমেন্টটাই দরকার আমার কাছে।’ আরও পড়ুন: ঘূর্ণিঝড়ের দাপটে ওলট পালট টলি কুইন ঋতুপর্ণার সব! ঘরে বসেই মন খারাপ অভিনেত্রীর শুধু তাই নয়, ভবিষ্যতে দেবের লিভ ইন করার প্রসঙ্গেও এদিন রুক্মিণী বলেছেন, ‘এভাবে বলা মুশকিল। কখন কী হবে। আমি আমার মা-বাবার খুব ভালো সম্পর্ক দেখেছি। আমার বাবাকে শেষ দিন অবধি মাকে চুমু খেতে দেখেছি। তবে আরেক দিক থেকে আমি আমার চেনা অনেককে বলতে শুনেছি, এই মানুষটাকে আগে থেকে চিনলে, বিয়ে করতাম না।’ এরপরেই এদিন রুক্মিণী বলেন ‘কোথাও না কোথাও আমি মনে করি একটা মানুষের সঙ্গে সম্পর্কে থাকা আর সেই মানুষটার সঙ্গে এক ঘরে থাকার মধ্যে অনেক পার্থক্য আছে। তোমার যদি মনে হয় তুমি লিভ ইন করে মানুষটাকে আরও ভালো করে চিনতে পারবে, তাহলেও তাই করো। কে কী বলল, ভেবে লাভ নেই। যদি পরিবার পাশে থাকে, তোমার সিদ্ধান্ত নিতে সুবিধে হয়, তাই করো।’

বাংলা হান্ট 27 May 2024 5:42 pm

১ জুন বিরাট ‘কাণ্ড’ ঘটাতে চলেছে INDIA জোট, তোলপাড়!

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ গত এপ্রিল মাস থেকে শুরু হয়েছে ‘দিল্লি দখলের লড়াই’। দেখতে দেখতে তা একেবারে অন্তিম লগ্নে এসে পৌঁছেছে। আগামী ১ জুন রাজ্যে সপ্তম তথা শেষ দফার নির্বাচন (Lok Sabha Election 2024)। এর ঠিক তিনদিন পর ৪ জুন প্রকাশিত হবে ভোটের ফলাফল। তার আগে সপ্তম দফার ভোটের দিন গুরুত্বপূর্ণ বৈঠক ডাকল INDIA জোট। সোমবার জনপ্রিয় এক সংবাদমাধ্যমের তরফ থেকে এমনটাই দাবি করা হয়েছে। সেখানে এক ঘনিষ্ঠ সূত্রের কথা উদ্ধৃত করে লেখা হয়েছে, আগামী শনিবার তথা ১ জুন রাজধানী দিল্লিতে INDIA জোটের একটি বৈঠক ডাকা হয়েছে। সেখানে ভোট পরবর্তী কর্মসূচি নিয়ে আলোচনা হবে বলে খবর। চব্বিশের লোকসভা নির্বাচনে জোট (INDIA Alliance) তৈরি করে লড়ার ফলে কেমন প্রতিক্রিয়া মিলেছে, নির্বাচনের ফলাফল কেমন হতে পারে এবং সর্বোপরি INDIA জোটের ফলাফল যদি ভালো হয় তাহলে আগামী কী পদক্ষেপ নেওয়া হবে সেই বিষয়ে এই বৈঠকে আলোচনা করা হবে বলে জানা যাচ্ছে। কংগ্রেস সভাপতি মল্লিকার্জুন খাড়গে আগামী শনিবার এই বৈঠক ডেকেছেন। আরও পড়ুনঃ  গরমের ছুটি শেষ! এদিন থেকে খুলছে রাজ্যের স্কুল, ভোটের মধ্যেই ঘোষণা শিক্ষা দফতরের চলতি লোকসভা নির্বাচনে আসন সংখ্যার নিরিখে যদি দূরত্ব কমে আসে তাহলে সেক্ষেত্রে জোটের বাইরে থাকা দলগুলির সঙ্গে আলাপ-আলোচনার প্রস্তাবও উঠতে পারে বলে খবর। এমনকি সবচেয়ে জরুরি বিষয়, INDIA জোটের প্রধানমন্ত্রীর মুখ হিসেবে কাকে তুলে ধরা হবে সেই নিয়েও এই বৈঠকে আলোচনা হতে পারে বলে সূত্র মারফৎ জানা গিয়েছে। INDIA জোটের শরিক দলগুলির বিশ্বাস, এই নির্বাচনে তাঁদের সম্মিলিত লড়াইয়ে BJP পরাজিত এবং তারা সরকার গড়তে সমর্থ হবে। এছাড়া দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী তথা INDIA জোটের অন্যতম শরিক দলের নেতা অরবিন্দ কেজরিওয়াল আগামী ২ জুন জেলে ফিরে যাবেন। তিনি জামিনের মেয়াদ আরও ৭ দিন বৃদ্ধির আবেদন জানালেও আদালত কী বলবে তা এখনও জানা নেই। সেই কারণে আগামী ১ জুনের মধ্যেই গুরুত্বপূর্ণ আলোচনা সেরে ফেলতে চাইছে এই জোটের সকল দল। এদিকে ইতিমধ্যেই কংগ্রেস জানিয়েছে, তাঁরা প্রধানমন্ত্রীর কুর্সিতে আসীন হতে চায় না। সেক্ষেত্রে যদি INDIA জোট সরকার গঠন করে তাহলে এই পদের দাবিদার কে হবেন? শরিক দলগুলির মধ্যে এই নিয়ে ‘দড়ি টানাটানি’ হবে বলে মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল। এনসিপির শরদ পাওয়ার দৌড়ে এগিয়ে থাকলেও শারীরিক অবস্থার দরুন তিনি সরে আসতে পারেন। এদিকে আবগারি দুর্নীতি মামলায় জড়ানোর কেজরিওয়ালের রাজনৈতিক ভাবমূর্তি খানিক ক্ষুন্ন হয়েছে। কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ফারুন আবদুল্লা প্রবীণ নেতা হলেও তাঁর দলের আসন সংখ্যা নগন্য। প্রধানমন্ত্রীর পদের পাশাপাশি গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রকগুলির দাবিদার কারা হবে সেই বিষয়েও আগামী শনিবারের বৈঠকে আলোচনা হতে পারে বলে খবর।

বাংলা হান্ট 27 May 2024 5:32 pm

মমতার পুলিশের বিরুদ্ধে EVM লুঠের অভিযোগ! হাতেনাতে ধরলেন সৌমিত্র খাঁ, রণংদেহি অবতারে BJP প্রার্থী

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ চব্বিশের লোকসভা নিরবাচুনে বিষ্ণুপুর কেন্দ্রের দিকে নজর রয়েছে অনেকের। বিদায়ী সাংসদ সৌমিত্র খাঁ-কেই (Saumitra Khan) পুনরায় এই আসনে দাঁড় করিয়েছে বিজেপি শিবির। ইতিমধ্যেই বিষ্ণুপুরে নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে। গত শনিবার ভোট হয়েছে এখানে। এবার ভোট মিটতেই গুরুতর অভিযোগ আনলেন পদ্ম প্রার্থী। EVM লুঠ করছে পুলিশ, লাইভে এসে ক্ষোভ উগড়ে দিলেন তিনি। সোমবার একদিকে রেমালের দাপটে যখন রাজ্যজুড়ে বৃষ্টি হচ্ছে, তখন ময়দানে নেমে পড়েছেন সৌমিত্র। এদিন দুপুরে ফেসবুক লাইভে এসে EVM লুঠের অভিযোগ আনেন তিনি। লাইভ ভিডিওয় ক্ষোভ উগড়ে দিতে দেখা যায় বিষ্ণুপুরের (Bishnupur) পদ্ম প্রার্থীকে। লাইভের ক্যাপশনে লেখেন, ‘বাঁকুড়া জেলার অ্যাডিশনাল এসপি এবং বিষ্ণুপুরের এসডিপিও এবং আইসি দেখুন কীভাবে সিসিটিভি চেঞ্জ করে ইভিএম লুঠ করার চেষ্টা করছে’। লাইভের শুরুতেই সৌমিত্রকে বলতে শোনা যায়, ‘মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কত দম আছে আমি জানি’। এরপর সরাসরি ইভিএমের বক্স ভাঙার চেষ্টা করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করেন তিনি। সৌমিত্র বলেন, মেশিন বদলাবে বলে দুপুর বেলায় গাড়ি নিয়ে পুলিশবাহিনী চলে এসেছে। ক্যামেরায় সেই ছবিও দেখান তিনি। আরও পড়ুনঃ  গরমের ছুটি শেষ! এদিন থেকে খুলছে রাজ্যের স্কুল, ভোটের মধ্যেই ঘোষণা শিক্ষা দফতরের সৌমিত্র বলেন, ‘আমি পশ্চিমবঙ্গের সমস্ত ইভিএম সেন্টারে সমস্ত বিজেপি কর্মী এবং জাতীয় নির্বাচন কমিশনকে অনুরোধ করছি, কেন শুধুমাত্র পুলিশ অফিসারেরা ইভিএম যেখানে তালা দেওয়া রয়েছে সেখানে যাবে?’ বিষ্ণুপুরের বিজেপি প্রার্থী বলেন, সব জায়গায় এমনটা করার চেষ্টা করা হচ্ছে। অতি সত্ত্বর এর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার আর্জি জানান তিনি। সেই সঙ্গেই সিসিটিভির সঙ্গে কাটাছেঁড়া করা হচ্ছে বলেও অভিযোগ আনেন সৌমিত্র। সরাসরি এসডিপিও বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ এনেছেন তিনি। এরপর রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীর উদ্দেশে সৌমিত্র বলেন, এখানে সিসিটিভি খারাপ করার চেষ্টা করছেন তিনি। এরপর দ্বিতীয় লাইভে এক যুবককে দেখিয়ে তিনি বলেন, সিসিটিভি খারাপ করতে যে এসেছিলেন তা এবার হাতেনাতে ধরা পড়েছে। সেই যুবককে বেশ কিছু সিসিটিভি ক্যামেরা হাতে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যায়। ঘটনাস্থলে উপস্থিত পুলিশবাহিনীর উদ্দেশে ‘চোর চোর’ বলতেও শোনা যায় সৌমিত্রকে। সব মিলিয়ে, এদিন একেবারে রণংদেহি মেজাজে দেখা গিয়েছিল তাঁকে। ইতিমধ্যেই বিজেপি নেতার এই লাইভ বেশ সাড়া ফেলে দিয়েছে। এই লাইভের মাধ্যমে একাধিকবার নির্বাচন কমিশনের দৃষ্টি আকর্ষণের চেষ্টা করেছেন তিনি। এবার দেখা যাক, কমিশন কোনও পদক্ষেপ গ্রহণ করে কিনা।

বাংলা হান্ট 27 May 2024 5:29 pm

এবার আরো সস্তায় হয়ে যাবে সিকিম সফর! কমে যাচ্ছে গাড়ি ভাড়ার খরচ, নির্দিষ্ট রেট প্রকাশ সরকারের

বাংলাহান্ট ডেস্ক : কেন্দ্রের একটি চিঠিতেই গাড়ি ভাড়া কমানোর সিদ্ধান্ত নিল সিকিম সরকার। সিকিম (Sikkim) প্রশাসনের পক্ষ থেকে ইতিমধ্যেই গাড়ি ভাড়ার নতুন চার্ট প্রকাশিত করা হয়েছে। এরপর যে সিকিম ভ্রমণের খরচ অনেকটা কমতে চলেছে তা বলাই যায়। গত ২৪শে মে একটি বৈঠক করে সিকিমের পর্যটন এবং অসামরিক পরিবহণ দফতর। গাড়ি ভাড়ার চার্টের পাশাপাশি এই বৈঠকে আলোচনা করা হয় গ্যাংটক থেকে নাথু লা, ছাঙ্গু লেক এবং বাবা মন্দির যাওয়ার পারমিটের খরচের ব্যাপারে। মুখ্য সচিবের ডাকা এই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন DGP, অতিরিক্ত স্বরাষ্ট্র সচিব, পর্যটন কমিশনার তথা পরিবহণ সচিব, পর্যটন সচিব এবং IG চেক পোস্ট ও সংশ্লিষ্ট সেনা অফিসারেরা। আরোও পড়ুন :  মাধ্যমিক উত্তীর্ণ হলে মিলবে পোস্ট অফিসে চাকরি! মাসিক বেতন ৪০ হাজার টাকা,অ্যাপ্লাই না করলেই লস সবার অনুমতি নিয়েই তৈরি করা হয়েছে ভাড়ার চার্ট। নতুন ভাড়ার চার্ট অনুযায়ী, লাক্সারী ট্যাক্সির ভাড়া কমিয়ে ৭০০০ টাকা ও সাধারণ ট্যাক্সির ভাড়া কমিয়ে ৬০০০ টাকা নির্দিষ্ট করা হয়েছে। নির্দিষ্ট এই ভাড়ার থেকে চালকরা যাত্রীদের কাছে অতিরিক্ত ভাড়া চাইতে পারবেন না। গাড়ি চালকেরা যদি এই ভাড়ার বাইরে টাকা দাবি করেন তাহলে পর্যটকেরা অভিযোগ জানাতে পারবেন। আরোও পড়ুন :  আর টিকতে পারবে না চীন! এবার মাথা নোয়াতেই হবে ভারতের কাছে, এই ৩ সূত্রেই আসবে সাফল্য অভিযোগ জানানোর ফোন নাম্বারগুলি হল : 9434182178 (পর্যটন দফতর), 7908081127 (পুলিশ চেক পোস্ট) এবং 9434126851 (পরিবহণ দফতর)।বিবৃতি জারি করে জানানো হয়েছে, কোনও গাড়িচালক বা গাড়ির মালিক নির্দিষ্ট চার্টের নিয়ম না মেনে অতিরিক্ত ভাড়া চাইলে তার বিরুদ্ধে কেন্দ্রীয় মোটর ভেহিকল অ্যাক্ট ১৯৮৮, কেন্দ্রীয় মোটর ভেহিকল রুল ১৯৮৯ এবং সিকিম মোটর ভেহিকল রুল ১৯৯১ অনুসারে আইনি পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে। মোটা টাকাও জরিমানা করা হতে পারে। সিকিমের পর্যটন এবং অসামরিক পরিবহণ দফতরের মুখ্য সচিব সি এস রাও বলছেন, ‘লাক্সারি গাড়ি এবং সাধারণ ট্যাক্সির জন্য যথাক্রমে ৭ হাজার এবং সাড়ে ৬ হাজার টাকা ভাড়া নির্ধারিত করা হয়েছে। এর মধ্যেই রয়েছে গ্যাংটক থেকে নাথু লা যাওয়ার জন্য রাউন্ড ট্রিপের পারমিট চার্জও। এই মুহূর্ত থেকে নয়া নির্ধারিত ভাড়া লাগু করা হচ্ছে।’

বাংলা হান্ট 27 May 2024 5:29 pm

KKR চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর রিঙ্কুকে এই ৩ টি কথা বলেন শাহরুখ! যেগুলি কখনোই ভুলবেন না তারকা খেলোয়াড়

বাংলা হান্ট ডেস্ক: চলতি বছরের IPL (Indian Premier League)-এ দুর্দান্ত পারফরম্যান্সের ওপর ভর করে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে KKR (Kolkata Knight Riders)। ফাইনাল ম্যাচে সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদকে (Sunrisers Hyderabad) হেলায় হারিয়ে দেয় কলকাতা। আর তারপরেই দীর্ঘ ১০ বছরের অপেক্ষা শেষে তৃতীয়বারের মতো IPL চ্যাম্পিয়ন হয় KKR। এদিকে, এই জয়ের পরে স্বাভাবিকভাবেই খুশির জোয়ারে ভাসতে থাকেন খেলোয়াড়রা। এছাড়াও, তাঁদের আনন্দের সাথে যুক্ত হন KKR-এর মালিক কথা বলিউড বাদশা শাহরুখ খান। এমতাবস্থায়, IPL ট্রফি হাতে কিং খানের বিভিন্ন ছবি এবং ভিডিও ইতিমধ্যেই ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। যদিও, সেগুলির মধ্যে রিঙ্কু সিংয়ের সঙ্গে তাঁর সেলিব্রেশনের একটি ভিডিও সকলের নজর কেড়েছে। পাশাপাশি, ওই ভিডিওটি উঠে এসেছে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতেও। pic.twitter.com/CezCDAnePz — Nihari Korma (@NihariVsKorma) May 27, 2024 মূলত, ফাইনাল ম্যাচ শেষ হওয়ার পর গত রবিবার রাতে শাহরুখ খান পুরো স্টেডিয়াম ঘুরে ভক্তদের ধন্যবাদ জানান। সেইসময়ে শাহরুখ খানের সঙ্গে আসেন দলের তারকা খেলোয়াড় রিঙ্কু সিংও। শাহরুখ প্রথমে রিঙ্কু সিংকে জড়িয়ে ধরেন। তারপর তিনি বললেন, “God’s Plan Bro”। আসলে, রিঙ্কু সিংকে একাধিক অনুষ্ঠানে “God’s Plan” শব্দটি ব্যবহার করতে দেখা গেছে। পাশাপাশি, ফাইনাল ম্যাচের পর সম্প্রচারকদের সাথে কথা বলার সময়ও রিঙ্কু এটি বলেছিলেন। আরও পড়ুন:  IPL চ্যাম্পিয়ন KKR! তারপরেই ভগবান কৃষ্ণকে স্মরণ করলেন গম্ভীর, নেটমাধ্যমে লিখলেন…. সেখানে তিনি জানান, “এটা একটা দারুণ অনুভূতি। আমার সাত বছরের স্বপ্ন পূরণ হয়েছে। শেষ পর্যন্ত আমি ট্রফি তুলব। এর পুরো কৃতিত্ব জিজি স্যারের (গৌতম গম্ভীর)। এটা ছিল ঈশ্বরের পরিকল্পনা (God’s Plan)।” যদিও, এর আগেও যশ দয়ালকে উৎসাহিত করতে এই শব্দটি ব্যবহার করেছিলেন রিঙ্কু সিং। চেন্নাই সুপার কিংসের বিরুদ্ধে দুর্দান্ত বোলিং করে RCB- কে প্লে-অফের টিকিট এনে দিয়েছিলেন দয়াল। তারপরে রিঙ্কু তাঁর ইনস্টাগ্রাম হ্যান্ডেলে যশ দয়ালের ছবির সাথে “God’s Plan”-এর উল্লেখ করেন। আরও পড়ুন:  “২৫ কোটির বোলার….”, সতীর্থরাই করত মজা! চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর “আক্ষেপ” স্টার্কের রিঙ্কু সিং: এই প্রসঙ্গে জানিয়ে রাখি যে, চলতি মরশুমে রিঙ্কু KKR-এর হয়ে খুব বেশি ব্যাট করার সুযোগ পাননি। তবে, তিনি যখনই ক্রিজে এসেছেন সেই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে ভালো পারফরম্যান্স প্রদর্শন করেছেন এই বাঁহাতি ব্যাটার। এই মরশুমে রিঙ্কু খেলেছেন ১৪ টি ম্যাচ। যেখানে তিনি ১৮.৬৭ গড়ে মোট ১৬৮ রান করেন। তাঁর স্ট্রাইক রেট ছিল ১৪৮.৬৭।

বাংলা হান্ট 27 May 2024 5:14 pm

IPL চ্যাম্পিয়ন KKR! তারপরেই ভগবান কৃষ্ণকে স্মরণ করলেন গম্ভীর, নেটমাধ্যমে লিখলেন….

বাংলা হান্ট ডেস্ক: ২০২৪-এর IPL (Indian Premier League)-এ চ্যাম্পিয়ন হয়েছে কলকাতা নাইট রাইডার্স (Kolkata Knight Riders)। দীর্ঘ ১০ বছরের অপেক্ষার পর ফের স্বপ্নপূরণ করল কলকাতা। তবে, এবারের মরশুমে কলকাতার চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পেছনে যাঁর অন্যতম অবদান রয়েছে তিনি হলেন গৌতম গম্ভীর (Gautam Gambhir)। এই প্রসঙ্গে জানিয়ে রাখি যে, ২০১২ এবং ২০১৪ সালে গম্ভীরের অধিনায়কত্বেই চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল KKR। কিন্তু, এবার গম্ভীর মেন্টর হিসেবে দলের সাথে যুক্ত হয়েছিলেন। আর তারপরে ফের বাজিমাত করেছেন তিনি। দলের দায়িত্ব পাওয়ার পর তাঁর নেওয়া বিভিন্ন সিদ্ধান্ত লাভবান করেছে KKR-কে। যার মধ্যে অন্যতম হল সুনীল নারিনকে নিয়মিতভাবে ওপেনিংয়ে পাঠানো। চলতি মরশুমে দাপটের সাথে ব্যাট করেছেন সুনীল। প্রায় প্রতিটি ম্যাচেই তিনি পেয়েছেন বড় রান। এমনকি করেছেন একটি সেঞ্চুরিও। তবে ফাইনাল ম্যাচে তিনি ব্যর্থ হলেও গম্ভীরের সৌজন্যেই তিনি সুযোগ পেয়েছিলেন ওপেনিংয়ের। আর সেই সুযোগকে ভালোভাবে কাজে লাগান নারিন। “जिसकी मति और गति सत्य की हो, उसका रथ आज भी श्री कृष्ण चलाते हैं” — Gautam Gambhir (Modi Ka Parivar) (@GautamGambhir) May 26, 2024 শ্রীকৃষ্ণকে স্মরণ করেন গম্ভীর: এদিকে, সুনীলের পাশাপাশি সমগ্র টুর্নামেন্ট জুড়েই শ্রেয়স আইয়ারের প্রতি বিশেষ দৃষ্টি নিক্ষেপ করেছিলেন গৌতম গম্ভীর। তিনি বিভিন্নভাবে গাইড করতে থাকেন KKR অধিনায়ককে। একদম প্রথম থেকেই চ্যাম্পিয়ন হওয়ার লক্ষ্যে দলের সাথে যুক্ত হয়েছিলেন গম্ভীর। তিনি বারংবার জানিয়েছিলেন, তাঁর কাছে সব থেকে গুরুত্বপূর্ণ হল সাফল্য। আরও পড়ুন:  IPL জিতে মাঠেই জয় শাহের সাথে আলোচনায় ব্যস্ত গম্ভীর! ভারতীয় দলের কোচ হওয়ার বিষয়ে বাড়ালেন জল্পনা এমতাবস্থায়, সেই লক্ষ্য পূরণের মাধ্যমে গম্ভীরের একটি পোস্ট এবার সকলের নজর কেড়েছে। পাশাপাশি ওই পোস্ট উঠে এসেছে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতেও। মূলত, KKR চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর গৌতম গম্ভীর সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি পোস্ট করেন। যেখানে তিনি লেখেন, “জিসকি মতি অর গতি সত্য কি হো, উসকা রথ আজ ভি শ্রী কৃষ্ণ চালাতে হ্যায়”। অর্থাৎ, যার বাংলা অনুবাদ করলে হয় “যার মতি এবং গতি সত্য হয়, তার রথ আজও কৃষ্ণ চালান।” আরও পড়ুন:  “২৫ কোটির বোলার….”, সতীর্থরাই করত মজা! চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর “আক্ষেপ” স্টার্কের ফাইনালে ঝড় তোলে KKR: চলতি বছরের IPL-এর ফাইনাল ম্যাচ সম্পন্ন হয় চেন্নাইয়ের চিপকে। যেখানে টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয় সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ। এদিকে, প্রথম ওভার থেকেই হায়দ্রাবাদের ওপর দাপট দেখাতে শুরু করে কলকাতা। শুধু তাই নয়, প্রথম ওভারে দলের ওপেনার অভিষেক শর্মাকে আউট করেন মিচেল স্টার্ক। ঠিক তারপরের ওভারেই বৈভব অরোরার বলে ক্রিজ ছাড়েন ট্রাভিস হেড। বাকি ম্যাচ জুড়ে KKR রীতিমতো ঝড় তুলতে শুরু করে। মাত্র ১১৪ রানের লক্ষ্যমাত্র তাড়া করতে নেমে ৫৭ বল বাকি থাকতে ৮ উইকেটে জিতে যায় নাইটরা।

বাংলা হান্ট 27 May 2024 5:07 pm

India-Taiwan: পাক অধিকৃত কাশ্মীরের বদলা নিতেই ঘুঁটি সাজাচ্ছে ভারত! বেজিংয়ের শত্রুর সঙ্গে আরও মজবুত হচ্ছে বন্ধুত্ব

বাংলা হান্ট ডেস্ক: ভারতের প্রতিবেশী দেশ পাকিস্তানের (Pakistan) সাথে কিন্তু বরাবরই বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক বজায় রেখেছে চীন (China)। তবে এই চীনের সাথে বিরাট রাজনৈতিক ব্যবধান রয়েছে তারই পড়শি দেশ তাইওয়ানের (Taiwan)। তাই এবার শত্রুর শত্রুকে বন্ধু বানানোর পুরনো প্রবাদকে হাতিয়ার বানাতে চলেছে ভারত (India)। তাই অতীতে দেখা গিয়েছে চীনকে চাপে রাখতেই আমেরিকা বরাবরই তাইওয়ানের স্বশাসনকে বেশি গুরুত্ব দিয়ে এসেছে। যদিও আনুষ্ঠানিকভাবে তাইওয়ানকে এখনও স্বশাসিত রাষ্ট্রের স্বীকৃতি দেয়নি ওয়াশিংটন। তাইওয়ানকে বরাবরই চিনের অংশ বলেই মনে করে বেজিং। শি জিনপিং সরকারের আমলেও অব্যাহত সেই নীতি।যদিও সেই দাবি বরাবরই অস্বীকার করে এসেছে তাইওয়ান। কিন্তু তাইওয়ান দখল করতেই ক্রমশ আগ্রাসী নীতি অবলম্বন করে চলেছে বেজিং। শুধু তাই নয় চিনের বিরুদ্ধে  অভিযোগ, তাইওয়ানের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনেও নাকি  প্রভাব খানাৰ  চেষ্টা করেছিল শি জিনপিংয়ের দেশ। এমনকি তাইওয়ানের মানুষকে নাকি ভোট দিতেও  নিষেধ করেছিল বেজিং। কিন্তু চীনের ভ্রূকুটির তোয়াক্কা না করেই ভোট দিয়েছিল তাইওয়ান। আর তারপর  তাইওয়ানে আবার ক্ষমতায় আসেন চিন-বিরোধী ডেমোক্রেটিক প্রগ্রেসিভ পার্টি (ডিপিপি)-র নেতা লাই চিং তে। যদিও এতদিন চিন-তাইওয়ান-এর মধ্যে কারও পক্ষই নেয়নি ভারত। এমনকি ১৯৬২ সালের ভারত-চিন যুদ্ধের পরেও ‘এক এবং অখণ্ড চিন’ নীতিকে সমর্থন করে এসেছে ভারত। তবে চিন যবে থেকে পাক অধিকৃত কাশ্মীর দিয়ে বাণিজ্যপথ (বেল্ট অ্যান্ড রোড ইনিসিয়েটিভ) তৈরির উদ্যোগ নিতে শুরু করেছে তবে থেকেই তাইওয়ানের সঙ্গে বন্ধুত্ব বেড়েছে ভারতের।আর তাই এবার বেজিং-তাইপেই দুই পক্ষের এই সম্পর্ককে হাতিয়ার করেই নিজেদের বৈদেশিক নীতির কাজে লাগাচ্ছে ভারত। আরও পড়ুন: লন্ডনে নিলামে উঠবে ১০৬ বছরের পুরনো ১০ টাকার ভারতীয় নোট! দাম জানেন কত? মূলত এই কারণেই সম্প্রতি ভারতের ‘ইন্ডিয়া-তাইপেই অ্যাসোসিয়েশন’ এবং ‘তাইপেই ইকোনমিক অ্যান্ড কালচারাল সেন্টার’-এর মধ্যে মউ (সমঝোতাপত্র) স্বাক্ষরিত হয়েছে। যা থেকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে তাইওয়ানের শ্রমিক সমস্যা মেটাতে এবার ভারতের যোগ্য আবেদনকারীরা তাইওয়ানে কাজের জন্য আবেদন জানাতে পারবেন। এমনকি জানানো হয়েছে যোগ্যতার পরিচয় দিতে পারলে ওই কর্মীদের স্থায়ী করার পাশাপাশি  সম্পূর্ণ নিরাপত্তা দেবে তাইওয়ান সরকার। সূত্রের খবর বর্তমানে প্রায় ৫০০০ ভারতীয় তাইওয়ানের বিভিন্ন সংস্থায় উচ্চপদে কর্মরত। তা ছাড়াও রয়েছেন আরও অন্যান্য পদে কর্মরত রয়েছেন আরও কয়েক হাজার ভারতীয়।তবে আনুষ্ঠানিক ভাবে নয়াদিল্লি তাইওয়ানকে স্বীকৃতি না-দেওয়ায় এখনও পর্যন্ত কোনও কূটনৈতিক সম্পর্ক তৈরী হয়নি। এই মুহূর্তে  নয়াদিল্লি বা তাইপেইতে কোনও দূতাবাসও নেই। তবে এই মুহূর্তে  ‘ইন্ডিয়া-তাইপেই অ্যাসোসিয়েশন’ এবং ‘তাইপেই ইকোনমিক অ্যান্ড কালচারাল সেন্টার’-ই দুই জায়গার দূতাবাসের ভূমিকা পালন করে।

বাংলা হান্ট 27 May 2024 4:44 pm

গরমের ছুটি শেষ! এদিন থেকে খুলছে রাজ্যের স্কুল, ভোটের মধ্যেই ঘোষণা শিক্ষা দফতরের

বাংলা হান্ট ডেস্ক: এপ্রিলের প্রবল গরমের কারণে নাজেহাল দশা হয়েছিল দক্ষিণবঙ্গবাসীর। সেই আবহে স্কুল পড়ুয়াদের কথা ভেবে এগিয়ে আনা হয়েছিল গরমের ছুটি। মে মাসে বৃষ্টিবাদলের কারণে তেমন তাপপ্রবাহ সহ্য করতে হয়নি দক্ষিণবঙ্গবাসীকে। এমতাবস্থায় পুনরায় স্কুল কবে খুলবে তা নিয়ে কয়েকদিন ধরেই জোর চর্চা চলছিল। অবশেষে সপ্তম দফার নির্বাচনের আগে শিক্ষা দফতরের তরফ থেকে ঘোষণা করে দেওয়া হল সেই দিনক্ষণ। রাজ্যের পড়ুয়াদের তীব্র তাপপ্রবাহ থেকে বাঁচাতে গত ২২ এপ্রিল আগাম গরমের ছুটি ঘোষণা করা হয়েছিল। প্রখর গরমের কারণে যাতে ছোট ছোট ছাত্রছাত্রীরা অসুস্থ না হয়ে পড়ে সেই কারণে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। আগামী ২ জুন অবধি ছুটি ঘোষণা করা হয়। সেই অনুযায়ী ৩ জুন থেকে স্কুল খুলে যাওয়ার কথা। তবে সোমবার শিক্ষা দফতরের তরফ থেকে নির্দেশিকা জারি করে জানানো হয়েছে, আগামী ১০ জুন থেকে স্কুল খুলতে চলেছে। সেই সঙ্গেই জানানো হয়েছে, সরকারি এবং সরকার পোষিত বিদ্যালয়গুলির শিক্ষক-শিক্ষিকা এবং শিক্ষাকর্মীদের ছুটি ১০ জুনের কিছুটা আগেই শেষ হতে চলেছে। আজকের নির্দেশিকায় জানানো হয়েছে, ৩ জুন তথা পরের সোমবার থেকেই তাঁদের বিদ্যালয়ে যেতে হবে। আগামী ৪ জুন ২০২৪ লোকসভা নির্বাচনের ফলপ্রকাশ। সেই কারণে বিদ্যালয়গুলিতে কেন্দ্রীয় জওয়ানরা থাকছেন। তাই ৯ জুনের আগে ক্লাস চালু করা সম্ভব নয়। তাই পড়ুয়ারা ১০ জুন থেকে ফের বিদ্যালয়ে আসবে। আরও পড়ুন:  ‘কোমর বেঁধে ঝগড়া করতে পারে’! মিমির বদলে কেন সায়নীকে টিকিট? ‘আসল কারণ’ ফাঁস মমতার! এদিকে চলতি বছর ৬ মে থেকে রাজ্যের বিদ্যালয়গুলিতে গরমের ছুটি পড়ার কথা ছিল। কিন্তু এপ্রিল মাসে তীব্র তাপপ্রবাহের কারণে ছুটি এগিয়ে আনা হয়। কারণ বহু শিক্ষার্থী গরমের কারণে অসুস্থ হয়ে পড়েছল। পড়ুয়াদের যাতে এভাবে কষ্ট না পেতে হয় সেই কারণে ছুটি এগিয়ে আনার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল। এবার দীর্ঘ সেই ছুটি কাটিয়ে স্কুল খোলার পালা এসে গিয়েছে। ভোট মিটলেই ফের বিদ্যালয়ে গিয়ে ক্লাস শুরু হয়ে যাবে পড়ুয়াদের। এদিকে মে মাস থেকে আবহাওয়ার খানিক বদল হতেই পুনরায় স্কুল খোলার দাবি উঠতে শুরু করেছিল। দু’টি শিক্ষক সংগঠনের তরফ থেকেও দাবি করা হয়েছিল যে এখন বিদ্যালয় খোলা হোক, পরে যদি তাপমাত্রা ফের বৃদ্ধি পায় তখন ছুটি ঘোষণা করা হবে। তখন থেকেই গরমের ছুটি কবে শেষ হবে তা নিয়ে চর্চা চলছিল। অবশেষে আজ নির্দেশিকা জারি করে সেকথা ঘোষণা করে দিল শিক্ষা দফতর।

বাংলা হান্ট 27 May 2024 4:40 pm

মাধ্যমিক উত্তীর্ণ হলে মিলবে পোস্ট অফিসে চাকরি! মাসিক বেতন ৪০ হাজার টাকা,অ্যাপ্লাই না করলেই লস

বাংলাহান্ট ডেস্ক : আপনি কি চাকরির সন্ধানে রয়েছেন? তাহলে আপনার জন্য সুবর্ণ সুযোগ নিয়ে এসেছে ভারতীয় ডাক বিভাগ (India Post)। সূত্রের খবর, ভারতীয় ডাক বিভাগ বিভিন্ন পদে প্রচুর পরিমাণ নিয়োগ করতে চলেছে। যদি আপনি একজন চাকরি প্রার্থী হন, তাহলে অবশ্যই মন দিয়ে পড়ে ফেলুন আজকের এই প্রতিবেদন। ৪০ হাজার পদে নিয়োগ (Recruitment) করতে চলেছে ভারতীয় ডাক বিভাগ। নূন্যতম মাধ্যমিক উত্তীর্ণ হলেই এই পদে করা যাবে আবেদন। ১৮ থেকে ৪০ বছর বয়সীরা আবেদনের যোগ্য। জানা গেছে, অনলাইন মাধ্যমে বেছে নেওয়া হবে যোগ্য প্রার্থীদের। চলুন জেনে নেওয়া যাক বিস্তারিত। আরোও পড়ুন :  আর টিকতে পারবে না চীন! এবার মাথা নোয়াতেই হবে ভারতের কাছে, এই ৩ সূত্রেই আসবে সাফল্য পদের নাম (Name of the Post) : ভারতীয় ডাক বিভাগ নিয়োগ করতে চলেছে BPM, ABPM, BPO, GDS পদে। মোট শূন্যপদের সংখ্যা (Total Vacancy) : সব মিলিয়ে চল্লিশ হাজার শূন্যপদে নিয়োগ করা হবে বলে জানা গেছে। বয়সসীমা (Age Limit) : এই পদগুলিতে আবেদনের জন্য কমপক্ষে ১৮ বছর বয়স হতে হবে। সর্বোচ্চ ৪০ বছর বয়সী প্রার্থীরা এখানে আবেদন জানাতে পারবেন। আরোও পড়ুন :  পরনে শাড়ি, খোলা চুল! জাপানের রাস্তায় ভারতীয় ঐতিহ্যকে তুলে ধরলেন এই নারী, চর্চা নেটপাড়ায় বেতন (Salary) : পদ অনুযায়ী বেতন দেওয়া হবে প্রার্থীদের। এছাড়া থাকছে অন্যান্য সরকারি সুযোগ-সুবিধা। আবেদন প্রক্রিয়া (Application Process) : ইচ্ছুক প্রার্থীরা আবেদন জানাতে পারেন অনলাইন মাধ্যমে। নির্দিষ্ট ওয়েবসাইটে গিয়ে আবেদন জানাতে হবে প্রার্থীদের। শিক্ষাগত যোগ্যতা (Education Qualification) : নূন্যতম মাধ্যমিক উত্তীর্ণ হলে করা যাবে আবেদন। আবেদনের শেষ তারিখ (Last date of application) : এই নিয়োগ সংক্রান্ত সরকারি বিজ্ঞপ্তি এখনও প্রকাশিত হয়নি। জানা যাচ্ছে, জুন মাসের প্রথম সপ্তাহে বিজ্ঞপ্তি জারি হতে পারে।

বাংলা হান্ট 27 May 2024 4:38 pm

আর টিকতে পারবে না চীন! এবার মাথা নোয়াতেই হবে ভারতের কাছে, এই ৩ সূত্রেই আসবে সাফল্য

বাংলাহান্ট ডেস্ক : একটা সময় ছিল যখন ভারতবর্ষ (India) বিশ্বের অন্যতম দরিদ্র দেশগুলির তালিকায় অবস্থান করত। তবে ক্রমাগত অর্থনৈতিক উন্নতি ভারতকে আজ পৌঁছে দিয়েছে অনন্য স্থানে। চীন (China) ও ভারতের মধ্যে জোর লড়াই চলছে অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে। মাত্র তিনটি ফর্মুলা অনুসরণ করলেই ভারত ছাপিয়ে যাবে চীনকে। তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থা ইনফোসিসের প্রতিষ্ঠাতা নারায়ণ মূর্তি সম্প্রতি এই কথাই জানালেন। ইকোনমিক টাইমস পত্রিকাকে কিছুদিন আগে একটি সাক্ষাৎকার দিয়েছিলেন নারায়ণ মূর্তি। তিনি সেখানে বলেন, প্রথমেই ব্যবসা বান্ধব পরিবেশ তৈরি করতে হবে দেশে। অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে অগ্রাধিকার দিতে হবে শিল্পপতি ও উদ্যোগপতিদের। সরকারি তরফে এই সুবিধা পাওয়া গেলে চীনকে টপকে যেতে পারে ভারত। আরোও পড়ুন :  পরনে শাড়ি, খোলা চুল! জাপানের রাস্তায় ভারতীয় ঐতিহ্যকে তুলে ধরলেন এই নারী, চর্চা নেটপাড়ায় দ্রুত নিষ্কাশন করতে হবে জমি সংক্রান্ত জটিলতা। জমি সংক্রান্ত জটিলতা দেখা দিলে উদ্যোগপতিরা সিদ্ধান্ত নিতে দেরি করবেন। এর কারণে কমে যেতে পারে কাজের অগ্রগতি। এছাড়াও জমি সংক্রান্ত জটিলতার কারণে বিদেশি বিনিয়োগকারীরাও মুখ ফেরাতে পারেন। তাই দ্রুত জমি সংক্রান্ত জটিলতা মেটানোর উদ্যোগ নিতে হবে। আরোও পড়ুন :  এ কী অবস্থা! জলে ভাসছে পার্কস্ট্রিট, এসপ্ল্যানেড স্টেশনের মাঝের ট্র্যাক, ৪ ঘন্টা চলল না মেট্রো এছাড়াও ইনফোসিস প্রধান বলেন, অর্থনৈতিক সচল রাখার জন্য অবশ্যই জোর দিতে হবে কর্মসংস্থানের উপর। শুধু সরকার নয়, শিল্পপতিদেরও কর্মসংস্থানের উপর নজর দিতে হবে। নিয়োগ যত বেশি হবে ততই বাড়বে নাগরিকদের আয়। সোজা ভাষায় বলতে গেলে সাধারণ নাগরিকদের হাতে অর্থ থাকলে তারা মন খুলে খরচ করতে পারবে। এর ফলে বৃদ্ধি পাবে ব্যবসার বাজার। চাঙ্গা হবে দেশের অর্থনীতি।   বিশেষজ্ঞরা অনেকেই বলছেন যে আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স যেভাবে জাঁকিয়ে বসছে তাতে মন্দা দেখা দিতে পারে বাজারে। তবে ইনফোসিসের প্রতিষ্ঠাতা বলছেন, AI -কে যদি দৈনন্দিন জীবনের সাথে মেশানো যায় তবে কম খরচে বেশি কাজ করা সম্ভব। এই AI আর্থিক উন্নতির অন্যতম প্রধান উপাদান হয়ে উঠতে পারে।

বাংলা হান্ট 27 May 2024 3:54 pm

ফলপ্রকাশের আগেই প্রধানমন্ত্রী মুখ ঘোষণা? শেষ দফা ভোটের দিন ইন্ডিয়ার বৈঠক ঘিরে জল্পনা তুঙ্গে

বিরোধীদের নেতৃত্বাধীন ভারতীয় জাতীয় উন্নয়নমূলক জোট বা ইন্ডিয়া ব্লক আগামী ১ জুন একটি সর্বদলীয় বৈঠকের ডাক দিয়েছে। অর্থাৎ লোকসভা নির্বাচনের শেষদফার ভোট গ্রহণের দিন এই বৈঠকের ডাক দেওয়া হয়েছে। এর ঠিক তিনদিন পরেই লোকসভা নির্বাচনের ফল ঘোষণা। প্রসঙ্গত, বাতিল মদের সাথে জড়িত একটি অর্থ পাচার মামলায় তিহার জেলে অরবিন্দ কেজরিওয়ালের আত্মসমর্পণ করার ঠিক একদিন আগেই এই বৈঠক ডাকা হয়েছে।

এ ই সময় 27 May 2024 3:28 pm

'ED ডাকলে বলবেন আপনি ঈশ্বরের দূত?' মোদীকে তীব্র কটাক্ষ রাহুলের

জৈবিক ভাবে জন্মগ্রহণ করেননি, নিজেকে ঈশ্বরের দূত বলে দাবি করেছেন নরেন্দ্র মোদী। সম্প্রতি সংবাদমাধ্যমে দেওয়া একটি ইন্টারভিউয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, 'জৈবিক ভাবে আমার জন্ম হয়নি। পরমাত্মা আমায় পাঠিয়েছেন।' তাঁর এই মন্তব্য ঘিরে দেশজুড়ে তোলপাড় পড়ে গিয়েছে। রাহুল গান্ধীর এবার প্রশ্ন, 'ED ডাকলেও বলবেন আপনি ঈশ্বরের দূত?'

এ ই সময় 27 May 2024 3:17 pm

‘কোমর বেঁধে ঝগড়া করতে পারে’! মিমির বদলে কেন সায়নীকে টিকিট? ‘আসল কারণ’ ফাঁস মমতার!

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ উনিশের লোকসভা নির্বাচনে যাদবপুর কেন্দ্র থেকে রেকর্ড মার্জিনে জয়ী হয়ে সংসদে গিয়েছিলেন মিমি চক্রবর্তী। তা সত্ত্বেও এবার তাঁকে টিকিট দেয়নি তৃণমূল কংগ্রেস। মিমি পরিবর্তে টলিপাড়ার আর এক অভিনেত্রী সায়নী ঘোষের (Saayoni Ghosh) ওপর আস্থা রেখেছে জোড়াফুল শিবির। মাঠে-ময়দানে নেমে কাজ থেকে শুরু করে জনসংযোগ, সবেতেই দাপুটে হিসেবে পরিচিত এই যুব নেত্রীর কাঁধেই এবার যাদবপুরে জোড়াফুল ফোটানোর দায়িত্ব তুলে দিয়েছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Mamata Banerjee) দল। আগামী ১ জুন নির্বাচন রয়েছে যাদবপুরে (Jadavpur)। তার আগে সোমবার বৃষ্টি মাথায় নিয়েই সায়নীর জন্য সভা করেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল (TMC) সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। গতকাল দু’টি সভা ছিল মমতার। প্রথমটি সোনারপুর স্পোর্টিং ইউনিয়নের খেলার মাঠে এবং দ্বিতীয়টি যাদবপুর অঞ্চলের বারোভূতের মাঠে। সেখানে দাঁড়িয়ে যাদবপুরের বিদায়ী সাংসদ মিমির (Mimi Chakraborty) তারিফ করার পাশাপাশি সায়নীকে টিকিট দেওয়ার ‘আসল কারণ’ ফাঁস করেন তিনি। বারোভূতের মাঠে আয়োজিত সভায় দাঁড়িয়ে মমতা বলেন, ‘মিমি ভীষণ ভালো মেয়ে। একজন ভালো অভিনেত্রী। তবে ও অভিনয় নিয়ে খুব ব্যস্ত। আমি তো কাউকে তাঁর পেশা থেকে সরে এসে কাজ করার জন্য বলতে পারি না। তাও ওকে জিজ্ঞেস করেছিলাম, যদি অন্য কোনও আসন থেকে প্রার্থী করা হয় তাহলে ও রাজি কিনা’। আরও পড়ুনঃ  ৫০% অতীত, এবার ৫৪% হারে DA পাবেন কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীরা? কবে থেকে মিলবে? নয়া আপডেট! এরপর সায়নীকে টিকিট দেওয়ার কারণ ব্যাখ্যা করে মমতা বলেন, ‘নরম কাউকে দিয়ে এখানে হবে না। এখানে খুব শক্ত কাউকে প্রয়োজন । কোমর বেঁধে ঝগড়া করতে পারে এমন কাউকে এখানে লাগবে। মানুষের জন্য ঝগড়া করতে হবে। মানুষের দাবি আদায় করে নিতে হবে’। উল্লেখ্য, রাজনীতির আঙিনায় খুব বেশিদিন হয়নি সায়নীর। তবে অল্প সময়ের মধ্যেই নিজের দক্ষতার জোরে আলাদা করে সকলের নজর কেড়ে নিয়েছেন। মাঝেমধ্যেই যুক্তির মাধ্যমে গেরুয়া শিবিরকে আক্রমণ শানাতে দেখা যায় তাঁকে। প্রার্থী হিসেবে নাম ঘোষণা পর কোমর বেঁধে ভোট ময়দানে নেমে পড়েছেন তিনি। এতদিন ধরে লাগাতার প্রচার করেছেন। সায়নীর হাত ধরে ফের একবার যাদবপুরে জোড়াফুল ফুটবে বলে আশাবাদী তৃণমূল শিবির।

বাংলা হান্ট 27 May 2024 3:03 pm

৫০% অতীত, এবার ৫৪% হারে DA পাবেন কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীরা? কবে থেকে মিলবে? নয়া আপডেট!

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ লোকসভা ভোটের আবহে সরকারি কর্মীদের মহার্ঘ ভাতা (Dearness Allowance) নিয়ে বিস্তর চর্চা হচ্ছে। ভোট মিটলেই DA বাড়ানো হবে কিনা বা যদি বাড়ানোও হয় তাহলে কত শতাংশ হারে এবার দেওয়া হবে এই নিয়ে বহুদিন ধরে আলোচনা চলছে। নির্বাচনের শেষ লগ্নে এসে এবার এই নিয়ে সামনে এল বড় আপডেট! বর্তমানে ৫০% হারে মহার্ঘ ভাতা পাচ্ছেন কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীরা (Central Government Employees)। ২০২৪ সালের প্রথমার্ধেই ভাতা বৃদ্ধি পেয়েছে। তবে আগামী জুলাই মাসের পরে ফের একবার মহার্ঘ ভাতার হারে পরিবর্তন হতে পারে বলে খবর। গত কয়েক বছরে ৪% হারে DA বৃদ্ধি পেয়েছে। তাহলে কি এবারও ৪% হারেই মহার্ঘ ভাতা বাড়ানো হবে? অনেকের মনেই দেখা দিয়েছে প্রশ্ন। তবে এক্ষেত্রে বলে রাখি, সপ্তম বেতন কমিশনের (7 th Pay Commission) নিয়মে কিন্তু একটি ‘টুইস্ট’ রয়েছে। সপ্তম বেতন কমিশনে বলা হয়েছে, কর্মীদের ৫০% হারের বেশি মহার্ঘ ভাতা দেওয়া হবে না। এদিকে এখনই এই হারে DA পাচ্ছেন কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীরা। তাহলে কি এবার আর বাড়ানো হবে না তাঁদের ভাতা? না, এমনটা কিন্তু নয়! বরং এবারও যে পদক্ষেপ নেওয়া হবে, তাতে আরও লক্ষ্মীলাভ হতে চলেছে সরকারি কর্মীদের! আরও পড়ুনঃ  ‘ওঁর মেয়েকে…’! তৃণমূল বিধায়ককে কেন খুনের হুমকি? অভিযুক্ত ‘আসল সত্যি’ ফাঁস করতেই তোলপাড়! সপ্তম বেতন কমিশন বলছে, কর্মীদের মহার্ঘ ভাতা ৫০% হয়ে গেলেই তা ফের ০ থেকে শুরু করতে হবে। তবে এতে কিন্তু কর্মীদের বেতন কমবে না। কারণ তাঁদের মূল বেতন বৃদ্ধি পাবে। আগে তাঁরা যে বেতন পাচ্ছিলেন, তার সঙ্গে ৫০% হারে মহার্ঘ ভাতা যুক্ত করা হবে। এতে যে অঙ্কটা দাঁড়াবে, সেটাই সেই কর্মীর মূল বেতন হবে। এরপর ফের নয়া হারে DA পাওয়া শুরু করবেন তিনি। উদাহরণস্বরূপ বলা যায়, কোনও কর্মীর মূল বেতন যদি ২০,০০০ টাকা হয়, তিনি  ৫০% হার হিসেবে  ১০,০০০ টাকা বর্তমানে মহার্ঘ ভাতা হিসেবে পান। তবে সরকারের তরফ থেকে মূল বেতন বাড়ানো হলে সেই কর্মীর মাইনে হয়ে যাবে ৩০,০০০ টাকা। এবার সেই অনুযায়ী হিসেব করেন তাঁকে DA দেওয়া হবে। মনে করা হচ্ছে, আগামী সেপ্টেম্বর মাসে মহার্ঘ ভাতা সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তি জারি করা হতে পারে। তবে একথা এখনও অবধি এই বিষয়ে কোনও অফিশিয়াল ঘোষণা করা হয়নি। কর্মীদের বেতন বৃদ্ধি নিয়েও কোনও ঘোষণা করা হয়নি। তবে অনুমান করা হচ্ছে, লোকসভা নির্বাচনের ফলাফল প্রকাশ হয়ে গেলেই এই বিষয়ে যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।

বাংলা হান্ট 27 May 2024 3:02 pm

কলকাতা থেকে মেমারি, ‘অভিশপ্ত’ রেমালের বলি একাধিক, শোকের ছায়া বাংলায়

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ রবিবার রাতেই আছড়ে পড়েছে ঘূর্ণিঝড় রেমাল (Cyclone Remal)। গতকাল সকাল থেকেই দক্ষিণবঙ্গে এর ‘এফেক্ট’ দেখা যাচ্ছিল। সোমবার সকালেও জারি বৃষ্টি এবং ঝোড়ো হাওয়া। এই ‘বিধ্বংসী’ রেমালের বলি হয়েছেন একাধিক। কলকাতার (Kolkata) ১৫ নম্বর বিবির বাগান এলাকায় শেখ সাজিদ নামের একজন যুবক পাশের বিল্ডিং থেকে উড়ে আসা চাঙড়ে আঘাত পান। গুরুতর আহত অবস্থায় তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে তাঁকে মৃত (Death) ঘোষণা করা হয়। দক্ষিণ ২৪ পরগণার নামখানার মৌসুনি গ্রাম পঞ্চায়েতে বাগডাঙা নিবাসী এক বৃদ্ধাও রেমালের বলি হয়েছেন। মৃতের নাম রেণুকা মণ্ডল। বছর আশির ওই বৃদ্ধা ঘরে একাই ছিলেন। আজ সকালে অ্যাসবেস্টাসের চালের ওপর গাছ ভেঙে পড়ে। জানা যাচ্ছে, সেই সময় তিনি ঘরে খাওয়াদাওয়া করছিলেন। তবে গাছ পড়ার কারণে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন তিনি। এদিকে নামখানায় যে রেমালের দাপট দেখা যাবে তা আগেই আঁচ করা গিয়েছিল। তাই এলাকাবাসীকে আগেভাগে নিরাপদ আশ্রয়ে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়। কিন্তু কেন রেণুকাদেবীকে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়নি, তা নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। এখনও অবধি প্রশাসনের তরফ থেকে এই নিয়ে কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি। আরও পড়ুনঃ  রেমালের জেরে জলমগ্ন কলকাতা! দক্ষিণবঙ্গে ‘দুর্যোগ’ আর কতক্ষণ? রইল আবহাওয়ার লেটেস্ট আপডেট ঘূর্ণিঝড়ের বলি হয়েছেন মেমারির দু’জন। ঝড়ের কারণে ভেঙে পড়া কলাগাছ কাটতে গিয়েছিলেন পূর্ব বর্ধমানের মেমারির কলানবগ্রাম এলাকা নিবাসী এক বাবা-ছেলে। তবে সেই ভেঙে পড়া কলাগাছের গায়ে বিদ্যুতের তাঁর পেঁচিয়ে ছিল। সেটা খেয়াল করেননি! প্রথমে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হনবাবা। এরপর তাঁকে বাঁচাতে গিয়ে দুর্ঘটনার শিকার হয় ছেলে। মৃতদের নাম ফড়ে সিং (৬৪) এবং তরুণ সিং (৩০)। পরিবার সূত্রে জানা যাচ্ছে, কলাগাছ কাটতে গিয়ে বিদ্যুৎবাহী তারের সংস্পর্শে আসতেই বিপদ ঘটে। তড়িঘড়ি তাঁদের উদ্ধার করে প্রথমে বড়শুল হাসপাতাল এবং পরে বর্ধমান মেডিক্যালে নিয়ে গেলেও শেষরক্ষা হয়নি। বাবা এবং ছেলে দু’জনকেই মৃত ঘোষণা করা হয়।

বাংলা হান্ট 27 May 2024 3:02 pm

৬ খানা ফৌজদাড়ি মামলা! সম্পত্তির নিরিখে অভিনেত্রী, PhD ধারীকেও পেছনে ফেললেন CPM-র সৃজন

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ ষষ্ঠ দফা শেষ। হাতে বাকি আর এক। চব্বিশের লোকসভা নির্বাচনে বেশ কয়েকটি কেন্দ্রের দিকে নজর থাকবে সকলের। যার মধ্যে অন্যতম হল যাদবপুর। হাইভোল্টেজ এই কেন্দ্রে তৃণমূল দাঁড় করিয়েছে যুব নেত্রী সায়নী ঘোষকে (Saayoni Ghosh)। বামেদের বাজি সৃজন ভট্টাচার্য (Srijan Bhattacharya) এবং বিজেপির ভরসা উচ্চশিক্ষিত অনির্বাণ গাঙ্গুলি (Anirban Ganguly)। আগামী ১ জুন যাদবপুর কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ। সম্প্রতি তিন প্রার্থী নিজেদের মনোনয়ন জমা করেছেন। আর সেই থেকেই উঠে এসেছে এই তিনজনার সম্পত্তির খতিয়ান। যেই পরিসংখ্যান খানিক ভাবাচ্ছেও সকলকে। হলফনামার তথ্য অনুসারে, সম্পত্তির নিরিখে তৃণমূলের তারকা প্রার্থী অভিনেত্রী সায়নী ঘোষ থেকে শুরু করে উচ্চশিক্ষিত পিএচইডি হোল্ডার অনির্বাণ গাঙ্গুলিকেও অনেক পেছনে ফেলে এগিয়ে গিয়েছেন সিপিএম প্রার্থী দলের হোলটাইমার সৃজন ভট্টাচার্য। ভাবতে কিছুটা অবাক লাগলেও তথ্য একথাই বলছে। তথ্যানুসারে, উচ্চ মাধ্যমিক পাশ তৃণমূল প্রার্থী সায়নী ঘোষের মোট সম্পত্তির পরিমাণ ৯১ লক্ষ ৮৯ হাজার ৪৬২ টাকা। যার মধ্যে স্থাবর সম্পত্তি রয়েছে ৬২ লক্ষ ৬৪ হাজার টাকার আর অস্থাবর ২৯ লক্ষ ২৫ হাজার ৪৬২ টাকা (২০২৪ সালের হিসেব)। বিজেপি প্রার্থী বিজেপি পিএইচডি-ধারী অনির্বাণ গাঙ্গুলির ২০২৪ সালের হিসেব অনুসারে ৪৪ লক্ষ ৪৮ হাজার ৪৭০ টাকার অস্থাবর সম্পত্তি রয়েছে। স্থাবর সম্পত্তি নেই। আর এই দুই প্রার্থীর থেকে বহু অংশে বড়োলোক CPM-র হোলটাইমার। এবারের নির্বাচনে তরুণ মুখ সৃজন ভট্টাচার্যকে (Srijan Bhattacharya) যাদবপুর কেন্দ্র থেকে দাঁড় করিয়েছে বামেরা। সৃজনের হলফনামা থেকে জানা গিয়েছে, গত তিন বছরেই তার সম্পত্তি ব্যাপক পরিমাণে বৃদ্ধি পেয়েছে। হলফনামা থেকে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী সৃজন কোটিপতি। বাম প্রার্থীর অস্থাবর সম্পত্তির পরিমাণ ১ কোটি ৭১ হাজার ৮১ টাকা। আরও পড়ুন:  ফের হবে লন্ডভন্ড! একটু পরই ঝোড়ো হওয়ার সাথে তুমুল বৃষ্টি শুরু দক্ষিণবঙ্গে, আজ আরও ভয়ঙ্কর? অন্যদিকে পেশায় কলেজ শিক্ষিকা সৃজনের স্ত্রীয়ের অস্থাবর সম্পত্তির পরিমাণ হল ৪ লক্ষ ১৭ হাজার ৮৮৬ টাকা। পেশা হিসেবে নিজেকে সিপিএমের ‘হোলটাইমার’ হিসেবেই উল্লেখ করেছেন যাদবপুরের প্রার্থী। এদিকে ৬ খানা ফৌজদারি মামলা রয়েছে তার বিরুদ্ধে। এদিক থেকেও যাদবপুরের অন্য প্রার্থীদের থেকে এগিয়ে তিনি। সায়নী ঘোষ ও অনির্বাণ গাঙ্গুলির রয়েছে ১টি করে ফৌজদারি মামলা।

বাংলা হান্ট 27 May 2024 3:01 pm

লন্ডনে নিলামে উঠবে ১০৬ বছরের পুরনো ১০ টাকার ভারতীয় নোট! দাম জানেন কত?

বাংলা হান্ট ডেস্ক: অনেকেই নিতান্ত শখের বশেই পুরনো টাকার নোট জমিয়ে থাকেন। আর এবার সুদূর লন্ডনে (London) নিলামে (Auction) উঠতে চলেছে ১০৬ বছরের পুরনো (106 Years Old) দু’দু দুটি বিরল ভারতীয় নোট (Indian Note)। বিশেষজ্ঞদের দাবি একই রকম দেখতে এই বিরল ১০ টাকার নোট ইতিপূর্বে আর কখনও দেখা যায়নি। জানা যাচ্ছে ওই নোট দুটি তৈরি হয়েছিল ১৯১৮ সালে। সেই সময় নোটগুলি লন্ডনে ছাপানো হলেও যে জাহাজে করে নোটগুলি ভারতে আসছিল সেই নোটভর্তি জাহাজটি ডুবে গিয়েছিল। সম্প্রতি সেই এসএস শিরালার জাহাজের ধ্বংসাবশেষ থেকে ওই বিরল দুটি দশ টাকার নোট উদ্ধার করা হয়েছে। যার ওপর স্পষ্ট ছাপ রয়েছে ১৯১৮ সালের ২৫ই মে-র অর্থাৎ ওই বছরের ২৫ মে তৈরি হয়েছিল ওই নোটগুলি। জানা যাচ্ছে ওয়ার্ল্ড ব্যাংক নোট বিক্রির অংশ হিসেবে এই নোটগুলি এবার নিলামে ওঠাবে লন্ডনের নুনানস মেফেয়ার নিলাম হাউস। অনুমান করা হচ্ছে, এই দুই নোটের দাম উঠতে পারে ২ কোটি ১১ লাখ ৬৫৮ টাকা থেকে ২কোটি ৭৫ হাজার ১৫৫ টাকার মধ্য়ে। জানা যায় সেসময় জার্মান ইউ-বোটের সঙ্গে ধাক্কা লেগে ১৯৯৮ সালের ২ জুলাই ডুবের গিয়েছিল এই এস এস শিরালার জাহাজটি।  সম্প্রতি সেই জাহাজের ধ্বংসাবশেষ থেকেই  পাওয়া ওই বিরল দুই ভারতীয় ১০ টাকার নোট। আগামী ২৯ মে বুধবার সকাল থেকেই শুরু হবে এই নোটের  নিলাম। এপ্রসঙ্গে নুনানসের বিশ্বব্যাপী নিউমিসমেটিক্সের প্রধান থমাসিনা স্মিথ জানিয়েছেন, ওই জাহাজটিতে অন্য়ান্য জিনিসপত্রের সঙ্গেই ছিল বান্ডিল বান্ডিল ১০ টাকার নোট। সেই সময় জার্মান ইউ বোটের সঙ্গে ধাক্কা লেগে জাহাজটি ডুবে গেলেও অনেক নোট পাড়ে ভেসে উঠেছিল। সেগুলির মধ্য়ে যেমন স্বাক্ষর বিহীন ৫ এবং ১০ টাকার নোট ছিল পাশাপাশি স্বাক্ষরযুক্ত ১ টাকার নোটও ছিল। যদিও পরে কর্তৃপক্ষ এগুলিকে নষ্ট করে দিয়েছিল। কারণ তত ততদিনে পুরনো নোট বাতিল করে নতুন নোট ছাপানো হয়ে গিয়েছিল। তারপরেও বেশ কয়েকটি নোট থেকে যায়। যা আজকের দিনে একেবারে বিরল। আরও পড়ুন: এই কিশোর হবেন ‘সহস্রাব্দের প্রথম সন্ত’! পোপো ফ্রান্সিস দিলেন অলৌকিক মহিমার স্বীকৃতি সম্প্রতি ব্যাঙ্ক অফ ইংল্যান্ড সোশ্যাল মিডিয়ায় ১৯১৮ সালের জাহাজ ডুবির কথা উল্লেখ করার পরেই প্রকাশ্যে আসে ওই বিরল নোটগুলি । সবচেয়ে আশ্চর্যের বিষয় ১০৬ বছরের পুরনো হলেও ১০ টাকার নোটগুলি আজও একেবারে অক্ষত অবস্থায় রয়েছে। আসলে সেই সময়ে এই নোটগুলি উন্নত মানের কাগজের উপরে ছাপা হয়েছিল, এই কারণেই সম্ভবত এখনও এই নোটের সংখ্যাগুলি স্পষ্ট রয়েছে। Rare Rs 10 #IndianNotes Recovered From 1918 Shipwreck To Go Under The Hammer In London. The wreck of the SS Shirala, which was sunk by a German U-boat on July 2, 1918, will be offered at the auction house Noonans in #Mayfair next week as part of its sale of world banknotes. pic.twitter.com/gzSEDh7TuN — Ravinder Singh (@ravindraJourno) May 25, 2024 তবে মনে করা হচ্ছে এই ১০ টাকার নোটগুলি বান্ডিলের মাঝে ছিল, সেই কারণেই এই নোটগুলি নষ্ট হয়নি বা জলের সংস্পর্শে এসে মুছে যায়নি। আর ওই দুটি দশ টাকার নোটের ক্রমিং সংখ্যাও রয়েছে পরপর। শুধু ১০ টাকার নোট নয় ,ওয়ার্ল্ড ব্যাংক নোট এর নিলামে উঠবে ব্রিটিশ আমলের ভারত সরকারের ১০০ টাকার নোটও। অনুমান করা হচ্ছে সেই নোটের দাম হতে চলেছে ভারতীয় মুদ্রায় ৪ লাখ ৬৫ হাজার ৬৪৭ টাকা থেকে ৫ লাখ ২৯ হাজার ১৫৪টা কার মধ্য়ে দাম উঠবে এগুলির।

বাংলা হান্ট 27 May 2024 2:43 pm

পরনে শাড়ি, খোলা চুল! জাপানের রাস্তায় ভারতীয় ঐতিহ্যকে তুলে ধরলেন এই নারী, চর্চা নেটপাড়ায়

বাংলাহান্ট ডেস্ক : ভারতীয় সংস্কৃতির অন্যতম ঐতিহ্যবাহী পোশাক শাড়ি। ভারতের পাশাপাশি বিশ্বের একাধিক দেশে রয়েছে শাড়ি পরার চল। তবে ভারতীয় ডিজাইনের শাড়ি গোটা বিশ্বেই সমাদৃত। সম্প্রতি বিভিন্ন আন্তর্জাতিক অনুষ্ঠানে শাড়ি পরেই দেখা গেছে আলিয়া, দীপিকাদের মতো বলিউডেরর প্রথম সারির নায়িকাদেরও। এছাড়াও বিদেশে বসবাসকারী বহু ভারতীয় নারী (Indian woman) এখনো শাড়ি পরেন। বিশেষ করে অনুষ্ঠান-পার্বণের দিনে শাড়ি পরতে দেখা যায় তাদের। বিদেশিরাও বেশ কৌতূহলী ভারতীয় শাড়িকে নিয়ে। বিদেশের রাস্তায় শাড়ি পরে কাউকে দেখলে অনেকের চোখই আটকে যায় সেখানে। এবার সেরকমই দৃশ্য দেখা গেল জাপানের (Japan) টোকিও শহরে। আরোও পড়ুন :  এ কী অবস্থা! জলে ভাসছে পার্কস্ট্রিট, এসপ্ল্যানেড স্টেশনের মাঝের ট্র্যাক, ৪ ঘন্টা চলল না মেট্রো ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে (Viral Video) দেখা যাচ্ছে সোশ্যাল মিডিয়া ইনফ্লুয়েনসার মাহি শর্মা টোকিওর রাস্তায় সোনালি জরির কাজ করা, আকাশি রঙের শাড়ি পরে ঘুরে বেড়াচ্ছেন। মাহির কোমর পর্যন্ত লম্বা খোলা চুল আর শাড়ি দেখে রাস্তায় দাঁড়ানো অনেকেই ঘুরে ঘুরে দেখছেন তাঁকে। নিজেদের মোবাইল ফোনে অনেকে আবার মাহির ভিডিও করছেন। আরোও পড়ুন :  দিঘায় সমুদ্রস্নান রুখতে কঠোর হচ্ছে প্রশাসন! জলোচ্ছ্বাসের মাঝে বিচে গেলেই মিলবে কড়া শাস্তি মাহির হাঁটাচলার স্টাইল, কোমর পর্যন্ত এলো চুল, একদল তরুণ-তরুণী নিজেদের মোবাইলে বন্দি করেন। এই দৃশ্য দেখে নিজেও আপ্লুত হয়ে পড়েন মাহি। মাহি জানান, “এমনিই হঠাৎ করে শাড়ি পরে রাস্তায় বেরিয়েছিলাম। আমার পোশাক দেখে যে সকলে এমন আপ্লুত হয়ে পড়বেন তা বুঝিনি।” document.createElement('video'); https://banglahunt.com/wp-content/uploads/2024/05/VID_30190829_203558_743.mp4 মাহি নিজে এই ভিডিওটি শেয়ার করেছেন ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে। তারপর ঝড়ের বেগে ভাইরাল হয়েছে সেই ভিডিও। বহু মানুষ কমেন্ট করেছেন এই ভিডিও দেখে। একজন ব্যবহারকারী লিখেছেন, “জাপানের রাস্তায় ভারতীয় সংস্কৃতিকে তুলে ধরার জন্য ধন্যবাদ।” আবার কেউ লিখেছেন, “জাপানের রাস্তায় নবিতাকে দেখতে পেলেন?”

বাংলা হান্ট 27 May 2024 2:32 pm

Lok Sabha Election: শিমলার ভোট-অঙ্ক ঘুরছে ‘গ্যারান্টি’র কোশেন্টেই

আগামী ১ জুন সপ্তম দফায় ভোটগ্রহণ হতে চলেছে হিমাচল প্রদেশে৷ ভোটের আবহে বিখ্যাত ম্যাল রোডের দিকে এগোলেই চোখ যায় বিজেপির নানা পোস্টার ও ব্যানারের দিকে৷ এবার এই ‘মোদী কি গ্যারান্টি’র পক্ষে আর বিপক্ষেই ভোট দেবেন সেখানকার ভোটাররা৷ শিমলা লোকসভা আসনে বিজেপি গত দুদশক ধরে নিজেদের প্রভাব ক্রমশ বাড়িয়েছে৷ কিন্তু এইবার কী হতে চলেছে সেটাই এখন দেখার৷

এ ই সময় 27 May 2024 2:23 pm

ফ্রায়েড রাইস খেতে গিয়ে মর্মান্তিক পরিণতি! নাক দিয়ে অনর্গল রক্ত, মৃত ৭ বছরের শিশু কন্যা

ফ্রায়েড খেতে বড্ড ভালোবাসত ছোট্ট মেয়েটি। প্রতিদিন খাবারে পাতে তার ফ্রায়েড চাই-ই-চাই। সেই ফ্রায়েড খেতে গিয়েই মর্মান্তিক পরিণতি। নাক দিয়ে অনর্গল রক্ত পড়তে থাকে। হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলেও শেষরক্ষা হয়নি। কী ভাবে মৃত্যু হয়েছে মেয়েটির? কী জানানো হয়েছে পরিবারের তরফে? কী জানানো হয়েছে পুলিশের তরফে? কবে ওই শিশুর মৃত্যু হয়? জানুন বিস্তারিত।

এ ই সময় 27 May 2024 2:17 pm

“২৫ কোটির বোলার….”, সতীর্থরাই করত মজা! চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর “আক্ষেপ”স্টার্কের

বাংলা হান্ট ডেস্ক: চলতি মরশুমের IPL (Indian Premier League)-এ একদম প্রথম থেকেই দাপটের সাথে পারফরম্যান্স প্রদর্শন করেছে কলকাতা নাইট রাইডার্স (Kolkata Knight Riders)। যে দাপট পরিলক্ষিত হয়েছে ফাইনাল ম্যাচেও। সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদকে (Sunrisers Hyderabad) কার্যত উড়িয়ে দিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে KKR। সবথেকে উল্লেখযোগ্য বিষয় হল, মরশুমের প্রথম থেকেই খারাপ ফর্মের জন্য সমালোচনার মুখোমুখি হওয়া মিচেল স্টার্ক (Mitchell Starc) প্লে-অফ এবং ফাইনালে রীতিমতো ঝড় তোলেন। এমতাবস্থায়, IPL-এর ফাইনাল ম্যাচের সেরা হিসেবে বিবেচিত স্টার্কের গলায় ঝড়ে পড়ল আক্ষেপ। মূলত, পুরস্কার নিতে গিয়ে কলকাতা নাইট রাইডার্সের “২৫ কোটি”-র এই তারকা পেসার জানিয়েছেন, তিনি দীর্ঘদিন ধরে IPL খেলেননি। যদিও, এবার তিনি এই টুর্নামেন্ট খেলেছেন। পাশাপাশি, তিনি এটাও বলেন যে প্রতিযোগিতার সবথেকে দামি ক্রিকেটার হওয়ায় তাঁকে নিয়ে সতীর্থরাই মজা করতেন। স্টার্ক জানান, “আমি অনেক বছর IPL খেলিনি। তবে, এবার KKR আমার ওপর ভরসা দেখিয়েছে। কিন্তু, আমার দাম নিয়ে দলে সবাই মজা করে।” এমতাবস্থায়, কয়েক বছর ধরে তাঁর IPL-এ দল না পাওয়ার বিষয়টি যে স্টার্কের খারাপ লেগেছিল তা তাঁর কথায় স্পষ্ট হয়ে গিয়েছে। এই প্রসঙ্গে জানিয়ে রাখি, IPL-এর প্রথমদিকের ম্যাচগুলিতে তেমন ছন্দে ছিলেন না স্টার্ক। পাশাপাশি, প্রচুর রান দিয়ে ফেললেও তিনি পাচ্ছিলেন না উইকেট। যার পরিপ্রেক্ষিতে তাঁকে পড়তে হয় তুমুল সমালোচনার মুখে। যদিও, টুর্নামেন্টের শেষ দিকে তিনি দেখাতে শুরু করেন তাঁর দাপট। এমতাবস্থায়, ফর্ম ফিরে পাওয়ায় সাপোর্ট স্টাফদের ধন্যবাদ জানিয়েছেন স্টার্ক। তিনি জানান, “সাপোর্ট স্টাফেরা আমার সবসময় পাশে ছিল। আমাদের জন্য তারা অনেক সময়ও দিয়েছে। ওদের সাহায্য না পেলে টুর্নামেন্টের শেষের দিকে আমি এভাবে বল করতে পারতাম না।” আরও পড়ুন:  হয়ে যান সতর্ক! ১ জুনের আগে এই কাজটি না করলেই আর মিলবে না LPG সিলিন্ডার এদিকে, অধিনায়ক শ্রেয়স আইয়ারের প্রশংসাও করেছেন স্টার্ক। তিনি জানান,“ফাইনাল ম্যাচে টস হেরে যাওয়ায় বল করতে হয়। প্রথম কয়েকটা বলের পরেই এটা বুঝে গিয়েছিলাম যে এই পিচে কিভাবে বল করতে হবে। আমরা নির্দিষ্ট পরিকল্পনা নিয়ে মাঠে নেমেছিলাম। পরিকল্পনা অনুযায়ী সেটাই করে দেখিয়েছি। শ্রেয়সকেও এই বিষয়ে কৃতিত্ব দিতে হবে। যেভাবে ও বোলারদের ব্যবহার করেছে তা অবশ্যই অসাধারণ।” আরও পড়ুন:  মুকেশ আম্বানির জাদুতে মালামাল বিনিয়োগকারীরা! মাত্র ৫ দিনেই হল ৬০,০০০ কোটির মুনাফা পাশাপাশি, নিজের অভিজ্ঞতাকেও কাজে লাগিয়েছেন স্টার্ক। তাঁর মতে, “আমি অনেক দিন ধরে ক্রিকেট খেলছি। কিছুটা হলেও আমার অভিজ্ঞতা হয়েছে। এখন আমি ফাইনালের চাপ নিতে পারি। জানতাম শুরুতেই ওদের ধাক্কা দিতে হবে।” এদিকে, সামগ্রিকভাবে KKR-এর বোলিং অ্যাটাক নিয়ে যথেষ্ট গর্ব করেছেন এই তারকা পেসার। তিনি বলেন, “আমাদের দলের প্রত্যেক বোলার যথেষ্ট ভালো খেলেছে। পেসারেরা নিজের কাজ ভালোভাবে করেছে। মাঝের ওভারে স্পিনারেরা উইকেট পেয়েছে। যার ফলে কোনও একজনের ওপর নির্ভর করতে হয়নি।”

বাংলা হান্ট 27 May 2024 2:11 pm

ফের হবে লন্ডভন্ড! একটু পরই ঝোড়ো হওয়ার সাথে তুমুল বৃষ্টি শুরু দক্ষিণবঙ্গে, আজ আরও ভয়ঙ্কর?

বাংলা হান্ট ডেস্ক: আশঙ্কা ছিলই। সেই মতোই শহর থেকে জেলা তছনছ করেছে শক্তিশালী রেমাল (Remal)। ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে লন্ডভন্ড হয়ে গিয়েছে দক্ষিণবঙ্গের (South Bengal Weather) একাধিক জেলা। ভেঙে পড়েছে গাছ। ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি। কার্নিশ ভেঙে মৃত্যু হয়েছে কলকাতার এক প্রৌঢ়ের। সব মিলিয়ে ভয়াবহ চিত্র শহর জুড়ে। তবে রবিবারই শেষ নয়। আবহাওয়া দপ্তর জানাচ্ছে (Weather Department) সোমবারও একই রকম থাকবে পরিস্থিতি। সোমবারও দিনভর চলবে দুর্যোগ। আজ কলকাতা থেকে শুরু করে বাংলার অধিকাংশ জেলায় ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টির সতর্কতা জারি হয়েছে। আবহাওয়া দপ্তরের আপডেট অনুযায়ী, আজ দক্ষিণবঙ্গের নদিয়া ও মুর্শিদাবাদে ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। এর জেরে এই দুই জেলায় জারি হয়েছে লাল সতর্কতা। ওদিকে কলকাতা, হাওড়া, হুগলি, উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনা, পূর্ব বর্ধমান ও বীরভূম এই ৭ জেলায় ভারী বৃষ্টির কমলা সতর্কতা জারি করেছে আবহাওয়া দপ্তর। লাল, কমলা ব্যতীত দক্ষিণবঙ্গের সমস্ত জেলায় আজ জারি রয়েছে হলুদ সতর্কতা। ঝড়ের প্রভাবে এক ধাক্কায় বেশ খানিকটা কমেছে তাপমাত্রা। আজ গোটা রাজ্যেই কার্যত মেঘলা আকাশ থাকবে।আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর জানিয়েছে রবিবার রাত সাড়ে ১০টা নাগাদ ল্যান্ডফল শুরু হয় রেমালের। রাত ১২টা নাগাদ রেমালের ল্যান্ডফল শেষ হয়েছে। তবে রেমালের জেরে মঙ্গল ও বুধবারও বিক্ষিপ্ত বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। আজ দিনভর জেলায় জেলায় ঝোড়ো হওয়ার দাপট থাকবে। দক্ষিণবঙ্গের জেলায় উপর দিয়ে ঘন্টায় ৬০ কিমি বেগে দমকা হাওয়া সহ ঘণ্টায় ৪০ থেকে ৫০ কিমি বেগে ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে। গতকাল ল্যান্ডফলের জেরে কলকাতায় ঘণ্টায় ৭৪ কিলোমিটার ঝোড়ো হাওয়া বয়ে গেছে। আরও পড়ুন:  হাইকোর্টের রায়ে সমস্যায় OBC পড়ুয়ারা! কী সিদ্ধান্ত নিল রাজ্য শিক্ষাদপ্তর? বিরাট আপডেট দক্ষিণবঙ্গের পাশাপাশি আজ উত্তরবঙ্গেরও একাধিক জেলায় জারি রয়েছে সতর্কতা। মালদহ, দক্ষিণ দিনাজপুরে ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টির কমলা সতর্কতা জারি রয়েছে। কোচবিহার, জলপাইগুড়ি এবং আলিপুরদুয়ার জেলায় এক বা দুই জায়গায় অত্যন্ত ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। উত্তর দিনাজপুর এবং জলপাইগুড়ির কিছু অংশে মাঝারি থেকে ভারী বৃষ্টির হলুদ সতর্কতা জারি করা হয়েছে। দার্জিলিং, কালিম্পং, উত্তর ও ও দক্ষিণ দিনাজপুরের এক বা দুই জায়গায় ভারী অতি ভারী বৃষ্টি হতে পারে। আগামীকালও বৃষ্টি চলবে উত্তরে।

বাংলা হান্ট 27 May 2024 2:02 pm

হাইকোর্টের রায়ে সমস্যায় OBC পড়ুয়ারা! কী সিদ্ধান্ত নিল রাজ্য শিক্ষাদপ্তর? বিরাট আপডেট

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ গত সপ্তাহেই কলকাতা হাইকোর্ট (Calcutta High Court) ২০১০ সালের পর থেকে অন্যান্য অনগ্রসর সম্প্রদায় (OBC Certificate) ভুক্তদের দেওয়া সব শংসাপত্র বাতিল করেছে। উচ্চ আদালততের রায়ের জেরে এক ধাক্কায় ৫ লক্ষ ওবিসি শংসাপত্র বাতিল হয়েছে। হঠাৎ হাইকোর্টের এই রায়ের পর সিঁদুরে মেঘ দেখছেন কলেজ পড়ুয়া থেকে চাকরি প্রার্থীরা। রাজ্যের শিক্ষার্থীদের, বিশেষ করে যারা ওবিসি কোটায় ভর্তি ও সুবিধা পেত তাদের জন্য টানাপোড়েনের মধ্যে পড়েছে। এই অবস্থায় পরবর্তী পদক্ষেপ কি হতে পারে? রাজ্য শিক্ষা দপ্তরই বা কি জানাচ্ছে? আপডেট অনুযায়ী বাতিল সার্টিফিকেট ব্যবহার করে যারা আগে থেকেই ভর্তি হয়েছেন তাদের ক্ষেত্রে হাই কোর্টের রায়ের কোনো প্রভাব পড়বে না। তবে এই শংসাপত্র ব্যবহার করে নতুন করে স্কুল বা কলেজে ভর্তি হওয়া যাবে না। ২০১০ এর পর থেকে বাতিল সার্টিফিকেট ব্যবহার করে কোটা সুবিধা পেয়ে যারা আগেকার পরীক্ষাগুলোতে অংশগ্রহণ করেছেন তাদের ফলাফলে কোনো প্রভাব পড়বে না। তবে, নতুন করে কোনো পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য এই সার্টিফিকেট আর ব্যবহারযোগ্য নয়। স্কলারশিপের ক্ষেত্রে ইতিমধ্যে বাতিল সার্টিফিকেট ব্যবহার করে যারা স্কলারশিপ পেয়েছেন তাদের ক্ষেত্রে এই রায়ের কোনো প্রভাব পড়বে না। পাশাপাশি ইতিমধ্যেই আবেদন করে সুবিধা পাচ্ছেন, তারাও সেই কোর্সের জন্য পেয়ে যাবেন। তবে একই ভাবে নতুন করে এই সার্টিফিকেট আর ব্যবহার করা যাবে না। আপাতত যাদের সার্টিফিকেট বাতিল হয়েছে তাদের বাতিল হিসেবে ধরেই সমস্ত কাজ করতে হবে জেনারেল (General) কোটাতে। ওবিসি শংসাপত্র বাতিল নিয়ে কলকাতা হাই কোর্ট যে রায় দিয়েছে তা তিনি মানছেন না, তা বুধবারই স্পষ্ট করে দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নবান্ন সূত্রে জানা গিয়েছে উচ্চ আদালতের রায়কে চ্যালেঞ্জ করে সুপ্রিম কোর্টে আবেদন করতে চলেছে রাজ্য সরকার। অভিজ্ঞ আধিকারিকদের মতে, আদালতের রায়ে চাকরিরতদের কোনো সমস্যা না হলেও, চাকরিপ্রার্থীরা অবশ্যই অসুবিধায় পড়বেন। যে কোনও নিয়োগের ক্ষেত্রে শূন্যপদের নিরিখে সাধারণ, তফসিলি জাতি, তফসিলি জনজাতি বা ওবিসি সংরক্ষণ অনুযায়ী পদের সংখ্যা স্থির হয়। আরও পড়ুন:  তৃণমূল নেতার বড়সড় কেলেঙ্কারির পর্দাফাঁস? বাড়ি থেকে উদ্ধার ৬ কোটির জাল বিলিতি মদ! তোলপাড় বর্তমানে ওবিসি-শংসাপত্র নিয়ে জটিলতা থাকায় তাদের বাদ দিয়েছি রোস্টার তৈরি সম্ভব নয়। ফলে আপাতত যেমন নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা যাবে না তেমনই চাকরির পরীক্ষায় নির্বাচিত যোগ্যদের ডাকার ক্ষেত্রেও সমস্যা দেখা দিতে পারে। সমস্যায় পড়েছেন ওবিসি তালিকাভুক্ত ছাত্র-ছাত্রীরাও। প্রায় সমস্ত মহলেরই দাবি, রাজ্য সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হলে আপাতত হাইকোর্টের রায়ের ওপর ন্যূনতম স্থগিতাদেশ পাওয়া না-গেলে সমস্যা থেকে যাবে।

বাংলা হান্ট 27 May 2024 1:57 pm

এ কী অবস্থা! জলে ভাসছে পার্কস্ট্রিট, এসপ্ল্যানেড স্টেশনের মাঝের ট্র্যাক, ৪ ঘন্টা চলল না মেট্রো

বাংলাহান্ট ডেস্ক : রেমালের পূর্বাভাস পাওয়ার পরে গতকাল থেকেই একাধিক মেট্রো চলে নি। কলকাতা মেট্রোর (Kolkata Metro) যাত্রীদেরও কপালে আজ দুর্ভোগ চলে। গতকাল রাতের বৃষ্টির ফলে জল জমেছিল পার্ক স্ট্রিট-এসপ্ল্যানেড মেট্রো স্টেশনের মধ্যে। ট্র্যাকে জল জমে থাকায় বিপর্যস্ত হয়েছিল মেট্রো চলাচল। আজ সকাল থেকে মেট্রো চলাচল করে দক্ষিণেশ্বর থেকে গিরিশ পার্ক পর্যন্ত। তারপর থেকে আর চালানো হয় নি মেট্রো। অন্যদিকে, মেট্রো পরিষেবা অবশ্য স্বাভাবিক ছিল কবি সুভাষ থেকে মহানায়ক উত্তম কুমার পর্যন্ত। শুধুমাত্র গিরিশ পার্ক ও মহানায়ক উত্তম কুমারের মাঝের স্টেশনগুলিতে চলছিল না মেট্রো। সূত্রের খবর, সকাল ৭টা ৫১ মিনিট থেকে দক্ষিণেশ্বর থেকে গিরিশ পার্ক এবং কবি সুভাষ থেকে মহানায়ক উত্তম কুমার পর্যন্ত চালানো হয়েছে মেট্রো। আরোও পড়ুন :  দিঘায় সমুদ্রস্নান রুখতে কঠোর হচ্ছে প্রশাসন! জলোচ্ছ্বাসের মাঝে বিচে গেলেই মিলবে কড়া শাস্তি মেট্রো পরিষেবা (Metro Service) বিপর্যস্ত হওয়ায় সপ্তাহের প্রথম কর্মদিবসে বেজায় সমস্যায় পড়েছেন অফিস যাত্রীরা। কলকাতা মেট্রোরেল কর্তৃপক্ষ অবশ্য প্রথম থেকেই জানিয়েছিলেন, ট্র্যাকে জমে থাকা জল দ্রুততার সাথে বের করে পরিষেবা স্বাভাবিক করার চেষ্টা চালানো হচ্ছে। শেষমেশ ৪ ঘণ্টা ১৪ মিনিট পর স্বাভাবিক হল পরিষেবা। আরোও পড়ুন :  ‘রেমাল’ বিপত্তির মাঝেও চলবে বন্দে ভারত, শতাব্দী, ব্ল্যাক ডায়মন্ড! যাত্রীদের জন্য আপডেট রেলের যুদ্ধকালীন পরিস্থিতিতে জমা জল বার করার কাজ শুরু করেছিলেন মেট্রোরেল (Metro Railway ) কর্তৃপক্ষ। উচ্চপদস্থ আধিকারিকেরাও ঘটনাস্থলে পৌঁছন। মেট্রোকর্মীরা ধীরে ধীরে ট্র্যাক এবং পার্ক স্ট্রিট স্টেশন থেকে পাম্প বসিয়ে জল বার করেন । শুধু তা-ই নয়, যেখান থেকে জল ঢুকছিল, সেই জায়গাটিও ঠিক করা হয়। তার পরই পরিষেবা চালু করার সিদ্ধান্ত নেন মেট্রোরেল কর্তৃপক্ষ। সূত্রের খবর, বেলা ১২টা ০৫ মিনিট নাগাদ কবি সুভাষ থেকে দক্ষিণেশ্বর পর্যন্ত মেট্রো চলাচল শুরু হয়। আপ, ডাউন— দু’দিকেই মেট্রো পরিষেবা চালু হয়েছে। তবে পরিষেবা এখনও পুরোপুরি স্বাভাবিক হয়নি। যাত্রীরা যাতে মেট্রো স্টেশনে প্রবেশ করতে না পারেন, সেই কারণে প্রবেশপথও বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল। তবে মেট্রোরেল চালানোর সিদ্ধান্ত নেওয়ার পরেই স্টেশনের দরজা খোলা হয় সাধারণের জন্য।  

বাংলা হান্ট 27 May 2024 1:56 pm

‘ওঁর মেয়েকে…’! তৃণমূল বিধায়ককে কেন খুনের হুমকি? অভিযুক্ত ‘আসল সত্যি’ ফাঁস করতেই তোলপাড়!

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ রাজ্যের শাসক দলের বিধায়ক তিনি। সেই জাকির হোসেনকেই (Jakir Hossain) খুনের হুমকি দেওয়ার অভিযোগ উঠেছিল। ঝাড়খণ্ডের একটি নম্বর থেকে ক্রমাগত হুমকি আসছিল বলে অভিযোগ। সেই ঘটনায় এবার ঝাড়খণ্ড থেকেই এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করা হল। তৃণমূল বিধায়ককে (TMC MLA) কেন ‘হুমকি’ দিচ্ছিলেন? ইতিমধ্যেই সেই কারণ ‘ফাঁস’ করেছেন তিনি। রবিবার সাংবাদিক বৈঠক করে জাকির জানিয়েছেন, তাঁর হোয়্যাটসঅ্যাপ নম্বরে কেউ বা কারা নানান ধরণের অকথ্য গালিগালাজের মেসেজ করছেন। সেই সঙ্গে তাঁকে বোমা মারার হুমকিও দেওয়া হয়েছিল বলে দাবি। ভোটের আবহে এই ঘটনা প্রকাশ্যে আসতেই তা নিয়ে চর্চা শুরু হয়ে যায়। এবার জানা গেল, এই ঘটনায় আসাদুজ্জামান নামের এক ব্যক্তি গ্রেফতার হয়েছেন। সোমবার তাঁকে জঙ্গিপুর আদালতে (Jangipur Court) তোলা হবে। গতকাল জাকির বলেছিলেন, ‘আমি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দল করি বলে আমায় হেনস্থা করা হচ্ছে। কয়েকজন দালাল নানানভাবে হুমকি দিচ্ছে যে রেইড করিয়ে দেব। মিথ্যে মামলায় ফাঁসিয়ে দেব। তৃণমূল কংগ্রেস করি বলে আমাদের হুমকি দেওয়া হচ্ছে। গালিগালাজ করা হচ্ছে’। আরও পড়ুনঃ  রেমালের জেরে জলমগ্ন কলকাতা! দক্ষিণবঙ্গে ‘দুর্যোগ’ আর কতক্ষণ? রইল আবহাওয়ার লেটেস্ট আপডেট এই ঘটনার জেরে আগেই সুতি থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছিল। এবার গ্রেফতার হলেন আসাদুজ্জামান। জেলা পুলিশ আধিকারিকদের নির্দেশ অনুসারে অভিযুক্তের পুলিশি হেফাজতের আবেদন জানানো হবে। ইতিমধ্যেই শুরু হয়েছে তদন্ত। এদিকে অভিযুক্ত আসাদুজ্জামান সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, সে জাকিরের কন্যাকে ভালোবাসতো। কিন্তু তাঁর কাছ থেকে কোনও রিপ্লাই আসেনি। এই কারণে বিরক্ত হয়ে গিয়েছিলেন তিনি। আর সেই কারণেই এমন কাণ্ড ঘটিয়েছেন। আসাদুজ্জামান বলেন, ‘আমি ২ বছর ধরে ওনার মেয়েকে ভালোবাসি। সেই কারণে আমি জাকির হোসেনকে মেসেজ করতাম। তবে উনি কোনও রিপ্লাই দিতেন না। সেই জন্য আমি বিরক্ত হয়ে কিছু কথা বলে ফেলেছি’। যদিও অভিযুক্ত দাবি করেছেন তিনি কোনও প্রকার হুমকি দেননি।

বাংলা হান্ট 27 May 2024 1:33 pm

দিঘায় সমুদ্রস্নান রুখতে কঠোর হচ্ছে প্রশাসন! জলোচ্ছ্বাসের মাঝে বিচে গেলেই মিলবে কড়া শাস্তি

বাংলাহান্ট ডেস্ক : ঘূর্ণিঝড় রেমাল-এর প্রভাব রবিবার সকাল থেকেই পড়তে শুরু করেছিল সৈকত নগরী দিঘাতে। গতকাল সকাল থেকেই দিঘা, তাজপুর, মন্দারমণির সমুদ্র উত্তাল হয়ে ওঠে। সকালবেলায় জোয়ার শুরু হতেই ঢেউ আছড়ে পড়তে থাকে ওল্ড দিঘার গার্ড ওয়াল পার করে। দিঘার পাশাপাশি তীব্র জলোচ্ছ্বাস দেখা যায় শংকরপুরেও। ঘূর্ণিঝড়ের পূর্বাভাস পাওয়ার পর থেকেই সতর্ক হয়ে যায় প্রশাসন। সতর্কতামূলক প্রচার চালানো শুরু হয় পূর্ব মেদিনীপুরের উপকূলবর্তী শহরগুলিতে। সমুদ্রের আশেপাশে রবিবার গোটা দিন প্রশাসনের তরফে নিয়ন্ত্রণ করা হয়েছে পর্যটকদের গতিবিধি। নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও কিছু পর্যটক উত্তাল সমুদ্রের পাশেই তোলেন সেলফি। এছাড়াও ঘূর্ণিঝড়ের (Cyclone) জেরে সমুদ্রের জলোচ্ছ্বাস দেখতে স্থানীয়রাও ভিড় করেন। আরোও পড়ুন :  ‘রেমাল’ বিপত্তির মাঝেও চলবে বন্দে ভারত, শতাব্দী, ব্ল্যাক ডায়মন্ড! যাত্রীদের জন্য আপডেট রেলের আজ অর্থাৎ সোমবারও দক্ষিণ পূর্ব রেল বাতিল করেছে দিঘাগামী কান্ডারি এক্সপ্রেস এবং কিছু ইএমইউ ট্রেন। সোমবার সকাল থেকে ঝিরঝিরে বৃষ্টি হচ্ছে দিঘায় (Digha)। তারসাথে বইছে দমকা হাওয়া। নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও আজ সকালে কিছু পর্যটক আসেন সমুদ্র স্নান করতে। তবে সমুদ্র স্নান বন্ধ করে দেওয়া হয় জোয়ারের কারণে। এছাড়াও নিষেধাজ্ঞা রয়েছে সমুদ্রে নামার ক্ষেত্রেও।   যে পর্যটকেরা স্নান করছিলেন তাদেরকে তুলে দেওয়া হয়। আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর সোমবারও ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছে পূর্ব মেদিনীপুর জুড়ে। বেলা বাড়ার সাথে সাথে ঝড়ের দাপট কমবে। তবে আজ সারাদিন বৃষ্টি চলবে বলে জানা গেছে। প্রশাসনের পক্ষ থেকে তৎপর থাকা হচ্ছে যেকোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা এড়ানোর জন্য।

বাংলা হান্ট 27 May 2024 1:15 pm

রেমালের জেরে জলমগ্ন কলকাতা! দক্ষিণবঙ্গে ‘দুর্যোগ’ আর কতক্ষণ? রইল আবহাওয়ার লেটেস্ট আপডেট

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ রবিবার থেকেই ‘খেল’ দেখাতে শুরু করেছে রেমাল। গতকাল সকাল থেকেই দক্ষিণবঙ্গের (South Bengal) নানান জেলায় বৃষ্টি শুরু হয়েছে। বেলা যত গড়িয়েছে তত বেড়েছে ঝোড়ো হাওয়া এবং বর্ষণের দাপট। সোমবার সকালেও আবহাওয়ার বিশেষ পরিবর্তন হয়নি। লাগাতার বৃষ্টির জেরে জলমগ্ন হয়ে পড়েছে কলকাতার একাধিক জায়গা। রেমালের (Cyclone Remal) ‘জের’ আর কতক্ষণ থাকবে? এমতাবস্থায় অনেকের মনেই উঁকি দিয়েছে এই প্রশ্ন। ‘ল্যান্ডফলে’র পর ইতিমধ্যেই অনেকটা শক্তি খুইয়েছে রেমাল (Remal)। বর্তমানে ঘূর্ণিঝড় হয়ে তা উত্তর এবং উত্তর-পূর্ব দিকে এগোচ্ছে। যে কারণে আগামী কয়েকদিন উত্তরবঙ্গে (North Bengal) ব্যাপক বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। দোসর হতে চলেছে ঝোড়ো হাওয়া। তবে রেমালের জেরে সোমবার দক্ষিণবঙ্গ (South Bengal) জুড়ে বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। নদিয়া এবং মুর্শিদাবাদে ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টিপাত (Rain) হতে পারে। যে কারণে জারি করা হয়েছে লাল সতর্কতা। হাওড়া, হুগলি, কলকাতা, বীরভূম, দুই ২৪ পরগণা এবং পূর্ব বর্ধমানেও ভারী বর্ষণের পূর্বাভাস রয়েছে। তবে বেলা যত বাড়বে ততই উন্নত হতে থাকবে আবহাওয়া। ধীরে ধীরে কমতে থাকবে ঝোড়ো হাওয়ার দাপট। বিকেলের পর থেকে শহর কলকাতার আবহাওয়ার উন্নতি হতে পারে বলে খবর। আরও পড়ুনঃ  নেতাজিকে শ্রদ্ধা জানিয়ে শুরু, যাবেন সারদা মায়ের বাড়ি! মঙ্গলে কলকাতায় কী কী কর্মসূচি রয়েছে মোদীর? আলিপুর আবহাওয়া দফতরের অধিকর্তা হবিবুর রহমান বিশ্বাস জানিয়েছেন, আজ ভোর ৪:৩০ নাগাদ পশ্চিমবঙ্গের উপকূল সংলগ্ন বাংলাদেশের স্থলভাগে অবস্থিত ছিল রেমাল। ক্যানিং থেকে ৬৫ কিমি পূর্বে এর অবস্থান ছিল। তিনি জানিয়েছেন, এই ঘূর্ণিঝড় এবার ক্রমেই উত্তর এবং উত্তর পূর্ব দিকে এগিয়ে যাবে। এর জেরে কলকাতা, হলদিয়া, দমদমে অতি ভারী বৃষ্টিপাত হয়েছে। রেমালের জেরে এদিন সকালে দীঘার সমুদ্র বেশ উত্তাল ছিল। আজ বেলা গড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে রেমালের কারণে রেণুকা মণ্ডল নামে একজনের মৃত্যুর খবর সামনে এসেছে। প্রশাসন সূত্রে খবর, ঝড়ের কারণে গাছ পড়ে তাঁর মৃত্যু হয়েছে। কলকাতাতেও একজন এর জেরে প্রাণ হারিয়েছেন। এন্টালির বিবির বাগান এলাকার কার্নিশের চাঙর ভেঙে একজন প্রাণ হারান। এদিকে লাগাতার বৃষ্টির জেরে কলকাতার একাধিক জায়গা জলমগ্ন হয়ে গিয়েছে। বালিগঞ্জ, ক্যামাক স্ট্রিট, সিঁথির মোড় থেকে শুরু করে বেহালার জলমগ্ন হয়ে গিয়েছে। সল্টলেকের নানান জায়গাতেও দেখা গিয়েছে এই চিত্র। কোথাও কোথাও আবার গাছও উপড়ে পড়েছে। সব মিলিয়ে, যাতায়াতে অসুবিধা হচ্ছে সাধারণ মানুষের। বহুক্ষণ কেটে যাওয়ার পরেও প্রশাসনের তরফ থেকে রাস্তা পরিষ্কার না করায় সল্টলেকের বাসিন্দাদের একাংশ বেশ চটে গিয়েছেন।

বাংলা হান্ট 27 May 2024 1:03 pm

ঘূর্ণিঝড়ের দাপটে ওলট পালট টলি কুইন ঋতুপর্ণার সব! ঘরে বসেই মন খারাপ অভিনেত্রীর 

বাংলা হান্ট ডেস্ক: রবিবার বিকেল থেকেই নিজের শক্তি দেখাতে শুরু করেছে ঘূর্ণিঝড় রেমাল (Cyclone Remal)। গোটা পশ্চিমবঙ্গএই মুহূর্তে রেমালের দাপটে বিধ্বস্ত। সময় যত গড়াচ্ছে ততই যেন শক্তি বাড়িয়ে চলেছে দামাল রেমাল। এই প্রবল ঝড় বৃষ্টির জেরে ইতিমধ্যেই পন্ড হয়েছে বহু মানুষের কাজকর্ম। ব্যাঘাত ঘটেছে যান চলাচলেও। তবে শুধু সাধারণ মানুষই নয়, এই রেমালের দাপটে বেকায়দায় পড়েছেন টলিউড (Tollywood) তারকারাও। এমনিতেই এই ঘূর্ণিঝড়ের (Cyclone) কবলে পড়ে ব্যাহত হয়েছে যান চলাচল। যার ফলে কার্যত শুনশান রাস্তাঘাট। রবিবার থেকে ভারী বৃষ্টির কারণে অন্যান্য যান চলাচলের মতই থমকে গিয়েছে বিমান চলাচল। যার ফলে এই মুহূর্তে বেজার মন খারাপ টলিউড কুইন তথা অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তর (Rituparna Sengupta)। প্রচন্ড বৃষ্টির জন্য কার্যত অচল হয়ে পড়েছে  কলকাতা  বিমানবন্দর। এমনিতেই দুর্যোগের আশঙ্কা করে শনিবার রাত থেকেই কমানো হয়েছিল বিমান চলাচল। আর রেমালের শক্তি বৃদ্ধির সাথে সাথেই  রবিবার সকাল থেকে পুরোপুরি বাতিল করে দেওয়া হয়েছে কলকাতা বিমানবন্দরের (Kolkata Airport) সমস্ত ফ্লাইট (Flight Cancelled)। তাই বাইরের আকাশের  মতোই মুখ ভার টলিউড অভিনেত্রী ঋতুপর্ণার-ও। এপ্রসঙ্গে ঋতুপর্ণার টিমের তরফ থেকে TV9 বাংলাকে জানানো হয়েছে,অভিনেত্রীর নাকি  খুবই মন খারাপ। আসলে  রবিবার (২৬ মে, ২০২৪) রাতে সিঙ্গাপুর থেকে ফেরার  পর কাল রাতেই  ইউএসএ যাওয়ার কথা ছিল অভিনেত্রীর। আরও পড়ুন: রেমালের জেরে আজও প্রবল দুর্যোগ দক্ষিণবঙ্গে, জারি রেড অ্যালার্ট, আবহাওয়ার উন্নতি কবে? সেই মতো করা ছিল সমস্ত পরিকল্পনাও। কিন্তু দুপুর ১২টা থেকে কাল আগামী সকাল ৯টা পর্যন্ত কলকাতা এয়ারপোর্ট বন্ধ। তাই সমস্ত প্রোগ্রাম ঘেঁটে গিয়েছে অভিনেত্রীর। প্রসঙ্গত নিজের দীর্ঘ দিনের অভিনয় জীবনে একাধিক সুপারহিট সিনেমা উপহার দিয়ে বাংলা জোড়া খ্যাতি পেয়েছেন ঋতুপর্ণা। এখনও এই বয়সে এসেও অটুট তাঁর গ্ল্যামার। সারা বছর ধরেই হাতে ঠাসা কাজ থাকে তাঁর। আর এখন তো অভিনয়ের পাশাপাশি প্রযোজনা নিয়েও ব্যস্ত ঋতু। আগামী মাসেই মুক্তি পেতে চলেছে ঋতুপর্ণা-প্রসেনজিৎ জুটির ৫০তম ছবি ‘অযোগ্য’। আসন্ন এই সিনেমা নিয়ে দারুন উচ্ছসিত এভারগ্রিন এই জুটি অনুরাগীরা।

বাংলা হান্ট 27 May 2024 12:58 pm

‘রেমাল’বিপত্তির মাঝেও চলবে বন্দে ভারত, শতাব্দী, ব্ল্যাক ডায়মন্ড! যাত্রীদের জন্য আপডেট রেলের

বাংলাহান্ট ডেস্ক : ঘূর্ণিঝড় ‘রেমাল’ এর কারণে হাওড়া ও শিয়ালদা ডিভিশন বাতিল হয়েছে একাধিক ট্রেন। তবে এই দুর্যোগের মধ্যেও বাতিল করা হবে না বন্দে ভারত, শতাব্দী এবং ব্ল্যাক ডায়মন্ড- এই তিনটি ট্রেন। পূর্ব রেলের (Eastern Railway) পক্ষ থেকে শনিবার বিজ্ঞপ্তি দিয়ে জানানো হয়েছে এটাই। হাওড়া স্টেশন থেকে সোমবার নির্দিষ্ট সময়ে এই ট্রেনগুলি রওনা দেবে গন্তব্যের দিকে। ঘূর্ণিঝড় ‘রেমাল’-এর মোকাবিলা করার জন্য পূর্ব রেল প্রস্তুত ছিল আগে থেকেই। বেশ কিছু লোকাল ও দূরপাল্লার ট্রেন বাতিল করা হয় হাওড়া (Howrah) ও শিয়ালদা (Sealdah) ডিভিশনে। কিছু ট্রেনের সময়সূচিতে আসে বদল। শিয়ালদা ডিভিশনের বেশ কিছু শাখায় ট্রেন চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছিল রবিবার রাত এগারোটা থেকে সোমবার সকাল ছটা পর্যন্ত। আরোও পড়ুন :  এই কিশোর হবেন ‘সহস্রাব্দের প্রথম সন্ত’! পোপো ফ্রান্সিস দিলেন অলৌকিক মহিমার স্বীকৃতি এদিনই ‘রেমাল’ আছড়ে স্থলভাগে। হাওড়া ডিভিশনের বেশকিছু ট্রেন বাতিল করা হয় শনি ও রবিবার। ‘রেমাল’ স্থলভাগে আছড়ে পড়েছে গতকাল রাত সাড়ে এগারোটা নাগাদ। তারপর থেকে তুমুল বৃষ্টি ও ঝোড়ো হাওয়া শুরু হয়েছে বিভিন্ন জায়গায়। আলিপুর আবহাওয়া দপ্তরের পূর্বাভাস আজ দুপুর পর্যন্ত ভারী বৃষ্টি চলবে। আরোও পড়ুন :  হয়ে যান সতর্ক! ১ জুনের আগে এই কাজটি না করলেই আর মিলবে না LPG সিলিন্ডার আগে থেকেই সতর্কতা অবলম্বন করে পূর্ব রেল সিদ্ধান্ত নেয় শিয়ালদহ দক্ষিণ বিভাগ এবং বারাসত-হাসনাবাদ বিভাগে রবিবার রাত ১১টা থেকে সোমবার ভোর ৬টা পর্যন্ত ট্রেন চলাচল বন্ধ রাখার। যে ট্রেনগুলি বাতিল করা হয় তার মধ্যে রয়েছে লক্ষ্মীকান্তপুর-নামখানা, শিয়ালদহ- লক্ষ্মীকান্তপুর, শিয়ালদহ-বজবজ, শিয়ালদহ-ক্যানিং, শিয়ালদহ-ডায়মন্ড হারবার লোকাল। সোমবার যে ট্রেনগুলি বাতিল করা হয়েছে সেগুলি হল- লক্ষ্মীকান্তপুর-নামখানা, শিয়ালদহ-লক্ষ্মীকান্তপুর, শিয়ালদহ-বজবজ, শিয়ালদহ-ক্যানিং, শিয়ালদহ-ডায়মন্ড হারবার, শিয়ালদহ-সোনারপুর, শিয়ালদহ-বারুইপুর, শিয়ালদহ/বারাসত-হাসনাবাদ লোকাল। এছাড়াও বদল এসেছে কিছু ট্রেনের সময়সূচিতে।

বাংলা হান্ট 27 May 2024 12:39 pm

নেতাজিকে শ্রদ্ধা জানিয়ে শুরু, যাবেন সারদা মায়ের বাড়ি! মঙ্গলে কলকাতায় কী কী কর্মসূচি রয়েছে মোদীর?

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ সপ্তম দফার নির্বাচনের আগে ফের একবার কলকাতায় আসছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (Narendra Modi)। আগামী ১ জুন অন্তিম দফার ভোট। উত্তর কলকাতা, দক্ষিণ কলকাতা, ডায়মন্ড হারবার, বসিরহাট সহ বেশ কয়েকটি হাইভোল্টেজ আসনে নির্বাচন রয়েছে সেদিন। তার আগে মঙ্গলবার তিলোত্তমার বুকে বর্ণাঢ্য রোড শো (Road Sho) করবেন পিএম মোদী। আগামীকাল উত্তর কলকাতার (Kolkata) বিজেপি প্রার্থী তাপস রায়ের সমর্থনে প্রচার করবেন প্রধানমন্ত্রী। সূত্র মারফৎ জানা যাচ্ছে, রোড শো শুরু হওয়ার আগে সারদা মায়ের বাড়িতে যাবেন তিনি। আগামীকাল সন্ধ্যায় মোদীর রোড শো শুরু হওয়ার কথা। তার ঠিক আগে ৫টা নাগাদ বাগবাজারে সারদা মায়ের বাড়িতে যাওয়ার কথা আছে। সেখানে কয়েকজন মহারাজের সঙ্গে দেখাসাক্ষাৎ করতে পারেন তিনি। সারদা মায়ের বাড়িতে ৪০ মিনিট মতো থাকবেন প্রধানমন্ত্রী। আগামীকাল শ্যামবাজার পাঁচ মাথার মোড় থেকে সিমলা স্ট্রিটে স্বামী বিবেকানন্দের বাড়ি অবধি রোড শো করবেন পিএম। জানা যাচ্ছে, পাঁচ মাথার মোড়ে নেতাজি মূর্তির সামনে থেকে এই বর্ণাঢ্য রোড শো শুরু হবে। নেতাজিকে শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করে শুরু হবে যাত্রা। বিধান সরণী হয়ে স্বামী বিবেকানন্দের বাড়িতে গিয়ে শেষ হবে। স্বামীজিকে শ্রদ্ধা জানিয়ে কর্মসূচি শেষ করবেন প্রধানমন্ত্রী। আরও পড়ুনঃ  ভুষি কেলেঙ্কারি থেকে রোজভ্যালি! ‘ওনার দু্র্নীতির ইতিহাস আছে’, মমতাকে নিয়ে বিস্ফোরক তাপস মোদীর রোড শো বিশেষ করে তুলতে একাধিক পরিকল্পনা করা হয়েছে বলে খবর। ঢাক, আদিবাসী নৃত্যের পাশাপাশি এই সুবিশাল শোভাযাত্রার মাধ্যমে বাংলার সংস্কৃতিকে ফুটিয়ে তোলার চেষ্টা করা হবে। ২ কিমির কিছু বেশি রাস্তা ধরে এই রোড শো হবে। তবে জমায়েত এবং ইভেন্ট এতবেশি হবে যে ২ কিমি রাস্তা পেরোতেই প্রায় দু’ঘণ্টা লেগে যাবে। প্রধানমন্ত্রীর এই রোড শো-য়ে দেখা যাবে রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী, বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার, উত্তর কলকাতার পদ্ম প্রার্থী তাপস রায়কে। ভোটের আবহে এই প্রথম বাংলার বুকে রোড শো করছেন প্রধানমন্ত্রী। সেক্ষেত্রে তাঁর রোড শো যে রুট দিয়ে যাবে তা কড়া নিরাপত্তায় মুড়ে দেওয়া হবে। কর্মসূচি শুরু হওয়ার অনেক আগে থেকেই যানবাহন চলাচল নিয়ন্ত্রণ করা হবে। এদিকে দলীয় সূত্রে আবার জানা যাচ্ছে, আগামীকাল কলকাতায় রোড শো-য়ের পাশাপাশি উত্ত্র ২৪ পরগণার অশোকনগর এবং দক্ষিণ ২৪ পরগণার বারুইপুরে সভা করার কথা আছে প্রধানমন্ত্রী। এরপর সেখান থেকে বেরিয়ে প্রথমে বাগবাজারে সারদা মায়ের বাড়ি আসবেন তিনি। এরপর অংশ নেবেন রোড শো-য়ে। সেদিনের কর্মসূচি শেষে রাজভবনে রাত কাটাবেন। এরপর বুধবার মথুরাপুরে আর একটি সভা করতে পারেন তিনি। সুকান্ত এই প্রসঙ্গে বলেন, ‘এই রোড শো ঐতিহাসিক চেহারা নেবে। মোদী ঝড়ে এমন কম্পন তৈরি হবে যে কলকাতা সহ দুই ২৪ পরগণায় যে মোট ৯টি আসনে সপ্তম দফায় নির্বাচন রয়েছে, সেখানে দারুণ ফলাফল করবে বিজেপি। রোড শো-য়ে ২ লক্ষের বেশি মানুষের জমায়েত হবে’।

বাংলা হান্ট 27 May 2024 12:28 pm

কাঁড়ি কাঁড়ি টাকা নয়, এবার অর্ধেক দামেই ব্যবহার করুন পরিষেবা! দুর্দান্ত অফার Jio-র

বাংলা হান্ট ডেস্ক: এই মুহূর্তে আমাদের দেশের অন্যতম জনপ্রিয় টেলিকম সংস্থাগুলির মধ্যে একেবারে প্রথম সারিতেই রয়েছে মুকেশ আম্বানির সংস্থা রিলায়েন্স জিও (Reliance jio)। এই মুহূর্তে সারা দেশ জুড়ে জিওর মোবাইল নেটওয়ার্ক কানেকশনের বিরাট চাহিদা। এমনিতে সারা বছরই গ্রাহকদের সুবিধার কথা মাথায় রেখে নিত্যনতুন রিচার্জ প্ল্যান (recharge Plan) নিয়ে আসে এই সংস্থা। এবার তেমনই এক বছরের জন্য দুর্দান্ত এক রিচার্জ প্ল্যান লঞ্চ করেছে জিও’র ওটিটি প্ল্যাটফর্ম জিও সিনেমা (Jio Cinema)। কিছুদিন আগেই জিওর এই ওটিটি প্লাটফর্মের তরফ থেকে আনা হয়েছিল মাত্র ২৯ টাকার সাবস্ক্রিপশন প্ল্যান। আর এবার গ্রাহকদের বারবার রিচার্জের ঝামেলা থেকে মুক্তি দিতেই এই সংস্থার তরফে আনা হয়েছে এক বছরের দীর্ঘমেয়াদী সাবস্ক্রিপশন প্ল্যান। শুধু তাই নয় এই প্ল্যানে সীমিত সময়ের জন্য ৫০ শতাংশ ছাড়-ও  দিচ্ছে জিও। যার মাধ্যমে জিও সিনেমার  4K রেজোলিউশনের ভিডিও দেখতে পারবেন গ্রাহকরা। আসুন দেখে নেওয়া যাক জিও সিনেমা প্রিমিয়ামের খুঁটিনাটি। জিও সিনেমা প্রিমিয়ামের এক বছরের সাবস্ক্রিপশন: জিও সিনেমা প্রিমিয়ামের  এক বছরের সাবস্ক্রিপশন প্ল্যান এর জন্য দাম রাখা হয়েছে ৫৯৯ টাকা। তবে এক্ষেত্রে ৫০ শতাংশ ছাড় দেওয়া হবে .যার ফলে এক ধাক্কায় এই রিচার্জ প্ল্যানের দাম কমে গিয়ে হবে ৩৯৯ টাকা। তবে যেহেতু এই ছাড় শুধুমাত্র সীমিত সময়ের জন্য দেওয়া হচ্ছে তাই বারো মাস পার হয়ে গেলে তখন কিন্তু এই প্ল্যানটি ৫৯৯ টাকা দিয়েই রিচার্জ করতে হবে। তাই এক বছরের জন্য যারা কম খরচে ওটিটি প্ল্যাটফর্মের পরিষেবা উপভোগ করতে চান তাদের জন্য এটি একটি দারুণ অফার। আরও পড়ুন: গরমের ছুটিতেই তৈরী হল নতুন রেকর্ড! আয়ের নিরিখে ইতিহাস গড়ল দার্জিলিং চিড়িয়াখানা স্বল্পমেয়াদি ১ মাসের সাবস্ক্রিপশন প্রসঙ্গত জিও সিনেমা প্রিমিয়ামের  এক বছরের প্ল্যান ছাড়াও রয়েছে কম দামের ১ মাসের প্ল্যান। এক্ষেত্রে জিও’র দু’ দুটি সাবস্ক্রিপশন প্ল্যান রয়েছে। যার মধ্যে প্রথম প্ল্যানের দাম ২৯ টাকা। তবে এই প্ল্যানে শুধুমাত্র একটি ডিভাইসই কানেক্ট করা যায়। এছাড়া জিও’র যে ফ্যামিলি প্যাকটি রয়েছে তার জন্য খরচ হবে মোট ৮৯ টাকা। এই প্ল্যানে মোট ৪টি ডিভাইস কানেক্ট করা যাবে। এখানে বলে রাখি এই সাবস্ক্রিপশন প্ল্যানগুলির সুবিধা হল এতে  এক্সক্লুসিভ কনটেন্ট ছাড়াও কোনো বিজ্ঞাপন ছাড়াই অর্থাৎ অ্যাড-ফ্রি ভিডিয়ো স্ট্রিমিং করা যাবে।

বাংলা হান্ট 27 May 2024 12:12 pm

Delhi Hospital Fire: অগ্নিকাণ্ডে শশ্মানপুরী দিল্লির হাসপাতাল! বুক চাপড়াচ্ছেন তৃতীয়বার সন্তানহারা বাবা-মা

শনিবার রাতের দিল্লিতে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড। পূর্ব দিল্লির এক 'বেবি কেয়ার সেন্টারে' ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে যায়। খবর পেতেই সেখানে ছুটে যায় দমকল উদ্ধার করা হয় ১১ সদ্যোজাতকে ৷ দিল্লির বিবেক বিহারের ঘটনা ৷ সাত সদ্যোজাতের মৃত্যু হয়েছে। মৃতদের মধ্য়ে রয়েছে রয়েছে এমন এক পরিবারের সন্তান যারা এর আগেও দুই বার সন্তানকে হারিয়েছেন।

এ ই সময় 27 May 2024 12:09 pm